বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৭
webmail
Wed, 26 Apr, 2017 06:54:39 PM
নতুন বার্তা ডেস্ক

ঢাকা: হুম, খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন এখন৷ অন্তত খাওয়ার পানি বয়ে নেয়ার জন্য প্লাস্টিক বোতল ব্যবহারের প্রয়োজন বোধহয় খুব বেশ দিন আর থাকবে না৷ বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছে এক ভিন্ন পন্থা, যা দেখতে ‘স্মার্ট’ আর পান করতেও মজা৷

বলছি, খাওয়ার যোগ্য ছোট ছোট পানির বলের কথা৷ দেখতে অনেকটা পিংপং বলের মতো এসব পানিবাহী বোতল কার্যত পুরোটাই খাওয়া যায়৷ আর এতে খাটুনিও কম৷

লন্ডনেরস্কিপিং রকস ল্যাব ইতোমধ্যে এই পানির বল নিয়ে বিস্তর গবেষণা করেছে৷ পরীক্ষামূলকভাবে অ্যাথলিটদের খেতে দেয়া হয়েছে তা৷ সাধারণ মানুষকে পান করার সুযোগ দেয়া হয়েছে৷ শুরুতে অনেকেই মুখে দেয়ার আগে খানিকটা বিস্ময় নিয়ে তাকালেও পান করার পর হাসিই দিয়েছেন৷ বিশেষ ধরনের সমুদ্র শৈবাল ব্যবহার করে তৈরি এসব বোতলে দীর্ঘ সময় পানি রাখা যায়৷ আর কেউ চাইলে উপরে থাকা পাতলা আবরণটা সরিয়ে যে কোনো সময় তা পান করতে পারেন৷

এমন পানি বলের উদ্ভাবকরা আশাবাদী যে, শীঘ্রই এগুলো বাজারে ছাড়া সম্ভব হবে৷ আর তখন প্লাস্টিকের পানির বোতলের চাহিদা কমতে শুরু করবে, যা পরিবেশের জন্য হবে বিশেষ উপকারের৷ কেননা, একেকটি প্লাস্টিক বোতল শতশত বছর ধরে আবর্জনা আকারে থেকে যায়, প্রকৃতির সঙ্গে মিশে যেতে অনেক সময় নেয়৷ অন্যদিকে, জীবাণুবিয়োজ্য পদার্থ দিয়ে তৈরি পানি বল পরিবেশের কোনো ক্ষতিই করে না, এগুলো রিসাইক্লিংয়েরও কোনো ব্যাপার নেই৷

সুতরাং, প্লাস্টিক বোতলকে বিদায় জানানোর প্রস্তুতি নিয়ে নিন৷ আর অপেক্ষায় থাকুন পানি বলের!

এক বোতল পানি কেনার জন্য আপনি যে দাম দেন তার বেশিরভাগই কিন্তু চলে যায় প্লাস্টিকের জন্য৷ এছাড়া রয়েছে বোতলের গায়ে লেবেল লাগানো, পরিবহণ, সংরক্ষণ ও বোতল নষ্ট করে ফেলার খরচ৷ –ডিডব্লিউ

নতুন বার্তা/টিটি
 


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top