রোববার, ২০ আগস্ট ২০১৭
webmail
Tue, 01 Aug, 2017 10:17:00 PM
মিরসরাই প্রতিনিধি
নতুন বার্তা ডটক

মিরসরাই:চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে পারভেজ হোসেন (২৩) নামের এক যুবলীগ কর্মীকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে দূর্র্বৃত্তরা। গতকাল মঙ্গলবার (০১আগস্ট) বিকেলে উপজেলার ওসমানপুর ইউনিয়নের মরগাং গ্রামের নিজ বাড়ির সামনে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত পারভেজ ওই গ্রামের রহিম উল্যাহ ড্রাইভারের ছেলে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, গত সোমবার (৩১জুলাই) ধুম ইউনিয়নের আবাসন প্রকল্পে মদ বিক্রেতা দুলালকে মদসহ আটক করে নিহত পারভেজ। এরপর ওই মদ বিক্রেতা দুলালসহ তার সাঙ্গপাঙ্গরা পারভেজের উপর ক্ষিপ্ত হয়। মঙ্গলবার দুপুরে ওই ঘটনার জের ধরে পারভেজের উপর হামলা চালায় দুলাল ও তার সঙ্গীরা। এসময় তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পারভেজকে মারাত্মক আহত করে পালিয়ে যায়। মূমুর্ষ অবস্থায় স্থানীয়রা পারভেজকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় পারভেজ মারা যায়।

নিহত পারভেজের ভাই জানান, সোমবার তার ভাইয়ের সাথে আদর্শ গ্রামের দুলালসহ কয়েকজন ছেলে কথা কাটাকাটি হয়। ওই ঘটনার জের ধরে মঙ্গলবার বিকালে বাড়ি সামনে রানা, বেলাল, আরিফ, আরিফ (২), মাসুক, রনি, নাজমুল, শেখ ফরিদ রাসেল, আরমানসহ ১২-১৪জন সন্ত্রাসী পারভেজকে কুপিয়ে হত্যা করে।

ধূম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান জানান, পারভেজ খারাফ ছেলে। সে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপকর্মের সাথে জড়িত। কিছুদিন পূর্বে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। জামিন পেয়ে এলাকায় এসে কিছু লোককে সে হুমকি দেয়। গত কয়েকদিন আগে কয়েকজনকে মারধর করে। মঙ্গলবার ক্ষিপ্ত হয়ে এলাকার লোকজন গনপিটুনী দিলে পারভেজ মারা যায়।

মিরসরাইয়ের সার্কেল এএসপি মাহবুবুর রহমান হত্যাকান্ডের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পারভেজের লাশ নিয়ে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ ওসমানপুর ইউনিয়নের নিহতের নিজ বাড়িতে যাচ্ছে। তিনি জানান, দোষীদের চিহ্নিত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নতুন বার্তা/এমআর


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top