সোমবার, ১৮ জুন ২০১৮
ঢাকা:  স্তন-ক্যান্সারের একেবারে শেষ-ধাপ, স্টেজ-৪ এ ছিলেন জুডি পার্কিনসন। ডাক্তাররা তাঁকে শেষ কথা শুনিয়ে দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, তাঁর আয়ু হতে পারে বড় জোড় আর মাস তিনেক। কিন্তু সেই জুডি বেঁচে আছেন আজ দুই বছর। আর এরচেয়েও বড় অবাক করা ব্যাপার হলো, তাঁর শরীরে ক্যান্সারের আর কোনো লক্ষণই নেই। কী ভাবে হলো এই
ঢাকা: ক্যান্সারের আধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থায় কেমোথেরাপি একটি বহুল ব্যবহৃত চিকিৎসা পদ্ধতি। কেমোথেরাপি এমন এক ধরণের চিকিৎসা যার মাধ্যমে ক্যান্সারের সেলগুলোকে ধ্বংস করা হয় এবং সেগুলোর বিস্তার থামানো হয়। তবে সব ধরনের ক্যান্সারের জন্য এক ধরণের চিকিৎসা প্রযোজ্য নয়। বিভিন্ন ধরণের ক্যান্সার সেল বিভিন্ন ধরণের ঔষধে সাড়া দেয়। কেমোথেরাপির সর্বোচ্চ ভালো ফলাফলের
ঢাকা: একজন মা যার একটা ৫ বছর বয়সী মেয়ে এবং দুই বছর বয়সী ছেলে রয়েছে তারা একই সাথে মায়ের দুধ পান করছে। এমা শার্ডলো হাডসন বলেন এটা তাঁর সন্তানদের শরীরের জন্য ভাল। কারণ তারা খুব কম অসুস্থ হয়। ২৭ বছর বয়সী এই মা বলেন, তিনি বিষয়টা ভালো-ভাবে নিচ্ছেন কারণ বুকের
ঢাকা: এখন গরমের সময়। এসময় সাপ শীতনিদ্রা ত্যাগ করে বেরিয়ে আসে। তাছাড়া নিয়মিত বৃষ্টি বাদলের কারণে বিভিন্ন জায়গায় পানি জমে বিশেষ করে ইঁদুরের গর্ত- যেখারে সাপ আশ্রয় নেয়। আবার বর্ষা মৌসুমে নিম্ন এলাকা টানিতে তলিয়ে থাকে। স্থলের সাপগুলো তাই নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য স্থানান্তরিত হয়। লোকালয়ে চলে আসে, অপেক্ষাকৃত উঁচু জায়গা,
ঢাকা:  সিঙ্গপুরের অন্যতম আধুনিক হেল্থকেয়ার সেবা প্রদানকারী হাসপাতাল ফেরার পার্ক, রোগীদের নিরাপত্তা ও উন্নতমানের ফলাফল নিশ্চিত করতে টিইএসএ হেল্থ টেক ডে-তে দুটি প্রজেক্ট প্রদর্শন করেছে। প্রজেক্ট দুটি হচ্ছে ‘স্মার্ট নার্সিং’ এবং ‘ডার্কট্রেস’। এই প্রজেক্টগুলোর মধ্যে রয়েছে হেল্থ এআই, স্মার্ট সিস্টেম, টেলিহেল্থ এন্ড হেল্থ মার্কেটপ্লেস, হসপিটাল এন্ড ক্লিনিক সিস্টেম এবং ন্যাশনাল
ট্যাক্সি বা বাসে উঠলে এ তো ভারী জ্বালা! কাজের সূত্রে বাড়ির বাইরে বেরোতেই হবে। বাসে-ট্রামেও চড়তে হবে। কিন্তু দ্রুতগতিতে গাড়ি চলতে শুরু করলেই যদি মাথার যন্ত্রণা শুরু হয়ে যায় বা গা গোলাতে থাকে, তাহলে তো গাড়িতে ওঠাই মুশকিল। তাই লজ্জা এড়াতে বাস-ট্যাক্সিতে ওঠা বন্ধ করে দিয়েছেন? কিন্তু কীভাবে কাটাবেন এই
কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অপরিকল্পিত ডায়েট, অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাসের কারণে হয়ে থাকে। তবে কিছু ক্ষেত্রে এই সমস্যা বংশানুক্রমিক। সময়মতো কোষ্ঠকাঠিন্যে যথাযথ ব্যবস্থা বা সতর্কতা অবলম্বন না-করলে তা কোলন ক্যান্সারের সম্ভাবনা বহুগুণ বাড়িয়ে দেয়। কোষ্ঠকাঠিন্যের ফলে প্রতিদিন শরীর থেকে মল স্বাভাবিক ভাবে নির্গত হতে পারে না। পেট ভরে কিছু খাওয়ার ক্ষেত্রেও সব
যে নারীরা নিয়মিত ফাস্টফুড খান কিন্তু ফলমূল কম খান, তারা গর্ভধারণ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়তে পারেন বলে নতুন একটি গবেষণায় বলা হয়েছে। ৫৫৯৮জন নারীর ওপর একটি গবেষণার পর দেখা গেছে, যারা ফাস্টফুড খান না, তাদের তুলনায় যারা সপ্তাহে চার বা আরো বেশিবার ফাস্টফুড খান, তাদের গর্ভধারণে অন্তত একমাস সময় বেশি লাগে। তাদের
আপনার ব্লাড গ্রুপ কি ‘ও’? তবে একটু সাবধানে থাকুন। নয়া পরীক্ষা বলছে, কোনও দুর্ঘটনায় ও ব্লাড গ্রুপের মানুষজনের মৃত্যু বা পঙ্গু হওয়ার সম্ভবনা সবচেয়ে বেশি। সমীক্ষাটি চালিয়েছে জাপানের একটি সংস্থা। সমীক্ষা চালানো হয়েছে জাপানের ৯০০টি বিপদজনক রোগীর উপরে। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ৯০০ জন বিপদজনক রোগীর মধ্যে ২৮ শতাংশ মানুষ মৃত্যু
চুলের স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে খুশকি একটা বিরাট সমস্যা। অত্যধিক চুল ঝরা, রুক্ষ চুল, বিভিন্ন ধরনের স্ক্যাল্প ইনফেকশন জন্য বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দায়ি এই খুশকি। তাই খুশকির সমস্যার সমাধানে সময় মতো তৎপর না হলে মাথা ভরা চুল ঝরে গিয়ে অল্পদিনের মধ্যেই ‘গড়ের মাঠ’ হয়ে যেতে পারে। আগে শুধুমাত্র শীতকালের শুষ্ক আবহাওয়াতেই খুশকির সমস্যা দেখা
লিভার ট্রান্সপ্লান্টেশন বিষয়টি পুরোপুরিভাবেই শল্যচিকিৎসা নির্ভর৷ যেখানে ক্ষতিগ্রস্থ লিভারকে বদলে ফেলা হয় আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে৷ একেবারে শেষ পর্যায়ে গিয়ে লিভার বদলানোর প্রয়োজন হয়৷ যখন কোনভাবেই চিকিৎসা করা সম্ভব নয়৷ খুব ভাল চিকিৎসা পদ্ধতির প্রয়োজন লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্টের জন্য৷ এছাড়াও কয়েকটি বিষয় একটু লক্ষ রাখা জরুরি৷ ১) লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্টে সাধারণত দুই ধরনের
ঠান্ডা লাগা বাচ্চাদের খুব সাধারণ একটা বিষয়। আবহাওয়ার পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে ঠান্ডা লাগতেই পারে। আর একবার ঠান্ডা লাগা মানেই নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া। বাচ্চাদের এই সমস্যা খুবই দেখা যায়। বাচ্চারা যেহেতু মুখে বলতে পারে না তাই তাদের আরও বেশি কষ্ট হয়। সবথেকে বড় বিষয় নাক খোলার জন্য বড়দের মতো বাচ্চাদের
হাঁটু বা গাঁটের ব্যথায় কষ্ট পাচ্ছেন? চলাফেরার স্বাভাবিক ছন্দ, গতি কী কমে আশছে ধীরে ধীরে? এই সমস্যা মূলত অনিয়মিত ডায়েট, ক্যালসিয়ামের অভাব আর শরীরচর্চার ঘাটতির ফলে দিনে দিনে বাড়তে থাকে। বর্তমানে চূড়ান্ত ব্যস্ততার যুগে যে কোনও বয়সেই এই সমস্যা শরীরে বাসা বাঁধতে পারে। আসুন এ বার জেনে নেওয়া যাক ঘরোয়া
পানির তৃষ্ণা র তো আর সময়-অসময় নেই! কিন্তু, বাড়ির বাইরে পানি খেতে গেলে সাবধানতা বজায় রাখতেই হয়। তাই বাধ্য হয়ে ‘মিনারেল ওয়াটার’ কিনে তৃষ্ণা  মেটাতে হয়। এই মিনারেল ওয়াটার বাড়িতেও তৈরি করা যায় বেশ সহজেই। ‘লাইফেলথ.কম’ নামে এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে সেই পদ্ধতি— ১। কী কী লাগবে— ১ লিটার জল, এক চিমটে
অ্যালঝাইমারের প্রাক লক্ষণ হতে পারে ভয়৷ সম্প্রতি একটি আমেরিকান জার্নালে এই খবর প্রকাশিত হয়েছে৷ এই রোগটি সম্পূর্ণ স্নায়বিক৷ ভয়ও স্নায়ুঘটিত অনুভূতি৷ দুটোর মধ্যে যথেষ্ট সম্পর্ক রয়েছে বলে ওই জার্নালে দাবি করা হয়েছে৷ এই নিয়ে গবেষকরা একটি সমীক্ষা চালায়৷ ৬২ থেকে ৯০ বছর বয়স্ক সম্পূর্ণ সুস্থ পুরুষ ও মহিলাদের নিয়ে হয় সমীক্ষাটি৷
যুক্তরাজ্যে অত্যন্ত সুপরিচিত একজন চিকিৎসক ড. ডন হারপার। মানুষের স্বাস্থ্যের উপর টেলিভিশনে অনুষ্ঠান করে তিনি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। তার চিকিৎসা সংক্রান্ত জ্ঞান দর্শকদের কাছে প্রশংসিত হয়েছে। সম্প্রতি তিনি একটি বই লিখেছেন। বাইটির নাম ১০১ বছর সুস্থ হয়ে বাঁচুন। নীরোগ দীর্ঘ আয়ুর জন্যে এখানে তার দেওয়া সাতটি টিপস তুলে ধরা হলো: ১. ঠিক
শরীরে অতিরিক্ত মেদ জমুক আর নাই জমুক, এখন প্রত্যেকেই নিজের শরীরের দিকে নজর দেওয়ার জন্য রোজ শরীরচর্চা করেই থাকেন। আর শরীরকে সুস্থ রাখতে শরীরচর্চা করা খুবই জরুরি। কিন্তু অনেকেই সঠিক নিয়ম কানুন না জেনেই শরীরচর্চা করে থাকেন। আর এর ফলে ভুগতে হয় নানারকম অসুখে। আপনি হয়তো মনে করছেন, শরীরচর্চা করার
কনট্রিসেপটিভ পিলের কি কোনও সাইড এফেক্ট আছে? অনেক মহিলারই এটি অবশ্যাম্ভবী প্রশ্ন৷ অনেকে এনিয়ে চিকিৎসকদের জিজ্ঞাসা করেন৷ কেউ আবার জিজ্ঞাসা করতে ইতস্তত করেন৷ গর্ভধারণ আটকাতে এই পিল ব্যবহার করা হয়৷ সাধারণত সুস্থ শরীরকে ব্যস্ত করতে চায় না কেউই৷ তাই সেক্স করার আগে কন্ডোম ব্যবহার করা প্রয়োজন৷ কিন্তু অনেকসময় হঠাৎই অনেক
আসছি আসছি করে গরমকালটা এসেই গেল। একটু বেলা বাড়লেই রোদের তাপে আর বাইরে বেরনো যাচ্ছে না। গরমের তাপ এতটাই। এই সময়ে বেশিরভাগ মানুষই শরীরকে ঠাণ্ডা রাখার জন্য কোল্ড ড্রিঙ্কস বা আইসক্রিম খেয়ে থাকেন। কিন্তু নিউট্রিশনিস্টরা জানাচ্ছেন, গরমে শরীর সুস্থ রাখতে কোল্ড ড্রিঙ্কস বা আইসক্রিম নয়, বরং এমন কিছু পানীয় খেতে
ভারতে গলার ক্যানসারের মতো রোগ বহু মানুষের মধ্যে দেখা যায়। এই সব জটিল রোগে বিশেষ করে আক্রান্ত হন পুরুষরা। গলার ক্যানসারের ফলে রয়েছে প্রাণ সংশয়েও। তবে, প্রথম পর্যায়ে ক্যানসার ধরা পড়লে, চিকিত্সা তাড়াতাড়ি শুরু হলে সেরে ওঠার সম্ভাবনাও থাকে। এর জন্য জানা থাকা দরকার গলার ক্যানসারের লক্ষণগুলি। জেনে নিন- ১) যদি
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
হেলথ টিপস
ব্যর্থ প্রেমিক ছাড়া প্রেম ব্যাপারটা দোষে গুণে সবার কাছেই বেশ আহ্লাদের। প্রেম নিয়ে আহ্লাদীপনার দাপটটা ...
প্রকৃতি আমাদের জন্যে কত রকম খাবারেরই না যোগান মজুত রেখেছে! তারই মধ্যে এমন অনেক খাবার ...
নিয়ম করে প্রতিমাসে বিউটি পার্লারে যেতে ইচ্ছে করে না? কিন্তু একেবারে ঝকঝকে স্কিন পেতেও তো ...


শিরোনাম
Top