বিনোদনহোমপেজ স্লাইড ছবি

মেরিল স্ট্রিপ- জন ক্যাজলের অনন্য প্রেম কাহিনী

মিরাজুল ইসলাম: যারা দেখেছেন তারা নিশ্চয় চিনবেন জন ক্যাজাল নামের হলিউডের এই চির দুঃখী, বিষণ্ণ অভিনেতাকে। ‘গডফাদার’ মুভির ১ম ও ২য় পর্বে মাইকেলের ভাই ফ্রেডো’র চরিত্রে অভিনয় করা এই অভিনেতার অভিনয় ও ব্যক্তি জীবন দুটোই ছিল ক্ষণস্থায়ী। মাত্র ৪২ বছর বেঁচেছিলেন।

‘ডিয়ার হান্টার’ নামের ক্ল্যাসিকাল হলিউড মুভিতে অভিনয়ের সময় অস্থি ক্যান্সারে শনাক্ত হন। অসুস্থতার কারনে তাঁর অংশের শ্যুটিংটা আগেভাগে শেষ করা হয়েছিলো। সেই সিনেমা সূত্রে অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপের সাথে ক্যাজালের গভীর প্রেম গড়ে ওঠে। তাঁদের প্রেম মাত্র দুই বছর স্থায়ী হয়। ক্যাজালের অসুস্থতায় ছায়ার মতো পাশে ছিলেন বন্ধু আল পাসিনো ও রবার্ট ডি নিরো।

পালাক্রমে রেডিয়েশন থেরাপি ও ইনস্যুরেন্সের সবকিছু দেখভাল করেছিলেন তারা। ১৯৭৮ সালের ১২ মার্চ স্লোয়ার কেটারিং ক্যান্সার ইনস্টিটিউটে খুব ভোরে মেরিল স্ট্রিপ’কে চিকিৎসক এসে জানালেন জন ক্যাজাল আর নেই। ক্যান্সারের কাছে পরাজিত হয়েছেন তিনি। মেরিল মানতে পারেন নি এই শোক।

 

সংবাদ মাধ্যমে ছাপা হয়েছিলো, মেরিল চিৎকার করে কাঁদতে কাঁদতে সদ্য মৃত ক্যাজালের বুকে মাথা রেখে শিশুর মতো বিলাপ করেছিলেন। ঠিক সেই সময় হঠাৎ ক্যাজালের জ্ঞান ফিরে এলো ক্ষণিকের জন্য। মেরিলের কানের কাছে ফিসফিস করে ক্যাজাল শেষবারের মতো বলেছিলেন, ‘ইটস অল রাইট, মেরিল, ইটস অল রাইট।’

এরপর আবার হারিয়ে গেলেন চিরদিনের ঘুমে। হয়তো আগামীতে হলিউডে মেরিল স্ট্রিপ-জন ক্যাজালের প্রেমকে ঘিরে ক্ল্যাসিক মুভি বানাবে। না হলেও ক্ষতি হবে না কারো। মেরিল-ক্যাজাল জুটি ঠিকই অমর হয়ে থাকবে।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker