বিনোদন

স্বস্তির ‘হিচকি’ রানির

মুম্বাই: বলিউডে কামব্যাক করাটা চারটি খানি কথা নয়৷ সেই পুরনো জনপ্রিয়তা, নতুন প্রজন্মের নজড় কাড়া,দর্শকের মন আগের মত আবারও জিতে নেওয়া কম দায়িত্ব তো থাকে না তারকার ঘাড়ে৷ হাতে গোনা কিছু অভিনেতা-অভিনেত্রী রয়েছেন যাঁরা বলিউডে প্রত্যাবর্তন মুগ্ধ করে দিয়েছেন সিনেপ্রেমীদের৷ তেমনই একজন নায়িকা হলেন রানি৷ ‘হিচকি’ ছবিতে কামব্যাক করে ফের নিজের জাদুতে মোহিত করলেন সিনেমোদীদের৷

ছবিতে রানি মানেই টানটান চিত্রনাট্য৷ যেমন অভিনয় দক্ষতা তেমনই স্ক্রীন প্রেজেন্স৷ যেকোন বিষয়ে টেক্কা দিতে পারেন নবাগতদেরও৷ প্রিয় অভিনেত্রী হলে প্রত্যাশাও এক ধাপ বেশি থাকে৷ ‘হিচকি’র ক্ষেত্রেও কম আশাবাদী ছিল না রানির অনুরাগীরা৷ অবশেষে প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে রিলিজ করল ‘হিচকি’৷ বরাবরের মতো রানি মতো রাজ করলেন সকলের মনে৷ হতাশ করলেন না দর্শকদের৷ এক্কেবারে ভিন্ন চিত্রনাট্যে ছবিটি জায়গা করে নিল বলিউডের ওয়ান অফ দ্য বেস্ট ফিল্মের লিস্টে৷

এখানে নয়না মাথুরের চরিত্র অভিনয় করেছেন রানি৷ টুরেট সিন্ড্রোমে আক্রান্ত নয়না৷ স্নায়ুজনিত ব্যাধির জন্য চাকরি পেতেও বেশ স্ট্রাগল করতে হয় তাঁকে৷ অবশেষে একটি স্কুলে ১৪ জন ছাত্র-ছাত্রীকে পডা়নোর সুযোগ পান৷ প্রত্যেকের অর্থনৈতিক অবস্থায় সচনীয়৷ ছবির প্রথমদিকে ডিসঅর্ডারের কারণে স্বাভাবিক ভাবেই ঠাট্টার পাত্রী হয়ে ওঠেন নয়না৷ সিনেমাটিতে নয়না মাথুরের সঙ্গে স্কুলের ছেলে-মেয়েদের সম্পর্ক নিয়েই এগিয়েছে কাহিনি৷ যেখানে রানির অভিনয়ের দক্ষতার যতই বলা যায় ততই কম৷ অন্যান্য ভূমিকায় দেখা গেছে সুপ্রিয়া পিলগাওকার, আসিফ বাসরা অসাধারণ।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker