শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮
পানির তৃষ্ণা র তো আর সময়-অসময় নেই! কিন্তু, বাড়ির বাইরে পানি খেতে গেলে সাবধানতা বজায় রাখতেই হয়। তাই বাধ্য হয়ে ‘মিনারেল ওয়াটার’ কিনে তৃষ্ণা  মেটাতে হয়। এই মিনারেল ওয়াটার বাড়িতেও তৈরি করা যায় বেশ সহজেই। ‘লাইফেলথ.কম’ নামে এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে সেই পদ্ধতি— ১। কী কী লাগবে— ১ লিটার জল, এক চিমটে
অ্যালঝাইমারের প্রাক লক্ষণ হতে পারে ভয়৷ সম্প্রতি একটি আমেরিকান জার্নালে এই খবর প্রকাশিত হয়েছে৷ এই রোগটি সম্পূর্ণ স্নায়বিক৷ ভয়ও স্নায়ুঘটিত অনুভূতি৷ দুটোর মধ্যে যথেষ্ট সম্পর্ক রয়েছে বলে ওই জার্নালে দাবি করা হয়েছে৷ এই নিয়ে গবেষকরা একটি সমীক্ষা চালায়৷ ৬২ থেকে ৯০ বছর বয়স্ক সম্পূর্ণ সুস্থ পুরুষ ও মহিলাদের নিয়ে হয় সমীক্ষাটি৷
যুক্তরাজ্যে অত্যন্ত সুপরিচিত একজন চিকিৎসক ড. ডন হারপার। মানুষের স্বাস্থ্যের উপর টেলিভিশনে অনুষ্ঠান করে তিনি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। তার চিকিৎসা সংক্রান্ত জ্ঞান দর্শকদের কাছে প্রশংসিত হয়েছে। সম্প্রতি তিনি একটি বই লিখেছেন। বাইটির নাম ১০১ বছর সুস্থ হয়ে বাঁচুন। নীরোগ দীর্ঘ আয়ুর জন্যে এখানে তার দেওয়া সাতটি টিপস তুলে ধরা হলো: ১. ঠিক
শরীরে অতিরিক্ত মেদ জমুক আর নাই জমুক, এখন প্রত্যেকেই নিজের শরীরের দিকে নজর দেওয়ার জন্য রোজ শরীরচর্চা করেই থাকেন। আর শরীরকে সুস্থ রাখতে শরীরচর্চা করা খুবই জরুরি। কিন্তু অনেকেই সঠিক নিয়ম কানুন না জেনেই শরীরচর্চা করে থাকেন। আর এর ফলে ভুগতে হয় নানারকম অসুখে। আপনি হয়তো মনে করছেন, শরীরচর্চা করার
কনট্রিসেপটিভ পিলের কি কোনও সাইড এফেক্ট আছে? অনেক মহিলারই এটি অবশ্যাম্ভবী প্রশ্ন৷ অনেকে এনিয়ে চিকিৎসকদের জিজ্ঞাসা করেন৷ কেউ আবার জিজ্ঞাসা করতে ইতস্তত করেন৷ গর্ভধারণ আটকাতে এই পিল ব্যবহার করা হয়৷ সাধারণত সুস্থ শরীরকে ব্যস্ত করতে চায় না কেউই৷ তাই সেক্স করার আগে কন্ডোম ব্যবহার করা প্রয়োজন৷ কিন্তু অনেকসময় হঠাৎই অনেক
আসছি আসছি করে গরমকালটা এসেই গেল। একটু বেলা বাড়লেই রোদের তাপে আর বাইরে বেরনো যাচ্ছে না। গরমের তাপ এতটাই। এই সময়ে বেশিরভাগ মানুষই শরীরকে ঠাণ্ডা রাখার জন্য কোল্ড ড্রিঙ্কস বা আইসক্রিম খেয়ে থাকেন। কিন্তু নিউট্রিশনিস্টরা জানাচ্ছেন, গরমে শরীর সুস্থ রাখতে কোল্ড ড্রিঙ্কস বা আইসক্রিম নয়, বরং এমন কিছু পানীয় খেতে
ভারতে গলার ক্যানসারের মতো রোগ বহু মানুষের মধ্যে দেখা যায়। এই সব জটিল রোগে বিশেষ করে আক্রান্ত হন পুরুষরা। গলার ক্যানসারের ফলে রয়েছে প্রাণ সংশয়েও। তবে, প্রথম পর্যায়ে ক্যানসার ধরা পড়লে, চিকিত্সা তাড়াতাড়ি শুরু হলে সেরে ওঠার সম্ভাবনাও থাকে। এর জন্য জানা থাকা দরকার গলার ক্যানসারের লক্ষণগুলি। জেনে নিন- ১) যদি
তাতা পোড়া গরমেও নিজেকে সুস্থ ও সতেজ রাখতে চান ? তাহলে অবশ্যই খাদ্য তালিকায় রাখুন সবুজ শাক সবজি। এতে পেট যেমন ঠান্ডা থাকবে। আপনিও থাকবেন তরতাজা। সঠিক ক্যালরি মেনটেন হবে। তাই গুণাগণ দেখে ডায়েটে রাখুন এই চার সবজি।                                 ঝিঙে ১.  গ্রীষ্মে শরীরে জলের প্রয়োজন মেটায় ও পেট ঠান্ডা রাখে ঝিঙে। ২.  অ্যাসিডিটির সমস্যা রোধ করে। ৩. 
নখের যত্ন অনেকেই নিয়ে থাকেন। সুন্দর করে সাজিয়েও থাকেন। কিন্তু নখের দু’পাশে যে অবাঞ্ছিত চামড়াটি বেড়ে থাকে, তাঁর যত্ন ক’জন নেন? নখের মতো সেটিও তো শরীরের অঙ্গ। তারও যত্নের প্রয়োজন। নখের পাশে ছোট্ট একটু চামড়া উঠতে থাকলেই তা অস্বস্তির সৃষ্টি করে। অনেকেই চামড়াটি ছিঁড়ে ফেলতে উদ্যত হন। কিন্তু এতেই বাড়ে বিপদ।
ডিম এক আশ্চর্য খাদ্য। ভেজে খাও বা সেদ্ধ করে— রসনায় যেন উৎসবের আবহ। নাই বা হল, ইলিশ-পাঁঠা, নামমাত্র খরচে ডিমেই জমে যেতে পারে আপনার ‘বোরিং’ লাঞ্চ বা ডিনার। একে তো খেতে ভাল, আবার তার পুষ্টিগুণও দারুণ। অন্তত এতকাল তো সেটাই জানা ছিল। কিন্তু মার্কিন গবেষকরা যা জানাচ্ছেন, তাতে কপালে ভাঁজ
মেথি দানা। আকারে যতই ক্ষুদ্র হোক, এর গুণাগুণ অপরিসীম। নানা ধরনের শাক-সবজি রান্না সুস্বাদু করে তুলতে মেথি দানা তো ব্যবহার করা হয়ই। কিন্তু আলাদা করেও এর অনেক উপকারিতা রয়েছে। মেথি দানা ব্যবহার করে ঘরোয়া টোটকাতেই সারিয়ে নিতে পারেন একাধিক রোগ-যন্ত্রণা। চলুন জেনে নেওয়া যাক এর গুণের কথা। রাতে এক চামচ মেথি
কক্সবাজার: স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক এবং ফ্রেন্ডশিপ উপকূলীয় অঞ্চলে ৪০০ সুবিধাবঞ্চিত রোগীর ছানি অপারেশন করছে। এজন্য বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ৫ টি ক্যাম্প স্থাপন করেছে ফ্রেন্ডশিপের ভাসমান হাসপাতাল রঙধনু ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতাল (আরএফএইচ)। এরই মধ্যে কুয়াকাটা (পটুয়াখালী), মংলা ও চালনা (খুলনা) এবং হাতিয়া (নোয়াখালী) তে এই ক্যাম্পগুলো সম্পন্ন হয়ে গেছে। এবার হচ্ছে কুতুবদিয়ায়
মানবদেহে কখন কী ভাবে রোগ বাসা বাঁধে, তার কোনও ঠিক ঠিকানা নেই। অনেক সময় তৎক্ষণাৎ বোঝা গেলেও, এমন বহু রোগ আছে যা বুঝতে আপনার বেশ কয়েক বছর সময় লেগে যায়। আর তত দিনে সেই রোগ অনেক গভীরে পৌঁছে যায়। শরীরে যে সব রোগ বাসা বাঁধে, তার অধিকাংশই স্ট্রেস থেকে আসে। এমনকী
ধূমপান স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। এসব কিছু জানার পরও সারা বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ ধূমপান করেন। প্যাকেটের পর প্যাকেট নিমেষে ধোঁয়া করে বাতাসে উড়িয়ে দেন। শরীর স্বাস্থ্যের কতটা ক্ষতি হচ্ছে, সেটা একবার ভেবেও দেখেন না। সম্প্রতি একটি তথ্য প্রকাশ হয়েছে। যাতে বলা হয়েছে, দিনে ১০টা কিংবা ২০টা নয়, হার্ট অ্যাটাক হতে
ঢাকা: আমেরিকার বিজ্ঞানীরা হাতে বেঁধে রাখা যায় এমন একটি সেন্সর প্যাচ তৈরি করতে চলেছেন যা স্ট্রোক এবং হৃদরোগে আক্রান্ত রোগীদের দ্রুত সুস্থ্য করে তুলতে সাহায্য করবে।   এই সেন্সর ক্রমাগত রোগীর অবস্থা তার চিকিৎসকের কাছে পাঠাবে।   বিজ্ঞানীদের যে দলটি এটি তৈরি করছেন তারা বলছেন, চিকিৎসকরা দূরে বসেই সর্বক্ষণ রোগীর অগ্রগতি অবনতি পর্যবেক্ষণ করতে
সহজলভ্য না হওয়ায় স্ট্রবেরির উপকারী গুণাগুণগুলি সম্পর্কে আমাদের বিশেষ কোনও ধারণাই নেই। উজ্জ্বল লাল রং, স্বাদ, গন্ধের জন্য বিখ্যাত স্ট্রবেরি। জ্যাম, মিল্কশেক, চকোলেট, আইসক্রিম প্রভৃতিতে স্ট্রবেরি ব্যবহার করা হয়। স্বাদে, গন্ধে অতুলনীয় এই ফল শুধুমাত্র জিভের স্বাদই মেটায় না। পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন উপকারে লাগে। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে পলিফেনল, ডায়টারি
অতিরিক্ত ঠান্ডা পানীয় পান করলে তা বিভিন্ন ভাবেই শরীরের ক্ষতি করে। ওজন বৃদ্ধি, ডায়াবেটিস, মহিলাদের ক্ষেত্রে সময়ের নির্দিষ্ট বয়সের আগেই পিরিয়েড শুরু হওয়া থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার জন্ম দেয়। কিন্তু এবার জানা গেল আরও মারাত্মক ক্ষতির কথা। বোস্টন ইউনিভার্সিটি স্কুল অব মেডিসিন-এর গবেষকরা বলছেন, অতিরিক্ত ঠান্ডা পানীয় পান করলে
রোগা হওয়া এখন একটা ট্রেন্ড। পুরোনো পোশাক যদি গায়ে বড় হয় তাহলে মন যেন খুশিতে ভরে ওঠে। স্লিম অ্যান্ড ট্রিম চেহারাই এখন ফ্যাশনে ইন। আর এর মধ্যে এমন কিছু মানুষ আছেন যাঁরা খাওয়া ছাড়া থাকতেই পারেন না। তার জন্য চেহারার দিকে খুব একটা চোখও দেন না। তাঁরা আছেন নিজের মতোই।
কেউ দেন পায়েসে, কেউ ধোঁয়া ওঠা পোলাওয়ে। অনেকে আবার বিরিয়ানি স্পেশ্যাল করতেও উপরে ছড়িয়ে দেন। যেখানেই পড়ুক না কেন, স্বাদ কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেয়। অনেকে আবার খাবার প্লেটে আলাদা করে পাশে রেখে দেন। যাতে খাওয়ার শেষে কিসমিসের টকমিষ্টি স্বাদটা মুখে থেকে যায়। তবে কেবল স্বাদেই অতুলনীয় নয় ছোট এই ড্রাই ফ্রুট,
আয়োডিন আমাদের শরীরের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, যদিও বিষয়টিকে আমরা কমই গুরুত্ব দিয়ে থাকি। থাইরয়েড হরমোন এবং হজমের কর্মকাণ্ডের জন্য এটি বিশেষ ভূমিকা রাখে। আয়োডিনের অভাব হলে শারীরিক বৃদ্ধি বা গঠনে বড় ধরণের প্রভাব পড়ে। কিন্তু আমাদের অনেকেরই জানা নেই, কতটা আয়োডিন আমাদের দরকার বা কোন খাবারে সেটি পাওয়া যাবে? এ নিয়ে গবেষণার পর সারে
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
হেলথ টিপস
ব্যর্থ প্রেমিক ছাড়া প্রেম ব্যাপারটা দোষে গুণে সবার কাছেই বেশ আহ্লাদের। প্রেম নিয়ে আহ্লাদীপনার দাপটটা ...
প্রকৃতি আমাদের জন্যে কত রকম খাবারেরই না যোগান মজুত রেখেছে! তারই মধ্যে এমন অনেক খাবার ...
নিয়ম করে প্রতিমাসে বিউটি পার্লারে যেতে ইচ্ছে করে না? কিন্তু একেবারে ঝকঝকে স্কিন পেতেও তো ...


শিরোনাম
Top