দৈনিক ভালো খবর

সরকারি হাসপাতালে বুক কিংবা পাঁজরের হাড় না কেটেই হৃদযন্ত্রের অস্ত্রোপচার

জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের চিকিৎসকরা প্রথমবারের মতো বুক কিংবা পাঁজরের হাড় না কেটেই হৃদযন্ত্রের অস্ত্রোপচার করতে সক্ষম হয়েছেন

ডা. আশরাফুল হক সিয়ামের নেতৃত্বে ১০ জন ডাক্তারের একটি টিম এই অপারেশন পরিচালনা করেন। ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্ডিয়াক সার্জন অধ্যাপক ডা. ফারুক আহমেদ ও ডা. প্রশান্ত কুমার চন্দও এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এনআইসিভিডিতে নুপুর (১২) নামের এক কিশোরী রোগীর শরীরে প্রায় ৩ ঘণ্টা সময় ধরে এই অস্ত্রোপচার চালানো হয়।

অস্ত্রোপচার প্রসঙ্গে ডা. সিয়াম বলেন, “ডাক্তারি ভাষায় এই ধরণের অস্ত্রোপচারকে মিনিমাল ইনভেসিভ কার্ডিয়াক সার্জারি বলা হয়ে থাকে। মিনিমাল ইনভেসিভ কার্ডিয়াক সার্জারির ক্ষেত্রে ওপেন হার্ট সার্জারির বিকল্প হিসেবে বুকে একটি ছোট ছিদ্র করে অপারেশন করা হয়। এতে বুকের হাঁড় কাটতে হয় না। চিকিৎসকরা পাঁজরের মাঝখানে ছিদ্র করে কাজ করেন। এতে ব্যথা কম হয় এবং রোগী দ্রুত সেরে ওঠে। ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন দেশে প্রথম এধরনের সার্জারি সম্পন্ন করে। তবে, দেশের কোনও বেসরকারি হাসপাতালে এখনও পর্যন্ত এই পদ্ধতিতে অস্ত্রোপচার করা হয়নি। সরকারি হাসপাতালে এই ধরণের অস্ত্রোপচার এই প্রথম।”

রোগীর বর্তমান শারীরিক অবস্থা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “নুপুরের অবস্থা এখন স্থিতিশীল। দুই-তিনদিন পর্যবেক্ষণের পর আমরা তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেবো।”

উল্লেখ্য, ওপেন হার্ট সার্জারির বিকল্প এই অস্ত্রোপচারে খরচ পড়েছে মাত্র ৫ হাজার টাকা।

 

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker