শুক্রবার, ১৮ আগস্ট ২০১৭
webmail
Wed, 17 May, 2017 03:19:55 PM
হোটেলে অবৈধ মদ
নিজস্ব প্রতিবেদক
নতুন বার্তা ডটকম
ঢাকা: অবৈধ মদ রাখার ব্যাপারে ব্যাখ্যা দিতে বনানীর আলোচিত হোটেল রেইনট্রি কর্তৃপক্ষকে তলব করেছিল শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। কিন্তু হোটেলটির মালিক শাহ মো. আদনান হারুন অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে হাজির হননি। পরে আইনজীবীর মাধ্যমে আবেদন করে এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা দেয়ার জন্য এক সপ্তাহের সময় পেয়েছেন। 
 
বুধবার বেলা ১১টায় কাকরাইলে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের শাহ মো. আদনান হারুনকে তলব করা হয়। অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে তিনি আইনজীবী জাহাঙ্গীর হোসেনের মাধ্যমে সময় আবেদন করেন। 
 
এক মাসের সময় (১৭ মে থেকে ১৭ জুন) আবেদন করলেও শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর এক সপ্তাহ সময় দেয় বলে জানান শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের পরিচালক শাফিউর রহমান। 
 
শুল্ক গোয়েন্দা সূত্র জানায়, রেইনট্রির মালিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে এক মাসের সময় আবেদন করেন। কিন্তু অসুস্থতার কারণ দেখালেও তার পক্ষে কোনো প্রমাণ দাখিল করেননি। পরে ন্যায়বিচারের স্বার্থে তাকে ২২ মে পর্যন্ত সময় দেয়া হয়। আগামী ২৩ মে শুল্ক গোয়েন্দায় হাজির হয়ে তাকে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। 
 
অন্যদিকে আপন জুয়েলার্সের স্বর্ণ ও ডায়মন্ড সংরক্ষণের ব্যাখ্যা জানতে রাজধানীর কাকরাইলে শুল্ক গোয়েন্দার সদর দফতরে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।
 
রাজধানীর বনানীর রেইনট্রি হোটেলে অভিযান চালিয়ে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর কিছু না পেলেও একদিনের ব্যবধানে সেখান থেকে ১০ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করেছে শুল্ক ও গোয়েন্দা তদন্ত অধিদফতরের (কাস্টমস) কর্মকর্তারা।   
 
আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলের বিরুদ্ধে এ হোটেলেই ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়েরের পর সারা দেশে তোলপাড় শুরু হলে কর্তৃপক্ষ গত শনিবার জানিয়েছিল, সেখানে মদের বারের কোনো লাইসেন্স নেই। 
 
শনিবার দুপুরে রেইনট্রি হোটেলে অভিযান চালায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। তবে হোটেলে কোনো মাদক ও অ্যালকোহল জাতীয় কিছু পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছিলেন হোটেলের কর্মকর্তা ফারজানা আরা রিমি।
 
একদিন পরেই সেখানে ফের অভিযান চালায় শুল্ক ও গোয়েন্দা অধিদফতর। সংস্থার মহাপরিচালক মঈনুল ইসলাম জানান, সেখানে ১০ বোতর মদ পাওয়া গেছে। 
 
নতুন বার্তা/এএইচ

Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top