বই Talkবাক্যহোমপেজ স্লাইড ছবি

চেঙ্গিস খান কিংবা সব মানুষের সম্রাট

মুসতাকিম মুবাররাত: আজকে থেকে প্রায় ৮ শত বছর আগে একজন মঙ্গোল প্রায় অর্ধেক পৃথিবী দখল করে ফেলেছিলেন। তিনি আর কেউ নন তিনি হলেন চেঙ্গিস খান।কিন্তু এটি তার আসল নাম না এটি হলো তার উপাধি, যার অর্থ সবচেয়ে মহান শাসক বা সব মানুষের সম্রাট। তার আসল নাম তিমুজিন, চীনা ভাষায় যার অর্থ উৎকৃষ্ট লোহা। তার জন্ম গোবি মরূভূমিতে।

তিমুজিনের জন্মের সময় তার বাবা সেখানে ছিলেন না, তিনি গিয়েছিলেন অন্য এক গোত্রকে আক্রমণ করতে যার প্রধানের নাম ছিলো তিমুজিন। ফিরে এসে তার শত্রুর নাম পুত্রকে দিলেন। তিমুজিনের মা হৌলুন ছিলেন অপূর্ব সুন্দরী। তাই তার বাবা তার মাকে বিয়ের দিন এক উপজাতির কাছ থেকে তুলে নিয়ে আসেন। তীক্ষ্ণবুদ্ধির হৌলুনও পরিস্থিতি বুঝে আর আপত্তি করল না। কিন্তু সেই উপজাতি ১৮ বছর পর ঠিকই তাদের প্রতিশোধ নেই তিমুজিনের স্ত্রী বৌরতাইকে অপহরণ করার মাধ্যমে। যাইহোক পরে অবশ্য তিমুজিন তাকে উদ্ধার করেন।

তিমুজিন সবার চোখে পড়ত তার শারীরিক ক্ষমতা এবং ভালো পরিকল্পনা করার দক্ষতার জন্য। তার শিশু বয়সের উল্লেখযোগ্য একটি ঘটনা হলো সে তার এক সৎ ভাইকে হত্যা করে কারণ সে তার কাছ থেকে মাছ চুরি করেছিল। এসব উপজাতি বালকদের কাছে ক্ষমা চাওয়ার কোনো মূল্য ছিলো না, প্রতিশোধ নেওয়াটাই ছিলো বাধ্যবাধকতা। সাধারণত তিমুজিনের ৪ সন্তান সম্পর্কে জানা যায় – জুখি, ছাতাগাই, ওগোতাই, তুলি। সেজ ছেলে ওগোতাইকেই তিমুজিন তার পরের উত্তরাধিকার নির্বাচন করেন। বড় ছেলে জুখি তার বেঁচে থাকাবস্থায় মারা যান।

তিমুজিন তার জয়যাত্রা শুরু করেন ৫৬ বছর বয়সে। তিনি এতদিন তার রাজত্ব এশিয়াতেই সীমাবদ্ধ রেখছিলেন। কিন্তু খারেসমের শাহ মুহাম্মদ এর চাচা তার ব্যবসায়িক কাফেলার উপর গুপ্তচর বৃত্তির অভিযোগ এনে তাদেরকে হত্যা করেন। ফলে তিমুজিনও তার ঐতিহ্য অনুযায়ী প্রতিশোধ নিতে প্রায় ৫,০০,০০০ সেনা নিয়ে বের হয়ে পড়েন। পরে অবশ্য এই শাহই মঙ্গোলদের একের পর এক আক্রমণের শিকার হয়ে তিনি নিজেই বলছিলেন,” পৃথিবীর কী কোনো জায়গা নেই যেখানে মঙ্গোলদের এই আক্রমণ থেকে আমি নিরাপদ থাকব?”এই শাহই যে নিজেকে দ্বিতীয় আলেকজান্ডার মনে করত তার মৃত্যু হয় এক দ্বীপে।

জীবদ্দশায় তার গায়ে পরিহিত জামাটিও ছিল তার এক দেহরক্ষীর। চেঙ্গিস খানের কবর নিয়ে এখনও অনেক ধোঁয়াশা রয়েছে। তিমুজিন মারা গিয়েছিলেন তার শত্রু সুংদের এলাকাতে। মঙ্গোলরা তাদের কী হারিয়েছে তা শত্রুদের বুঝতে না দেয়ার জন্য গোবি মরৃূভূমিতে পৌঁছানোর আগ পর্যন্ত তার লাশ বহনকারী সৈনিকরা পথে যাদের সাথেই দেখা হয়েছিল তাদেরকেই হত্যা করেছিল।

তথ্য সূত্র: বইয়ের নাম: চেঙ্গিস খান- সব মানুষের সম্রাট। লেখক : হ্যারল্ড ল্যাম্ব অনুবাদক: যায়নুদ্দিন সানী।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker