বুধবার, ১৭ জানুয়ারি ২০১৮
webmail
Sun, 07 Sep, 2014 02:50:46 PM
নিজস্ব প্রতিবেদক
নতুন বার্তা ডটকম

ঢাকা: ইন্টার্ন চিকিৎসকের হাতে নার্স লাঞ্ছিতের ঘটনায় পুরান ঢাকার মিটফোর্ড হাসপাতালের চিকিৎসাসেবা মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ইন্টার্ন চিকিৎসক ও নার্সদের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে বিপাকে পড়েছেন এই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী। ভর্তি থাকা রোগীরা অনেকে চিকিৎসা না পেয়ে চলে যেতে বাধ্য হচ্ছেন। আর বাইরে থেকে আসা রোগীরাও ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থেকেও চিকিৎসা পাচ্ছেন না।

শনিবার দুপুর থেকে কর্মবিরতি পালন করা নার্সরা বিচারের আশ্বাস পেয়ে রোববার দুপুরে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত কর্মসূচি স্থগিতের কথা জানিয়েছেন। তবে  দুপুর থেকে নতুন করে কর্মবিরতিতে গেছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা। এতে হাসপাতালটির চিকিৎসাব্যবস্থায় নতুন জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়,  শনিবার গাইনি ওয়ার্ডে রফিকুল ইসলাম নামের এক ইন্টার্ন চিকিৎসক বকুল রানী বিশ্বাস নামের জ্যেষ্ঠ নার্সকে লাঞ্ছিত ও মারধর করেন। এ ঘটনার বিচারের দাবিতে গতকাল দুপুর থেকে নার্সরা কর্মবিরতি পালন শুরু করেন।

নার্সদের অভিযোগ, অস্ত্রোপচার টেবিলে রোগী থাকা সত্ত্বেও ইন্টার্ন চিকিত্সক রফিকুল তার আত্মীয়কে সেবা দেয়ার জন্য নার্স বকুলকে নির্দেশ দেন। এতে আপত্তি জানালে ওই ইন্টার্ন চিকিৎসক প্রথমে নার্সকে গালমন্দ করেন, পরে মারধর করেন।

এদিকে, ইন্টার্ন চিকিৎসকদের মুখপাত্র ইফতেখার আমিনের দাবি, নার্সদের অভিযোগ পুরোপুরি ঠিক নয়। ওই চিকিৎসককে আত্মপক্ষ সমর্থন করতে না দিয়ে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তার পরও ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা গতকাল কাজ করেছেন। তবে আজ নার্সরা হাসপাতালের ভাণ্ডারে তালা মেরে দেয়ায় সেবা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। তাই ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা আজ দুপুর ১২টা থেকে কর্মবিরতি শুরু করেছেন।

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাকির হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, নার্সদের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পর ওই ইন্টার্ন চিকিৎসককে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। ঘটনা তদন্তে এক অধ্যাপককে প্রধান করে চার সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। নার্সরা বৃহস্পতিবার পর্যন্ত কর্মসূচি স্থগিত করেছেন।

নতুন বার্তা/বিজে/জবা


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top
    close