বিনোদন

আসছে ওয়েব সিরিজ মির্জাপুর-২

ভৌগোলিক অবস্থাগত কারণে উত্তর প্রদেশ এমনিতেই উত্তাল। সারাবছর উত্তর প্রদেশের ৭৫ টা জেলার কোন না কোন জেলায় গ্যাং ওয়্যার, গ্যাঞ্জাম, মারামারি আছেই। ভারতের এনসিআরবি বা ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর রিপোর্ট অনুযায়ী উত্তর প্রদেশ শীর্ষে সবসময়ই। ২০১৭ সালে এনসিআরবি রিপোর্ট অনুযায়ী উত্তর প্রদেশে মারাত্মক অপরাধের কেইস ফাইল ছিল ৬৪,৪৫০টি। ১৮/১৯ সালে এই সংখ্যা ৭০ হাজারের কাছাকাছি!

উত্তর প্রদেশের একটা জেলা মির্জাপুর। এলাহাবাদ ঘেঁষা। মির্জাপুর কার্পেট শিল্পের জন্য বিশ্ববিখ্যাত। ইউরোপের বিভিন্ন দেশে এই কার্পেট রপ্তানি হয়। এখানে বিভিন্ন অবৈধ অস্ত্র তৈরি হয়। এই নিয়ে বহু বছর যাবত গ্যাং ওয়্যার, খুনাখুনি, রক্তারক্তি! মির্জাপুরে বছরের একটা নির্দিষ্ট টাইমে গঙ্গা উৎসব চলে বিভিন্ন ঘাটে৷ প্রদীপের আলো জ্বালার আগেই এই ঘাটে হলি খেলা হত এক সময় রক্ত দিয়ে! এতটাই এগ্রেসিভ ছিল! যদিও বেইজড অন এ ট্রু স্টোরি না। তারপরও মির্জাপুর এর আন্ডারওয়ার্ল্ড এর সাথে সংশ্লিষ্ট এই কাহিনি, এই সিরিজ। আমাজন প্রাইমের, “ মির্জাপুর ” যেখানে অখণ্ডানন্দ ত্রিপাঠি অর্থাৎ কালেন ভাইয়া তার বাবার কাছ থেকে অর্জিত আন্ডারওয়ার্ল্ড সাম্রাজ্য ধরে রাখে৷ অস্ত্র, মাদক, কার্পেট বিজনেস কেন্দ্রিক।

অপরদিকে তার বখে যাওয়া সন্তান মুনসেন ত্রিপাঠি ওরফে মুন্না ভাইয়া যে কিনা প্রিন্স অফ মির্জাপুর দাবী করে নিজেরে! সেও মির্জাপুর রান করতে চায়, রাজ করতে চায়! যদিও রিয়েল লাইফে, রিয়েল মির্জাপুরে কখনোই ত্রিপাঠি পরিবার মির্জাপুর আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ করতে চায়নি, করেও নাই। মুন্না বাজরাঙ্গী, চৌধুরী পরিবার এই সবসময় মির্জাপুর উত্তাল করে রাখতো! এই সব রহস্যর সমাধান নিয়ে মির্জাপুর টু আসছে সামনে।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker