বিনোদনহোমপেজ স্লাইড ছবি

ক্রিস্টোফার নোলানের তিনটি সিনেমা

অভিষেক দাশ: নোলানের বহু ভক্ত আজ দেশে বিদেশে রয়েছেন,তাদের মধ্যে আমিও একজন। তবে বেশির ভাগ নোলান ভক্তের কাছে নোলানের প্রিয় সিনেমা The Dark Knight, Inception বা Interstellar-এর মধ্যে কোনো একটা। তবে এই ক্ষেত্রে আমি একটু ভিন্নমত, আমার কাছে নোলানের প্রিয় মুভি The Prestige (2006)।তার সাথে নোলানের আরেকটি মুভি যে দুটি সিনেমা আমার খুব পছন্দের সে দুটি হলো Memento (2000) আর Insomnia (2002)। তো সবার প্রথমেই বলে রাখি এটি কোনো review নয় এই তিনটি সিনেমা কোন কোন কারণে আমার এত পছন্দের তা নিয়ে একটা spoiler free আলোচনা।

এই তিনটি ছবিই genre-এর দিক দিয়ে থ্রিলার, অর্থাৎ যে genre-টিকে আলাদাভাবে আমাদের সামনে তুলে ধরার ক্ষেত্রে বলা যেতে পারে একপ্রকার পি এইচ ডি করেছেন।Memento যেখানে একটা experimental thriller, সেখানে Insomnia আর Prestige-এ good আর evil-কে কার্যত সমান চোখে দেখা হয়েছে এবং মানুষের অন্তর্নিহিত ভিন্নধর্মী দিককে তুলে ধরা হয়েছে।এবার আসুন এক এক করে আলোচনা করি প্রত্যেকটা ছবি

Memento (2000)-এই ছবিটাকে পছন্দ করার প্রথম এবং প্রধান কারণটি হলো এর চিত্রনাট্য। সিনেমা শুরু হয় সেই দৃশ্যটি দিয়ে যেটি এর শেষ দৃশ্য আর শেষ দৃশ্যে গিয়ে আমরা সিনেমাটির প্রথম দৃশ্যটি দেখতে পাই, যেটা গতানুগতিক চিত্রনাট্য লেখার ধারাকে পুরোপুরি ভেঙে দিয়েছিলো এবং শুধু তাই নয়, চিত্রনাট্যটি যখন শেষের দিক থেকে প্রথমের দিকে যেতে থাকে, তখন প্রত্যেকটি দৃশ্যের পর নোলান নিপুণতার সহিত বেশ কিছু সাদাকালো দৃশ্য জুড়ে দিয়েছেন যার মাধ্যমে গল্পের মুখ্য চরিত্রের মানসিক অবস্থা সম্পর্কে আমরা সম্যক ধারণা পাই আর চিত্রনাট্যের জটিলতা সত্ত্বেও আমরা এক মুহূর্তের জন্য সিনেমাটি থেকে নিজেদের বিচ্ছিন্ন অনুভব করিনা।

Insomnia (2002)-এই ছবিটির যে বৈশিষ্ট্যকে আমার সবচেয়ে ভালো লাগে সেটি হলো এর মুখ্য চরিত্রের প্রত্যাবর্তন অজান্তে একটা মারাত্মক ভুল করে ফেলার পর। এই ছবিটি একটি খুব ভালো study হতে পারে মানুষের good আর evil দিকটা সুচারুভাবে তুলে ধরার ক্ষেত্রে এবং একটা ভুলের পর নিজের মনের জোরে নিজের ভুলকে শুধরে আবার ভালোর পথে অবতরণ করার চেষ্টার ক্ষেত্রে। থিম শুনেই বোঝা যাচ্ছে মুভিটি কতটা ডার্ক হতে পারে এবং যতটা না ভাবা যায় মুভিটি তার চেয়েও বেশি ডার্ক এবং দৃশ্যমানতার অভাবে নিজের সাগির্দকেই গুলি করে মেরে ফেলা এবং “Macbeth shall sleep no more” থিওরিকে কেন্দ্র করে একটা evil deed-কে পরিণতি দেওয়ার পর তার প্রভাবে ছবির মুখ্য চরিত্রের অনিদ্রায় ভোগা নোলানের তথাকথিত গতানুগতিকতাকে ভাঙার আরও দুটি নিদর্শন।

The Prestige (2006) আমার যে দিকটি আমার সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে যে থ্রিলার হওয়া সত্ত্বেও এই ছবিটিতে নোলান মানুষের সবকটা আবেগ নিয়ে নিজের মুখ্য চরিত্র দুটির চরিত্রায়ণে খেলা করেছেন। গল্পের গভীরতার সাথে সাথে ছবির চরিত্রগুলির মধ্যে এত পরত রয়েছে, যে গল্পের ট্যুইস্টের সাথে সাথে যখন দর্শক চরিত্রগুলির প্রত্যেকটা দিক আবিষ্কার করতে থাকবে তখন তারা আশ্চর্য হতে থাকবে তার সাথে সাথেই আমরা এগুলিকে পরিস্থিতি অনুযায়ী মানুষের গতিশীল এবং পরিবর্তনশীল স্বাভাবিক প্রবৃত্তি সম্পর্কে নোলানের মন্তব্য বলে ধরতেই পারি এবং এটিই আমার মতে এই সিনেমার ক্ষেত্রে নোলানের চিরাচরিত ও প্রচলিত ছক ভাঙার উদাহরণ।

এছাড়াও এই সিনেমায় নোলানের fantasy world অর্থাৎ fiction এবং নিকোলাস টেসলার চরিত্রটিকে সিনেমায় অন্তর্ভুক্ত করার মাধ্যমে fact এই দুটোর মধ্যে দারুণ যে সংযোগ-সমন্বয় ঘটিয়েছেন সেটিও আমার খুব ভালো লেগেছে।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker