বাণিজ্য বার্তা

অধ্যক্ষদের নিয়ে গ্যাটে ইনিস্টিটিউটের আন্তর্জাতিক সম্মেলন

প্রথমবারের মত ভার্চুয়াল মাধ্যমে অধ্যক্ষদের নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজন করলো জার্মানীর সংস্কৃতি সংস্থা গ্যাটে ইনিস্টিটিউট। দিল্লীস্থ জার্মানীর সংস্কৃতি এবং ভিসা কেন্দ্র এই সম্মেলনের আয়োজনে, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত তিন ব্যাপী সম্মেলনে উত্তর-দক্ষিন এশীয় দেশ থেকে ৪০ জন্য অধ্যক্ষ যোগ দেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
দক্ষিন এশীয় অঞ্চলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে জার্মানির শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের সংযোগ স্থাপনের প্রকল্প ‘দ্য ইনিশিয়েটিভ স্কুল: পার্টনার ফর দ্য ফিউচার (পেইস) প্রকল্পের আওয়ায় এই সম্মেলন আয়োজন করা হয়। জার্মানির শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিনিময় (ডেইড) সেবা নিয়েও আলোচনা করেন অধ্যক্ষগণ।

২০০৮ সালে জার্মানির তৎকালীন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. ফ্রাংক-ওয়াল্টার স্টেইনমিয়ার প্রকল্পটি চালু করেন। পেইচ দক্ষিন এশীয় অঞ্চলের প্রধান ভেরোনিকা তারানজিন্সকাজা বলেন, আন্তঃসম্পর্কীয় শিক্ষা বিষয়ক আলোচনা প্রাধান্য পেয়েছে জার্মানীর পথে, জার্মানীর সাথে’ প্রতিপাদ্য নিয়ে আয়োজিত সম্মেলনে সম্মুখ সাক্ষাৎ না হলেও ভারত, নেপাল, বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং ইরান থেকে যোগ দেয়া অধ্যক্ষদের মধ্যে ফলপ্রসূ জ্ঞান বিনিময়ে এই ডিজিটাল সম্মেলন ভূমিকা রেখেছে বলে মনে করেন ভেরোনিকা।


সম্মেলনের প্রথম দিনে, গ্যাটে ইনিস্টিটিউটের দক্ষিন এশীয় অঞ্চলের পরিচালক বার্টহোল্ড ফ্রাংক এবং মিউনিখের প্রধান কার্যালয়ের ভাষা বিভাগীয় প্রধান ক্রিস্টোফার ভেল্ধুয়েস বিষয় ভিত্তিক উপস্থাপনা করেন। কর্মকর্তারা জানান, পেইস প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হলো জার্মানির ভাষা সংস্কৃতির উপরে জনআগ্রহ বৃদ্ধি এবং তরুন প্রজন্মকে জার্মান ভাষা শিক্ষায় উৎসাহিত করা। সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে অধ্যক্ষদের প্রতিদিনের বিদ্যালয় কার্যক্রম নিয়ে আলোকপাত করা হয় যেখানে করোনা পরিস্থিতিতে নতুন বাস্তবতায় ‘দূরঃশিক্ষন’ বিষয়ে অভিজ্ঞতা বিনিময় হয়।

দক্ষিন এশীয় বিদ্যালয়ের ‘এসটিইএম ক্লাব’ সমুহে কারিগরী ভাষা শেখার উপর গুরুত্বারোপ করেন প্রকৌশলীদের জন্য জার্মান’ বইয়ের লেখক ড. স্তেইন মেটজ। জার্মানীর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে একটি কর্মশালা পরিচালনা করেন ‘১০০০ বিদ্যালয়ে জার্মান’ প্রকল্পের প্রধান পুনীত কর।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker