বিনোদনসিনেমা ও টেলিভিশনহোমপেজ স্লাইড ছবি

১০০% বিশুদ্ধ ‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’

হাসান ইসলাম: গল্প, চিত্রনাট্য, সিনেমাটোগ্রাফি, সবার ভালো অভিনয়, রোমান্স, কমেডি, ট্রাজেডি, ফ্যান্টাসি, অনেকগুলো ভালো গান সব মিলিয়ে ঊনপঞ্চাশ বাতাসের আমার রেটিং পঞ্চাশে ঊনপঞ্চাশ। গত কয়েকবছরে হঠাৎ হঠাৎ একটা দুইটা ভালো সিনেমা এসেছে। ভালো রোমান্টিক সিনেমা, ভালো ড্রামা, ভালো থ্রিলার সবকিছুই ছিলো গত কয়েকবছরে। সব ভালো সিনেমাই একটা নির্দিষ্ট বিষয় নিয়ে তৈরি হয়, মাসুদ হাসান উজ্জ্বলের ঊনপঞ্চাশ বাতাসের প্রধান টপিকটাই যেন সিনেমাটাকে খুব মনোযোগ দিয়ে দেখা এবং দেখার পরে সিনেমা নিয়ে ভাবার খুব ভালো একটা দিক।

এমন গভীর একটা বিষয় নিয়ে এত ভেবে চিন্তে সুন্দর ভাবে গুছিয়ে একটা চিত্রনাট্যে আনা খুব একটা সহজ বিষয় না। মাসুদ হাসান উজ্জ্বল এই কঠিন কাজটা খুব ভালোভাবেই করেছে। যে জীবন ফড়িং এর, ফসিল এর কান্না, দ্যা প্রেস এসব নাটকগুলো দেখে থাকলে বুঝবেন যে, মাসুদ হাসান উজ্জ্বলের গল্প বলার ধরণ কেমন৷ চেষ্টা করেছেন এই গল্পের সিনেমা যেন সব শ্রেণীর দর্শকের সিনেমা হয়, তবুও তিনি তার গল্প বলার চিহ্ন রেখে দিয়েছেন। কাব্যিক সব সংলাপ যেন কোন কবিতার বই থেকে কবিতার লাইনের মত লাগছিলো, সস্তা রোমান্সের বাইরে হৃদয় ছোঁয়ার মত ছিলো রোমান্টিক দৃশ্যগুলো, দারুণ সেন্স অফ হিউমারের ব্যবহারে কমেডিগুলোতে হাসাতে বাধ্যগত হতে হয়েছিলো।

প্রথম হাফে সব রকমের সুঘ্রাণ মাখা মশলাপাতি স্ক্রিনে ছড়িয়ে দিয়ে দর্শকদের মনোযোগ নিয়ে দ্বিতীয় হাফে এসে গভীর সব বিষয়গুলো পর্যায়ক্রমে সাজিয়েছে স্ক্রিনে। সিনেমার খুবই ছোট ছোট বিষয়কে এত সুন্দর ভাষায় এবং সুন্দর দৃশ্যে প্রকাশ করেছে যে, তা খুবই চোখে সুন্দর লাগছিলো। প্রথমেই সুন্দর রোমান্স আর কমেডির জন্য সিনেমায় ডুবে যাওয়াতে শেষের দিকের স্লো এন্ডিংটা খুব বেশি বিরক্ত লাগেনি। বরং প্রথম অংশের এত কিছু আয়োজনের জন্য শেষে এসে সিনেমার গভীরতা বুঝতে সহজ হয়েছে। এত সুন্দর একটা মুভিকে আরো সুন্দর করে তুলছিলো মুভির ব্যাকগ্রাউন্ড সাউন্ড এবং মিউজিক। সোমলতার গাওয়া “যেখানে”, বেজ বাবা সুমনের “প্রথম”, শৌরিনের ” এ শহর” গানগুলো খুবই সুন্দর ছিলো।

পার্ফেক্ট জায়গায় গানগুলো ব্যবহার হওয়ার কারণে আরো বেশি ভালো লেগেছে গানগুলো। এতকিছু দেখার পরে আরো দেখতে পারেন সুন্দরী শার্লিনকে এবং শার্লিনের সুন্দর অভিনয়। এত ভালো গল্পের জন্য আসলেই শার্লিনের এই সুন্দর পারফরম্যান্স এর দরকার ছিলো। মঞ্চ থেকে উঠে আসা বার্ষণও ছিলো মোটামুটি। সবমিলিয়ে ঊনপঞ্চাশ বাতাস ছিলো বেশ উপভোগ্য একটি সিনেমা, যা সিনেমাপ্রেমীদের দেখা উচিৎ।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker