বই Talkসাহিত্য

সাদাত হাসান মান্টোর অনুগল্পের ভুবন

সাদাত হাসান মান্টো যতবার পড়ি প্রতিবার নতুন লাগে। যারা তাঁকে জানেন, তারা মানবেন উপমহাদেশের সবচেয়ে জাঁদরেল ছোট গল্পকার ও ‘বিতর্কিত’ শক্তিশালী কথাসাহিত্যিক এই মহাদুঃখী মান্টো। মাত্র তেতাল্লিশ বছরে মারা যান (১৯৫৫) লাহোর, যেখানে তিনি তীব্র অনিচ্ছা সত্ত্বেও দেশ বিভাগের কারনে মাইগ্রেট করতে বাধ্য হন তাঁর জন্মভূমি ভারতের পাঞ্জাব থেকে।

আগ্রহী মান্টো ভক্তরা নিশ্চয়ই আরো বেশী জানেন তাঁর সম্পর্কে। মান্টো তাঁর নিজের এপিটাফ নিজেই লিখে গিয়েছিলেন, কিন্তু তাঁর আত্মীয়বর্গ সেইসব কথার অর্থ অনেকে ধরতে পারবেন না ভেবে তা কবরে খোদাই করেন নি। পাকিস্তানের মাটি বলে কথা। অনর্থ হবার সম্ভাবনাই বেশী। পরিবর্তে তাঁরা মান্টো’র প্রিয় কবি মির্জা গালিবের কবিতা তাঁর কবরের হেডস্টোনে লিখে রাখেন। সেখানে লেখা আছে :

‘Dear God, why does time erase my name off from the tablet of the living? I am, after all, not one of those words that are mistakenly calligraphed twice and, on detection, removed.’ তবে মান্টো নিজে তাঁর কবরের জন্য এপিটাফে লিখেছিলেন:- In the name of God, the Compassionate, the Merciful. Here lies Sadat Hasan Manto and with him lie buried all the secrets and mysteries of the art of short-story writing . . . Under tons of earth, he lies, still wondering who among the two is the greater short-story writer: God or him. (Sadat Hasan Manto, 18 August 1954)

সাদাত হাসান মান্টোর তিনটি অনুগল্প পেশ করলাম। খালিদ হাসানের অনুবাদে সরাসরি ইংরেজীতে তুলে দিলাম।

RITUALISTIC DIFFERENCE

‘ I placed my knife across his windpipe and, slowly, very slowly, I slaughtered him.’ ‘ And why did you do that ?’ ‘ What do you mean why ?’ ‘ Why did you kill him the halal way ?’ ‘ Because I enjoy doing it that way.’ ‘ You idiot, you should have chopped his neck off with one single blow. Like this.’ And the halal killer was dispatched in accordance with the correct ritual.

PATHANISTAN

‘Hey, you there, speak at once, who’re you ?’ ‘ I … I … !’ ‘ You offshoot of the devil, at once . . . are you Indoo or Musalmeen ?’ ‘ Musalmeen.’ ‘ Who is your Prophet ?’ ‘ Mohammad Khan.’ ‘ OK, let him go.’

LOSING PROPOSITION

The two friends finally picked out a girl from the dozen or so they had been shown. She cost forty-two rupees and they brought her to their place. After spending the night with her, one of them asked her, ‘What is your name?’ When she told him, he was taken aback. ‘But we were told you were the other religion.’ ‘They lied,’ she replied. ‘The bastards cheated us!’ he screamed as he ran to his friend, ‘selling us a girl from our own faith. Let’s go and return her!’

  • মিরাজুল ইসলাম

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker