স্বাস্থ্যহেলথ টিপসহোমপেজ স্লাইড ছবি

করোনায় ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য যা করণীয়

হুমায়রা জাহান তানহা: গবেষণায় দেখা গেছে বাংলাদেশের ৭০% মানুষই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। কিন্তু করোনা কালীন এই লক ডাউনে বাইরে যেয়ে হাটাহাটি করা মানে মৃত্যুকে হাতছানি দিয়ে ডাকার মতন। কারন বলা হয়ে থাকে ডায়াবেটিস হচ্ছে সকল রোগের জননী। তাই এই কোয়ারেন্টাইনে ডায়াবেটিস এর রোগীরা পড়েছে এক কঠিন অবস্থায়। না পারছে বাইরে বেরিয়ে হাটাহাটি করতে, না পারছে ঘরে বসে থাকতে! আবার এই করোনা পরিস্থিতিতা জিমে যাওয়াও অনুচিৎ।

এদিকে বাঙালী মধ্যবিত্তের ঘরে নেই ব্যায়ামের দামী দামী সব সরঞ্জাম! ওদিকে আবার হাটাহাটি বন্ধ করলে, একদিকে যেমন শরীর ঠিক থাকেনা, অন্যদিকে মেজাজও হয়ে যায় খিটখিটে! তাই যোগব্যায়ামই হতে পারে সবচেয়ে সহজ এবং উপযুক্ত উপায়। তাই এই সময়ে তাদের উচিৎ প্রতিদিন যোগ ব্যায়ামের অভ্যাস গড়ে তোলা। অনেকে ভাবতেই পারেন, যোগব্যায়াম আর ৪৫মিনিট হাটাহাটি করা একই কথা না। কিন্তু শুধু শুধু ঘরে বসে থাকার চেয়ে এটা অবশ্যই উপকারী।

১. এটি ব্লাড-সুগার, শরীরের লিপিড প্রোফাইল, ব্লাড- প্রেসার, বডি ওয়েট এবং অক্সিডেটিভ স্ট্রেস এর ইমপ্রুভমেন্ট ঘটায়।

 স্ট্রেস এর মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। সুতরাং, স্ট্রেসের মাত্রা ঠিক করা একজন ব্যক্তির ডায়াবেটিস এর মাত্রা ঠিক করতেও সহায়তা করতে পারে। ২০১৩ সালের একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে যোগব্যায়াম স্ট্রেসের মাত্রা হ্রাস করতে সহায়তা করে ফলে মস্তিস্কের নির্দিষ্ট রাসায়নিক ভারসাম্যেরও উন্নতি ঘটে। যোগব্যায়াম অনুশীলন গভীর শ্বাস-প্রশ্বাসের দক্ষতার পাশাপাশি মন-দেহের সংযোগ বিকাশে সহায়তা করতে পারে। এটি উদ্বেগ হ্রাস করতে পারে এবং মানসিক সুস্থতার উন্নতি করতে পারে। যোগব্যায়ামে এমন অনেকগুলি পোজ জড়িত যা কোনও ব্যক্তির শক্তি, নমনীয়তা এবং ভারসাম্য উন্নত করার দিকে খেয়াল রাখে। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত কিছু লোকেরা স্নায়ুর ক্ষতির কারণে পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথির অভিজ্ঞতা পান। কিছু ক্ষেত্রে, এটি পেশী শক্তি এবং গতিশীলতা প্রভাবিত করতে পারে। অনুশীলনের মাধ্যমে শক্তি বাড়ানো লোককে এই প্রভাবগুলি পরিচালনা করতে সহায়তা করতে পারে।

২. হার্টের স্বাস্থ্য রক্ষা করা আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন যোগব্যায়ামের উপকারিতা সমন্ধে একটি তালিকা দেয়। যার মধ্যে আছে, নিয়মিত অনুশীলন রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। বেশ কয়েকটি গবেষণায় পরামর্শ দেওয়া হয়েছে যে যোগব্যায়াম ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের বিভিন্ন উপায়ে তাদের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারে। ২০১৩ সালের একটি নিবন্ধ অনুসারে, যোগব্যায়াম ডায়াবেটিসের কার্যকর থেরাপি হিসাবে দেখা হয়কারণ ডায়াবেটিস আক্রান্ত ব্যক্তিদের নিয়মিত যোগ অনুশীলনকারীদের জীবনমানের উল্লেখযোগ্য উন্নতির প্রমাণ রয়েছে। ডায়েট, রিলাক্সেশন এবং স্ট্রেস ম্যানেজমেন্ট – – যোগব্যায়ামের এই উপকারিতাগুলো ডায়াবেটিস রোগীদের শরীরের সার্বিক ভারসাম্য রক্ষা করতে সাহায্য করে। অন্য একটি নিবন্ধে দেখা গেছে যে প্রতিবার নিয়মিত ১০ মিনিটের জন্য যোগব্যায়াম অনুশীলন করলে রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা, হার্টের ডায়াস্টলিক রক্তচাপের এবং উপবাসের উন্নতি ঘটে। লেখকরা বিশেষত এমন লোকদের দিকে নজর দিয়েছিলেন যারা ডায়াবেটিসে গুরুতর অসুস্থ ছিলেন।

যোগব্যায়াম ডায়াবেটিস রোগীদের মধ্যে যারা হাই রিস্কে আছে, তাদের স্বাস্থ্যের ও উন্নতি সাধন করতে সক্ষম হয়েছে। এছাড়াও ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য যোগব্যায়ামের আরো অনেক উপকারিতা রয়েছে। সেসব উপকারিতা সম্পর্কে আপনি জানতে পারেন গুগল বা ইউটিউবের সার্চ বাটনে একটা ক্লিক করেই। এখন পৃথিবীর এই দুর্যোগের সময় বাইরে বের হওয়া যেহেতু আমাদের জন্য একেবারেই নিরাপদ নয়, তাই ঘরে বসে যোগব্যায়াম অনুশীলন করে, আপনি খুব সহজেই আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker