খেলাহোমপেজ স্লাইড ছবি

অপরাজিত এক ফাইটারের গল্প

বাবার স্বপ্নপূরণে ফাইটার হওয়া আর মায়ের নির্দেশে অবসর নেয়া! বাবা মা দুজনের নির্দেশ পালন করে তাদের খুশী রাখতে পারার সৌভাগ্য খুব কম সন্তানের ভাগ্যেই জোটে। Khabib “the Eagle” Nurmagomedov সেই সৌভাগ্যবান সন্তানদের একজন৷

বাবা চেয়েছিলেন ছেলে ফাইটার হবেন, চ্যাম্পিয়নশীপ জিতবেন। খাবিবের প্রতিটা ফাইটে তিনি আসতেন ছেলের সাথে। ছেলেকে উৎসাহ দিতেন, সাপোর্ট করতেন। এ বছরের জুলাইতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে খাবিবের বাবা মারা যান। আর বাবার মৃত্যুর পরে কয়েকদিন আগে খাবিব তার প্রথম ম্যাচটা খেলেন। খাবিব ইমোশনাল হয়ে বলেছিলেন বাবাকে ছাড়া এবারই প্রথম আর এটাই শেষ কারণ তাকে ছাড়া কখনোই এখানে আসা সম্ভব নয়৷ খাবিবের মায়ের নির্দেশ ছিলো ফাইট ছেড়ে দেয়ার জন্যে।

ক্রিকেট হোক কিংবা ফুটবল বা যেকোনো স্পোর্টস। একজন এথলেট তার মাঝ বয়সেই সেরা ফর্মে থাকেন। খাবিব এমন একটা সময়ে অবসরে গেলেন যখন তিনি ছিলেন অপ্রতিরোধ্য,অপ্রতিদ্বন্ধী। ক্যারিয়ারের সেরা সময়েই মায়ের নির্দেশে অবসর নিয়ে নিলেন। এরকম স্যাক্রিফাইস খাবিব বলেই সম্ভব ছিলো। গত কয়েক বছরে বিশ্ব মঞ্চে ইসলাম নিয়ে যে কজন মানুষ আলোচনায় ছিলেন তাদের মধ্যে খাবিব অন্যতম। শাহাদাৎ আঙ্গুল তুলে আল্লাহকে কৃতজ্ঞতা, কিংবা সেজদা দিয়ে সৃষ্টিকর্তার আনুগত্য কিংবা আলহামদুলিল্লাহ বলে শোকরিয়া আদায় এসবই ছিলো খাবিবের চিরাচরিত স্বভাব।

MMA ইতিহাসের অন্যতম সেরা ম্যাচে কনর ম্যাকগ্রেগরের সাথে খাবিবের ম্যাচটা বিবেচনা করা হয় ইসলাম বিদ্বেষের সাথে ইসলামের। কনর যখন ইসলাম,ইসলাম অনুসারীদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেছিলো খাবিব শুধু জবাবে বলেছিল তোমার এই মন্তব্য করার মতন অবস্থায় তুমি থাকবে না। সেদিন কনরকে এক প্রকার হিউমিলিয়েট করেই নক আউট করেছিলেন খাবিব। তার ক্যারিয়ারের ষ্ট্রাটেজিক প্রোফাইল ২৯-০ অর্থাৎ একটা ম্যাচেও হারেননি তিনি।

ম্যাচ দূরে থাক কোন একটা রাউন্ডেও কখনো পরাজিত হননি খাবিব। গত কয়েক বছরে ক্রীড়া জগতে যে মানুষটি মুসলমানদের গর্বিত করেছে এবং নিজের মুসলিম পরিচয়কে গর্বের সাথে প্রচার করেছেন তিনি হচ্ছেন খাবিব।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker