health | natunbarta.com | Top Online Newspaper in Bangladesh
রোববার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭
webmail
পায়ের উপর পা তুলে বসার অভ্যেসটা অনেকেরই রয়েছে। কেউ কেউ বলেন, এভাবে বসলে নাকি বেশ কনফিডেন্টও লাগে। কিন্তু তা আপনার শরীরের জন্য কতটা ভাল সেদিকেও তো খেয়াল রাখতে হবে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কখনও সখনও পায়ের উপর পা তুলে বসা যেতেই পারে। কিন্তু তা বেশিক্ষণের জন্য নয়। তাহলে শরীরে দেখা দিতে পারে
ঢাকা: রোজা রেখে বা উপবাস করে কি ডায়াবেটিসের নিরাময় সম্ভব? মার্কিন বিজ্ঞানীদের একটি দল তাদের সাম্প্রতিক এক গবেষণার ফল থেকে সেরকম আশার আলো দেখতে পাচ্ছেন। বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণায় দেখতে পেয়েছেন উপবাস করে এবং একটি নির্দিষ্ট ডায়েট বা খাদ্যতালিকা অনুসরণ করে অগ্ন্যাশয়ের সক্ষমতা ফিরিয়ে আনা সম্ভব। ডায়াবেটিসের চিকিৎসায় এই গবেষণার ফলকে খুবই আশাপ্রদ
প্রেসক্রিপশনে মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট? খেয়ে ভাবছেন, দারুণ কাজ দিচ্ছে। মোটেই না। আপনার শরীরে কোনও কাজেই লাগে না মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট। ভিটামিনের ঘাটতি মেটাতে পারে শাকসবজি, ফলমূলই। মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট বা ক্যাপসুল। একের মধ্যে বহু। শীত জানান দিতে শুরু করলেই টপাটপ ভিটামিন সি ট্যাবলেট খেয়ে নেওয়া। অন্যসময়ে মাল্টিভিটামিন। শরীর দুর্বল? কাজে এনার্জি নেই? বা বড়
অবাঞ্ছিত গর্ভধারণ রোধের অন্যতম সহায়ক কনট্রাসেপটিভ পিল বা গর্ভনিরোধক বড়ি। নিয়মিত যৌনজীবনকে উপভোগ্য করে তুলতে অনেক মহিলাই এই বড়ি খেয়ে থাকেন। কিন্তু বড়ি খাওয়ার কয়েক মাসের মধ্যে শারীরিক কিছু পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায় সেইসব মহিলার ক্ষেত্রে। একাধিক শারীরিক সমস্যাও তৈরি হয়। অনেকের ব্যবহারেও পরিবর্তন আসে। স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞদের মত, এর নেপথ্যে
অফিসে বসে থাকার সময় অনেকেরই পিঠে, কোমরে প্রবল যন্ত্রণা হয়। বসার দোষে হচ্ছে বলে অনেকেই এড়িয়ে যান। কিন্তু জানেন কি, এটা ফুসফুসে ক্যানসারের লক্ষণও হতে পারে। কেউ কেউ হয়ত ভাববেন, যারা ধূমপায়ী, শুধু তাদেরই এই সম্ভাবনা দেখা যায়। কিন্তু এ ধারণাও সঠিক নয়। যারা ধূমপান করেন না, তাদেরও ফুসফুস ক্যানসার
ঢাকা: দেশে বিরল 'বৃক্ষমানবী' ১০ বছরের কন্যাশিশু সাহানা খাতুনের অস্ত্রোপচার হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে। সাহানাই দেশের প্রথম নারী যে বিরল এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেন জানিয়েছেন 'অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। সাহানা ভালো আছে"। সাহানার আর কোনো অস্ত্রোপচার লাগবে না বলেও
মেক্সিকো সিটি: কিছু কিছু ঘটনা চিকিৎসাবিজ্ঞানের ইতিহাসে অবিস্মরণীয় হয়ে থাকে। ২০১৪ সালের মার্সিডিজ তালামান্তের কেসটি যেমন। মেক্সিকোর মার্সিডিজ তালামান্তে ওজন বেড়ে যাওয়ার সমস্যায় ভুগছিলেন। এমনিতেই চেহারা একটু ভারি। কিন্তু হঠাৎ করে ন’-দশ মাসের মধ্যে ৬৫ কেজি থেকে ওজন বেড়ে যখন ১২৫ কেজি হয়ে গেল, তখন মার্সিডিজের মনে হল, নাঃ, এ বার
এলাচ, দারচিনি, লবঙ্গ... গরম মশলা বললেই প্রত্যেক রান্নাঘরে এগুলো পাওয়া যাবে। কিন্তু লবঙ্গের গুণাগুণ শুধু রান্নাতেই নয়, তার বাইরেও আছে। সুস্বাস্থ্যে লবঙ্গ নানা ভাবে আমাদের উপকারে আসে। যেমন, ১) দাঁতে যন্ত্রণা- দাঁতের যন্ত্রণায় কষ্ট পেলে লবঙ্গ চিবিয়ে খেলে যন্ত্রণা কমবে। ২) বমি বমি ভাব- লবঙ্গ মুখে রাখলে বা জলের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা
মা হওয়া যেমন আনন্দের, তেমনই সচেতনতার! হবু মাকে অনেক দিকে লক্ষ্য রাখতে হয়। মায়ের শরীরে বাচ্চা বেড়ে ওঠে। সেই বাড়ন্ত শিশুকে পৃথিবীর আলো দেখাতে মাকে অনেক বেশি সতর্ক থাকতে হয়। খেয়াল রাখতে হয় নিজের এবং বাচ্চার। তাই সেসময় পর্যাপ্ত আহার, এক্সারসাইজ়, মনের দিকে নজর দিতে বলা হয়। সবচেয়ে বেশি জোর
অনেক সময়েই ঠাণ্ডা লেগে নাক বন্ধ হয়ে যায়। আর সেই কারনে রাতে অঘোরে ঘুমিয়ে পড়লেই শুরু হয় নাক ডাকা! যদিও সবসময়ে যে ঠান্ডা লাগার কারণে নাক ডাকা হয়, তা মোটেই ঠিক নয়। নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন, অতিরিক্ত মেদ ও শোয়ার কারণেও অনেক সময় ঘুমের মধ্যে নাক ডাকতে পারে। আর আপনার নাক
আজ থেকে ৩০-৪০ বছর আগেও মহিলারা সাধারণ বা নর্মাল পদ্ধতিতে শিশুর জন্ম দিতেন । কিন্তু গত তিন দশকে চিত্রটা আগাগোড়া পালটেছে । শিশুর জন্ম দেওয়ার সময় বেশিরভাগ মহিলাই এখন সিজ়ার পদ্ধতিতে প্রসব করান । মানে তলপেট কেট বাচ্চাকে বের করে আনা হয় । কিন্তু কেন? হঠাৎ এই ভোলবদলের কারণ কী? ক্যারিয়ার
ঢাকা: ভুয়া ক্লিনিক ও ডায়গোনস্টিক সেন্টারের মালিকরা যতই ধর্মঘট করুক না কেন তাদের কোন অন্যায় দাবি মেনে নেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।  বৃহষ্পতিবার রাজধানীর তেজগাঁওস্থ জাতীয় নাক-কান-গলা ইনস্টিটিউড ও হাসপাতাল পরিদর্শনকালে হাসপাতালের ডাক্তারদের সঙ্গে মতিবিনিময়কালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। এসময় মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘ভুয়া ক্লিনিক
চোখ, দেহের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও জটিল ইন্দ্রিয়। চোখের সামান্যতম সমস্যাও তাই কখনও অবহেলা করা উচিত নয়। চোখের সামান্য সমস্যা থেকে আপনি দৃষ্টিশক্তিও হারাতে পারেন। চোখ ভালো রাখতে কী কী করবেন? জেনে নিন-   ১) ফল ও সবজি- চোখ ভালো রাখতে গাজরের পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণে সবুজ শাকসবজি, বাদাম, কমলা খান। যেগুলি সবগুলিই প্রচুর
কিডনি শরীর থেকে টক্সিন বা বর্জ্য বের করে দেয়। সেটাই যদি ঠিকঠাক কাজ না করে তাহলে মুশকিল। কয়েকটি শারীরিক অসুবিধা কিন্তু কিডনির গোলমালের জন্য হয়। যেমন গায়ে ঘনঘন র্যা শ, সারাদিনে খুব প্রস্রাব হওয়া, গরমেও কম ঘাম হওয়া। ছাকনির মতো কাজ করে কিডনি। শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখে। তাতে গোলামাল হলেই
