আন্তর্জাতিক বিশ্লেষণট্রেন্ডিং খবরহোমপেজ স্লাইড ছবি

বার্নি স্যান্ডার্সের অজানা অধ্যায়

যে মানুষটাকে ২০১৬ সালের ডেমোক্রেট প্রেসিডেন্ট প্রাইমারি প্রার্থী হওয়ার আগে দুনিয়ার কেউ চিনতো না। যে দুই একজনে চিনতো তাও সামান্য একজন সিনেটর হিসাবে চিনতো। যেই হিলারি ওবামা গংদের বিরুদ্ধে ২% সাপোর্ট নিয়ে প্রাইমারিতে নামলো, মাত্র দুই সপ্তাহের ভিতরে সারা ডেমোক্র্যাট এস্টাবলিশমেন্টরে কাঁপিয়ে দিলো। সে লোকটাকে এখন সারা দুনিয়ার মানুষ চিনে।

ডেমোক্রেট স্টাবিস্টমেন্টের কাছে লোকটা ধরা খেয়ে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হতে পারেনি ঠিকই, কিন্তু রাতারাতি সারা দুনিয়ার সাধারণ মানুষের কাছে এক আইকনিক ফিগার হয়ে গেলো। রিপাবলিকান হলো তুলনামূলক সাদা এবং ধনীদের পলিটিক্যাল পার্টি। তারা অফিস রান করলে তেলের মাথায় আরো তেল দেয়া হয়। রিপাবলিকানদের ইলেকশনের হারার ভয় এবং সিনেটের হারার ভয়ের চেয়েও বড়ো ভয় ছিলো, যদি বাইডেন জিতে যায় তাহলে বাজেট কমিটির চেয়ারম্যান এই লোকটা হয়ে যেতে পারে। বাইডেন পাস করার পর লোকটাকে লেবার সেক্রেটারি হিসাবে তার ক্যাবিনেটে থাকার অফার দেয়া হয়।

লোকটাও অফার একসেপ্ট করে নেয়। কিন্তু সমস্যা বাঁধে যখন জর্জিয়া দুই সিনেট তারা জিতে সিনেটের দখল নেয়ার পর। কারণ লোকটা লেবার সেক্রেটারি হলে সিনেট থেকে পদত্যাগ করতে হবে। পদত্যাগ করলে তার সিটে আবার স্পেসিয়াল ইলেকশন হবে। সে ইলেকশনে রিপাবলিকান জিতে গেলে সিনেট আবার রিপাবলিকানদের দখলে চলে যাবে। তাই তারা রিস্ক নিতে চায় নি। সেজন্য লোকটার আর বাইডনের ক্যাবিনেটে জায়গা হলো না। ওয়াল স্ট্রীটসহ আমেরিকার সব বিগফিসরা লোকটারে ভয় পায়।

কেন জানেন? কারণ লোকটা সৎ, নীতিবান, রিয়েল ফাইটার এবং সাধারণ মানুষের পক্ষের লোক। লোকটার নাম বার্নি স্যান্ডার্স – আমেরিকা নেক্সট সিনেট বাজেট কমিটির চেয়ারম্যান।

  • মাসুম আহমেদ

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker