health | natunbarta.com | Top Online Newspaper in Bangladesh
শনিবার, ২১ জানুয়ারি ২০১৭
webmail
রাতে ভালো ঘুম দিনভর রাখে তরতাজা। শরীর ও মনের জন্য ভালো ঘুম খুবই জরুরি। কিন্তু অনেকেরই রাতে ঠিকমতো ঘুম হয় না। বিনিদ্র রাতের কষ্টের জের সারদিন চলতে থাকে। মাথা ধরা, চোখ ভারী, ক্লান্তি, বারবার হাই তোলা, মেজাজ বিগড়ে যাওয়া - এরকম নানা সমস্যার প্রভাব পড়তে শুরু করে। শুধু কী তাই,
চিকিৎসকরা ডিম খাওয়ার বিষয়ে নানা সময়েই একাধিক বাধা নিষেধ আরোপ করে থাকেন। বলা হয়, যাদের একটু বয়স বেশি, উচ্চ রক্তচাপ, উচ্চ কোলেস্টেরল অথবা হৃদরোগের ঝুঁকি আছে তাদের ডিম কম খাওয়া উচিত। আর ডিমের লাল অংশ তো একেবারেই মানা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডিম, চিংড়িমাছ এবং অন্যান্য এনিমেল ফুডে রক্তের কোলেস্টেরলের ওপর সামান্যই বা
ওজন বেড়েই চলেছে। কমার কোনও লক্ষণ নেই। চিন্তায় কপালে ভাঁজ পড়ছে। ভারতের ক্ষেত্রে সমস্যাটা আরও বেশি। কারণ, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাত্রার কারণে মোটা মানুষের সংখ্যা দেশে বাড়ছে। অথচ ভারতেই রয়েছে এমন ফল, যা খেলে ওজন কমতে বাধ্য। নারিকেলের কথাই বলছি। ‘হোল ফুডস মার্কেট’ জানাচ্ছে ২০১৭ সাল হতে চলেছে নারিকেলের। এর জল থেকে
সোনার আংটি বাঁকা হোক আর যাই হোক, সমস্যা সকলেরই হয়। তেমনই অনেকেই মনে করেন, পুরুষদের ত্বকে কোনও সমস্যা হলেও তাঁরা খুব একটা গুরুত্ব দেন না। কিন্তু এই কথা সম্পূর্ণ ভুল। ত্বকে সমস্যা সকলেরই হয়। কষ্ট সকলেই পান। আর যাঁরা কষ্ট সহ্য করে থাকেন, তাঁদের পরে ভুগতে হয়। তাঁদের অনেকসময় স্কিন
প্যারিস: ইবোলায় আক্রান্তদের চিকিৎসা করে ভাইরাসমুক্ত ঘোষণার এক বছর পরও তাদের দুর্বলতা কাটছে না। গিনিতে এই ভাইরাসের ওপর একটি পরীক্ষা চলছে। এতে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত রোগী সুস্থ হওয়ার পরও ফলোআপের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র। গবেষকরা রোববার জানান, ইবোলা ভাইরাস থেকে সুস্থ হওয়া রোগীদের মধ্যে গড়ে তিন চতুর্থাংশের ইবোলা
টরোন্টো:  অন্তঃসত্তা হওয়ার আগে মায়ের রক্তোচ্চাপই নির্ধারণ করে দেবে শিশুর লিঙ্গ। টরোন্টর মাউন্ট সিয়ানি হাসপাতালের গবেষকরা এমনই মনে করছেন। রক্তচ্চাপের মাত্রার উপরই নির্ভর করবে পুত্র সন্তান হবে নাকি কবন্যা সন্তান হবে। অন্তঃসত্তা হওয়ার আগে মায়ের রক্তচ্চাপ মাত্রা যদি কম হয় তাহলে, কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ার প্রবণতা অনেক বেড়ে যায়। উল্টোদিকে যদি
টানা আট ঘণ্টা অফিসে বসে কাজ করেই চলেছেন । মাঝে হয়তো ১৫ মিনিটের ছাড় পেলেন বিশ্রামের জন্য । প্রতিদিনের এই অফিস রুটিন যাঁদের জীবনে অধিকাংশ সময় দেখা যায়, তাঁরা কোমরে ব্যথা, শিরদাঁড়ায় ব্যথা নিয়ে ভুগছেন । ২০ থেকে ৬০ বছর বয়সি সকলেই আজকাল অল্পবিস্তর হাড়ের সমস্যার জর্জরিত । বিশেষজ্ঞের পরামর্শ
ঢাকা: নিঃশব্দ ঘাতক থাইরয়েড। হরমোন নিঃসরণের সামান্য তারতম্যে বন্ধ্যাত্বের শিকার হতে পারেন একজন নারী। এখানেই শেষ নয়। এই এক রোগ থেকেই হাজারো রোগ বাসা বাঁধতে পারে আপনার শরীর। অবসন্নতা? দুর্বলতা? ঘুম ঘুম ভাব? ওজন বাড়ছে? চুল পড়ে যাচ্ছে? কোষ্ঠকাঠিন্য? খুব চেনা এই সব লক্ষণেই লুকিয়ে আছে রোগের পূর্বাভাস। আসলে এসবই কিন্তু থাইরয়েডের লক্ষ্ণণ। এখনই সতর্ক না হলে
কোনো না কোনো বয়সে ঘাড়, পিঠ বা কোমরের ব্যথায় ভুগেননি এমন মানুষের সংখ্যা একেবারেই নগণ্য। বিভিন্ন বয়সী অসংখ্য মানুষ মেরুদন্ডের এসব অংশের ব্যথায় কষ্ট পাচ্ছেন। বিশেষ করে শীতকালে এসব ব্যথার যন্ত্রণা বেড়ে যায়। কোনো রকম আঘাত পাওয়া ছাড়াই এসব অঙ্গে ব্যথা দেখা দিতে পারে। প্রাথমিকভাবে মেরুদন্ডে হালকা ব্যথা অনুভূত হলেও পরবর্তীতে
ঢাকা: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‍“চিকিৎসা শিক্ষার মান নিয়ে সরকার কোনো আপোষ করবে না। যে কলেজে মানসম্মত শিক্ষক নাই, লাইব্রেরি ও ল্যাবরেটরিসহ প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নাই, শিক্ষার্থীর সংখ্যার অনুপাতে হাসপাতালের শয্যা নাই, সেই কলেজ চালানোর কোনো দরকার নাই।”   তিনি বলেন, “সরকার এ বছর চারটি কলেজের ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত
লন্ডন: খুব ক্লান্ত লাগছে? ভর করেছে রাজ্যের দুশ্চিন্তা। কী করবেন? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গান শুনতে। কিন্তু কোন গান? ব্রিটেনের ব্যান্ড মার্কনি ইউনিয়নের করা একটা সুর আছে। নাম ‘ওয়েটলেস’। এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, শতকরা ৬৫ শতাংশ মানুষ জানিয়েছে, ‘ওয়েটলেস’ শোনার পর তাদের দুশ্চিন্তা কমে গেছে। ঘুম নেমে এসেছে চোখে! ইউটিউবে গিয়ে এ নামে খুঁজলেই
শীতে হাত পা ঘামার একটা সমস্যা অনেকেরই হয়। এটা কিন্তু রোগ নয়। আনেকটাই স্বাভাবিক বিষয়। ঘামার মাত্রা যদি অতিরিক্ত পরিমাণে হয় তাহলে অনেক সময় একটু সমস্যায় পড়তে হয়। একে বলা হয় হাইপার হাইড্রোসিস। এর ফলে হাতে পায়ে গন্ধ হয়। জুতো খুললেই গন্ধে টিকতে পারে না পাশের লোক। তবে, হাত ও পা
মানুষের দেহে নতুন একটি অঙ্গ আবিস্কার করলেন এই আইরিশ বিজ্ঞানী। যেটির অস্তিত্ব এতদিন জানাই ছিল না। পরিপাকতন্ত্রে শত শত বছর ধরে বিরাজমান এই অঙ্গটির নাম মেসেনটারি।   অন্ত্র থেকে উদরের সঙ্গে সংযুক্ত অঙ্গ এই মেসেনটারি। এতদিন এটিকে ভাবা হত পরিপাকতন্ত্রের আলাদা ক্ষুদ্রাংশ হিসেবে। কিন্তু নতুন গবেষণায় দেখা গিয়েছে, এটি একটি গোটা অঙ্গ।
ঘনঘন মূত্র ও তলপেটে অসহ্য যন্ত্রণা হলে মূত্রথলি বা ইউরিনারি ব্লাডারে সিসটাইটাস হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয় । সিসটাইটিস পুরুষদেরও হতে পারে । সিসটাইটিস থেকে বাঁচতে কী কী করা উচিত জেনে নিন চট করে : বেকিং সোডা : মূত্রক্রিয়ার জ্বালাভাব কাটাতে বেকিং সোডা দারুণভাবে কার্যকরী । শরীরে অ্যাসিডের পরিমাণ কমিয়ে দেয় বেকিং
যা খাচ্ছেন তাতেই অম্বল? নিজেই করছেন ডাক্তারি? কথায় কথায় খাচ্ছেন অ্যান্টাসিড? নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনছেন। দফারফা হচ্ছে কিডনির। ওত পেতে রয়েছে আরও বড় অসুখ। ফাস্ট লাইফ। দিনভর ব্যস্ততা। কাজের গুঁতোয় লাইফস্টাইলে বদল। বেশিরভাগ সময় খালি পেট। তার ওপর ফাস্টফুডে প্রেম। ব্যস। শরীরের কলকব্জার দফারফা। যা খাচ্ছেন, তাতেই অম্বল। জল খেলেও
ওয়াশিংটন: ঠিক দিয়াশলাই কাঠির মতো দেখতে একটা যন্ত্র যা থাকবে মানুষের ত্বকের ঠিক নিচে আর এইচআইভি সংক্রমণ যাতে না হয় সেজন্য ক্রমাগত ওষুধ নির্গত করতে থাকবে। হ্যাঁ, এমনই একটা যন্ত্র এবং সামগ্রিকভাবে এইচআইভি রোগের প্রতিকার সাধনের জন্য একটা প্রকল্পে ১৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করছে বিল ও মেলিন্ডা গেটসের 'গেটস
পুরুষত্বহীনতা বা পুরুষের শারীরিক অক্ষমতা বা দুর্বলতা সমাজে প্রকট আকার ধারণ করেছে। এতে উঠতি বয়সের যুবকরা হতাশ। অভিভাবকরা বেশ দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। পুরুষত্বহীনতা: এটি পুরুষের যৌনকার্যে অক্ষমতাকে বুঝায়। শ্রেণীবিভাগ: পুরুষত্বহীনতাকে তিন ভাগে ভাগ করা যায়- ১.ইরেকশন ফেইলিউর: পুরুষ লিঙ্গের উত্থানে ব্যর্থতা। ২.পেনিট্রেশন ফেইলিউর: লিঙ্গের যোনিদ্বার ছেদনে ব্যর্থতা। ৩.প্রি-ম্যাচুর ইজাকুলেশন: সহবাসে দ্রুত বীর্য-স্খলন তথা স্থায়ীত্বের অভাব। কারণ:
রান্না করতে গিয়ে আমাদের প্রত্যেকেরই হাত পুড়ে যায়। তাই পোড়ার যন্ত্রণা আমাদের কমবেশি সকলেরই আছে। আমরা জানি পুড়ে গেলে কতখানি জ্বলতে হয়। যন্ত্রণা নির্মূলের জন্য বার্নল, বরফ, দাঁত মাজার পেস্টের সাহায্য নিই আমরা। কিন্তু পোড়া ও পোড়ার দাগ চটপট নির্মূল করতে আরও কয়েকটি বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে আমাদের। যেমন - ১.
শীত পড়তে না পড়তেই হেঁচে, কেশে একসা? ভাবছেন ঠান্ডা লেগেছে? ওষুধ গিলছেন সর্দি-কাশির? ভুল করছেন। আপনার ঘরে লুকিয়ে অ্যালার্জির বীজ। এখনই সতর্ক হোন। নাহলে ঘোর বিপদ। শীতের সকাল-বিকেল-সন্ধে-রাত। বাতাসে ধোঁয়াশা। ভোরের কুয়াশা। গায়ে গরমের পোশাক। কিন্তু সকালে কম্বলের নিচ থেকে বেরোতেই উত্পাত শুরু। হেঁচেই চলেছেন তো? একের পর এক। গুনেও শেষ
আপনি কি মাইগ্রেনের ব্যথায় কাবু? প্রধানত মানসিক চাপ, দুর্গন্ধ, হরমোনের ভারসাম্যহীনতা, খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন, ধূমপান প্রভৃতি কারণেই মাইগ্রেনের যন্ত্রণায় ভুগে থাকে মানুষ। জেনে রাখুন, এই এসেনশিয়াল অয়েলগুলির কথা। মাইগ্রেনের যন্ত্রণা থেকে এই অয়েলগুলি আপনাকে গ্যারান্টি রেহাই দেবে। রোজ অয়েল-  রোজ অয়েল স্নায়ুতন্ত্রকে রিল্যাক্স করে। আরাম দেয়। যন্ত্রণা কমায়। পিপারমেন্ট অয়েল- পিপারমেন্ট অয়েলে একধরনের
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
হেলথ টিপস
ব্যর্থ প্রেমিক ছাড়া প্রেম ব্যাপারটা দোষে গুণে সবার কাছেই বেশ আহ্লাদের। প্রেম নিয়ে আহ্লাদীপনার দাপটটা ...
প্রকৃতি আমাদের জন্যে কত রকম খাবারেরই না যোগান মজুত রেখেছে! তারই মধ্যে এমন অনেক খাবার ...
নিয়ম করে প্রতিমাসে বিউটি পার্লারে যেতে ইচ্ছে করে না? কিন্তু একেবারে ঝকঝকে স্কিন পেতেও তো ...


শিরোনাম
Top