ঢাকা: শীতের সবজিতে ভরে উঠেছে বাজার। এর মধ্যে অন্যতম হলো মুলা। কিন্তু অনেকেই মুলোর নাম শুনেই বিরক্ত হন। আমাদের মধ্যেই অনেকেই এই সবজি খেতে চান না। কিন্তু জানেন কি মুলো শরীরের জন্য ভীষণ ভাবে উপকারী। বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যা মেটাতে শীতের এই সবজির জুড়ি মেলা ভার। তাই শীতের সময় নিয়মিত
রাতে ভালো ঘুম দিনভর রাখে তরতাজা। শরীর ও মনের জন্য ভালো ঘুম খুবই জরুরি। কিন্তু অনেকেরই রাতে ঠিকমতো ঘুম হয় না। বিনিদ্র রাতের কষ্টের জের সারদিন চলতে থাকে। মাথা ধরা, চোখ ভারী, ক্লান্তি, বারবার হাই তোলা, মেজাজ বিগড়ে যাওয়া - এরকম নানা সমস্যার প্রভাব পড়তে শুরু করে। শুধু কী তাই,
চিকিৎসকরা ডিম খাওয়ার বিষয়ে নানা সময়েই একাধিক বাধা নিষেধ আরোপ করে থাকেন। বলা হয়, যাদের একটু বয়স বেশি, উচ্চ রক্তচাপ, উচ্চ কোলেস্টেরল অথবা হৃদরোগের ঝুঁকি আছে তাদের ডিম কম খাওয়া উচিত। আর ডিমের লাল অংশ তো একেবারেই মানা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডিম, চিংড়িমাছ এবং অন্যান্য এনিমেল ফুডে রক্তের কোলেস্টেরলের ওপর সামান্যই বা
ওজন বেড়েই চলেছে। কমার কোনও লক্ষণ নেই। চিন্তায় কপালে ভাঁজ পড়ছে। ভারতের ক্ষেত্রে সমস্যাটা আরও বেশি। কারণ, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাত্রার কারণে মোটা মানুষের সংখ্যা দেশে বাড়ছে। অথচ ভারতেই রয়েছে এমন ফল, যা খেলে ওজন কমতে বাধ্য। নারিকেলের কথাই বলছি। ‘হোল ফুডস মার্কেট’ জানাচ্ছে ২০১৭ সাল হতে চলেছে নারিকেলের। এর জল থেকে
সোনার আংটি বাঁকা হোক আর যাই হোক, সমস্যা সকলেরই হয়। তেমনই অনেকেই মনে করেন, পুরুষদের ত্বকে কোনও সমস্যা হলেও তাঁরা খুব একটা গুরুত্ব দেন না। কিন্তু এই কথা সম্পূর্ণ ভুল। ত্বকে সমস্যা সকলেরই হয়। কষ্ট সকলেই পান। আর যাঁরা কষ্ট সহ্য করে থাকেন, তাঁদের পরে ভুগতে হয়। তাঁদের অনেকসময় স্কিন
প্যারিস: ইবোলায় আক্রান্তদের চিকিৎসা করে ভাইরাসমুক্ত ঘোষণার এক বছর পরও তাদের দুর্বলতা কাটছে না। গিনিতে এই ভাইরাসের ওপর একটি পরীক্ষা চলছে। এতে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত রোগী সুস্থ হওয়ার পরও ফলোআপের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র। গবেষকরা রোববার জানান, ইবোলা ভাইরাস থেকে সুস্থ হওয়া রোগীদের মধ্যে গড়ে তিন চতুর্থাংশের ইবোলা
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
হেলথ টিপস
ব্যর্থ প্রেমিক ছাড়া প্রেম ব্যাপারটা দোষে গুণে সবার কাছেই বেশ আহ্লাদের। প্রেম নিয়ে আহ্লাদীপনার দাপটটা ...
প্রকৃতি আমাদের জন্যে কত রকম খাবারেরই না যোগান মজুত রেখেছে! তারই মধ্যে এমন অনেক খাবার ...
নিয়ম করে প্রতিমাসে বিউটি পার্লারে যেতে ইচ্ছে করে না? কিন্তু একেবারে ঝকঝকে স্কিন পেতেও তো ...


শিরোনাম
Top