বিনোদনসিনেমা ও টেলিভিশনহোমপেজ স্লাইড ছবি

ক্রিশ্চিয়ান বেল : মেথড অ্যাক্টিংয়ের জীবন্ত কিংবদন্তি!

জন্ম ১৯৭৪ সালে ৩০শে জানুয়ারি ইংল্যান্ডের ওয়েলসের এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে! বাবা জন্মসূত্রে দক্ষিণ আফ্রিকার বংশোদ্ভূত পাইলট, মা ছিলেন ব্রিটিশ সার্কাস অভিনেত্রী! বাবা মার ডিভোর্স হওয়ার ফলে মাত্র ১৭বছর বয়সে তার বাবার সাথে ইংল্যান্ড থেকে পাড়ি দিয়েছিলেন আমেরিকায়! কৈশোরে অভিনয়ের প্রতি তেমন ঝোঁক না থাকা সত্ত্বেও অভিনয়ে জড়িয়ে গেছিলেন! বলছিলাম গ্রেট ক্রিশ্চিয়ান বেলের কথা!

মাত্র ৮ বছর বয়সে বিজ্ঞাপন অভিনয় করেছিলেন! ছোটখাটো রুলে কাজ করার পর রঙিন পর্দায় অভিনয় জগতে প্রথম পা রাখেন মাত্র তের বছর বয়সে লেজেন্ডারি পরিচালক স্টিভেন স্পিলবার্গের “এম্পায়ার অফ দ্য সান” মাধ্যমে! মুক্তি পাওয়ার পর দর্শক, সমালোচকদের কাছ থেকে খুবই প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছিলেন! সে বছর সমালোচক পুরস্কার থেকে শুরু করে অনেক অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছেন! আজকের দিনের বেলকে গড়ার কারিগর ছিলো স্যার স্টিভেন স্পিলবার্গ! প্রায় ১২০০০ শিশু থেকে বেলকে চুজ করেছিল! যার আস্থার প্রতিদান ও দিয়েছিলেন Empire of the Sun মুভিটা দেখলেই আন্দাজ করা যায়! সেই শুরু করেছেন এখন অব্দি থামেননি!

এই সময়ে আমাদের উপহার দিয়েছেন দ্যা নিউজ বয়েজ, আমেরিকান সাইকো, ডার্ক নাইট ট্রিলজি, দ্যা বিগ শট, লিটল ওমেন সহ অসংখ্য মাস্টারপিস সিনেমা। প্রায় এক দশক পর্দায় অভিনয় করার পর American Psycho মুভিতে সিরিয়াল কিলার প্যাট্রিক ব্যাটম্যান চরিত্রে অভিনয়ে করার পর লাইমলাইটে আসে! যেটি তার ক্যারিয়ারের সেরা মুভি অনেক ক্রিটিকের মতে! চেহারায় ভঙ্গিমা,স্বোয়াগ লেভেল অসাধারণ এই মুভিতে! অন স্ক্রিনে ভিন্ন এক বেলকে উপস্থিত করেছেন ক্রিস্টোফার নোলান! যার মধ্যে তিনি এনেছেন সবার প্রিয় কমিক হিরো ব্যাটম্যান কে! উপহার দিয়েছেন সর্বকালের অন্যতম সেরা ট্রিলজি “ডার্ক নাইট ট্রিলজি”! যেটি সমালোচক থেকে বক্স অফিসে ও তান্ডব চালিয়েছে!

এই তিন মুভিতে ব্রুস ওয়েন চরিত্রের জন্য বিশ্বব্যাপী বেলের জনপ্রিয়তা তখন থেকে নতুন ভাবে শুরু হয়েছিল! বেল- নোলান জুটির অন্যতম সেরা মুভি হলো “The Prestige”! মুভির চরিত্রকে তিনি নিজ সত্তা মনে করতেন তাইতো গল্পের প্রয়োজনে শরীরকে ভাঙ্গা খেলায় মেতেছেন বারবার! The Machinist মুভির জন্য ২৩.৫ কেজি ওজন লস্ট করেছিলেন! নেক্সট ব্যাটম্যান বেগিনস এ ওজন নিয়ে আসেন ৮৬ কেজি তে! আবার রেসকিউ ডাউনের জন্য ২৬ কেজি ওজন কমিয়েছেন ভাবা যায়?? এ থেকে বুঝা যায় চরিত্রের প্রতি কেমন যত্নশীল ছিলো সে! এখনপর্যন্ত ৪০ এর অধিক মুভি করেছেন! প্রাপ্তির খাতা উল্লেখ করলে সমালোচক, দর্শক সবদিকেই সে সফল ছিলো! ছোট-বড় প্রায় ৭৯ এর মতো অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছেন এবং ১৩০+ এর অধিক নমিনেশন পেয়েছেন!

যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো The Fighter মুভির জন্য বেস্ট সাপোর্টিং অ্যাক্টর হিসেবে অস্কার লাভ করেছিলেন! অবশ্য American hustle বেস্ট অ্যাক্টর ক্যাটাগরিতে গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন! সেরা অ্যাক্টর ক্যাটাগরিতে অস্কারে নমিনেশন পেলেও সোনার হরিণ টা আর ধরা হলো না! বিশেষ করে আমেরিকান সাইকো মুভির প্যাট্রিক ব্যাটম্যান রোলটা আমার দেখা তার সেরা চরিত্র! আর সবচেয়ে আন্ডার রেটেড মুভি বললে বলবো The Flower of war. এটা আমার খুবই খুবই প্রিয়! উনাকে অনেকেই বলে বডি ট্রান্স ফর্মেশনের গুরু আবার অনেকেই বলে মেথড অ্যাক্টিং এর জীবন্ত কিংবদন্তি!

এসব কিছু আসলেই খাটে তার ক্ষেত্রে! আমি বলবো মেথড অ্যাক্টিং কে যারা অন্য পর্যায়ে তাদের মধ্যে একজন বেল সাহেব! এই যে আমরা বেল লোকটাকে পর্দায় যেভাবে দেখি বাস্তব জীবনে কিন্তু আগে এমনটা ছিলেন না! খুবই লাজুক প্রকৃতির ছিলেন তিনি! সাংবাদিক দেখলেই বেশ ভয় পেয়ে যেতেন! বেল একটা কথা বলেন , তিনি জানেন না অন্য অভিনেতারা কিভাবে জীবন যাপন করেন কিন্তু তিনি চান না তার সম্পর্কে মানুষ খুব বেশি জানুক! আর এটাই হয়তো একজন অভিনেতাকে অনেকদিন বাঁচিয়ে রাখতে সাহায্য করে, আর এটাই “ক্রিশ্চিয়ান বেল” বেল নিজের মতন থাকতে চায়, এটা বেলের কথা! এ কথাগুলো উনি স্বয়ং নিজে বলছিলেন “Empire of the Sun” মুভির পর কোনো এক সাক্ষাৎকারে!

হলিউডের সবচেয়ে প্রিয় হিরোদের একজন ক্রিশ্চিয়ান বেল! বেল মানুষটার মধ্যেই একটা ক্যারিশম্যাটিক ব্যাপার স্যাপার আছে, পুরোটাই আস্ত একটা ইমোশন! আপকমিং মুভি Thor vs Thunder মুভির জন্য শুভকামনা রইলো।

  • ফয়সাল খান

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker