বাক্যশিক্ষাঙ্গন

নতুন নিয়মে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা

মঞ্জুর দেওয়ান: উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলের রেশ এখনো কাটেনি। কান পাতলেই শোনা যায় শিক্ষার্থীদের বিজয় উল্লাস। ঢাক-ঢোল পিটিয়ে ফলাফল উৎযাপন। আনন্দের রেণু অমলিন থাকতেই নতুন করে যুদ্ধে নামতে হচ্ছে উচ্চ মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ হওয়া শিক্ষার্থীদের।

আগামী ৫ আগষ্ট থেকে ভর্তির আবেদন শুরু হচ্ছে প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ৫ আগষ্ট বিকাল চারটা থেকে শুরু হয়ে ২৭ আগষ্ট রাত ১২ টা পর্যন্ত চলবে এই আবেদন। ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের নিয়ম আগের মতো থাকলেও নতুন নিয়মে ভর্তি পরীক্ষা নেয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। চলুন জেনে নেয়া যাক ২০১৯-২০ স্নাতক শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার নতুন নিয়ম সম্পর্কে।

বিগত বছরগুলোতে শুধুমাত্র নৈর্ব্যক্তিকের মাধ্যমে মেধা যাচাই করা হতো। কিন্তু এবারই প্রথমবারের মতো লিখিত পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দেড় ঘণ্টার পরীক্ষায় নৈর্ব্যক্তিক অংশের জন্য বরাদ্দ থাকবে ৫০ মিনিট। লিখিত পরীক্ষার ৩০ টি প্রশ্নের জন্য ৪০ মিনিট সময় পাবেন আবেদনকারীরা। প্রতিটি নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নের মান ১ দশমিক ২৫। অন্যদিকে লিখিত প্রশ্নের মান হবে ১ দশমিক ৫০। নৈর্ব্যক্তিক অংশে ৩০ ও লিখিত পরীক্ষায় ১২ নম্বরের কম পেলে ছিটকে যাবেন ভর্তি পরীক্ষার প্রতিযোগিতা থেকে! নৈর্ব্যক্তিক ও লিখিত পরীক্ষায় আলাদাভাবে কৃতকার্য হওয়া জরুরি।

এমসিকিউ পরীক্ষায় ৩০ না পেলে লিখিত পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করা হবেনা। আবার লিখিত পরীক্ষার ৪৫ নম্বরের মধ্যে ১২’র কম পেলে তাকে অকৃতকার্য হিসেবে বিবেচনা করা হবে। লিখিত পরীক্ষায় কেবল বাংলা ও ইংরেজি থেকে প্রশ্ন আসবে। সাধারণ জ্ঞান থেকে প্রশ্ন আসবে কেবল নৈর্ব্যক্তিক অংশে। লিখিত পরীক্ষার জন্য সাধারণ জ্ঞান থেকে কোন প্রশ্ন করা হবেনা। এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল বিবেচনার মানদণ্ড থাকছে আগের নিয়মেই। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক থেকে মোট ৮০ নম্বর যুক্ত হবে। ভর্তি পরীক্ষার ১২০ আর এসএসসি-এইচএসসির জিপিএ থেকে ৮০ মিলিয়ে ২০০ নম্বরের পরীক্ষা হবে এবারের ভর্তি পরীক্ষায়।

‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে শুরু হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা। ব্যবসায় অনুষদভুক্ত ইউনিটের পরীক্ষা ১৩ সেপ্টেম্বর। বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার দিন ধার্য করা হয়েছে ২০ সেপ্টেম্বর। কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিটের পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর। ২৭ সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা। চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ১৪ সেপ্টেম্বর ও অঙ্কন পরীক্ষা হবে ২৮ সেপ্টেম্বর।

পরিবর্তন এসেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায়ও। বহুনির্বাচনী পরীক্ষার পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষা যুক্ত হয়েছে রাবিতে। বিশ্ববিদ্যালয়টির তিনটি ইউনিটে কেবল এ বছর পাস করা আগ্রহীরাই আবেদন করতে পারবেন। দিনে দুই শিফটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়ে ২০,২১,২২ অক্টোবরের মধ্যে বেছে নেয়া হবে ৪ হাজার ১৫১ জনকে!

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker