বাণিজ্য বার্তাস্বাস্থ্য

ফাস্ট কম্পানির ‘২০২০ ওয়ার্ল্ড চেঞ্জিং আইডিয়াস’ তালিকায় প্রাভা হেলথের স্বীকৃতি

বিশ্বের সেরা পরিবর্তনশীল আইডিয়া (এশিয়া প্যাসিফিক) ও বিশ্বের উন্নয়নশীল প্রযুক্তি বিভাগে সম্মাননা স্বীকৃতি পেল প্রাভা হেলথ

ফাস্ট কম্পানির সম্প্রতি প্রকাশিত ‘২০২০ ওয়ার্ল্ড চেঞ্জিং আইডিয়াস’ তালিকায় বিশ্বের সেরা পরিবর্তনশীল আইডিয়া (এশিয়া প্যাসিফিক) ও বিশ্বের উন্নয়নশীল প্রযুক্তি বিভাগে সম্মাননা স্বীকৃতি পেয়েছে প্রাভা হেলথ।

স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী এই সংস্থাটি কাটিং-এজ টেকনোলজির সাথে উন্নতমানের স্বাস্থ্যসেবা সমন্বয়ের মাধ্যমে রোগীর অভিজ্ঞতার আলোকে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যক্ষাতের মান উন্নায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। প্রাভার “ব্রিক এন্ড ক্লিক” মডেল এই ধরণের প্রথম পরিষেবা যা কিনা বাংলাদেশে রোগীদের জন্য প্রথমবারের মত ৩৬০ ডিগ্রী বা পরিপূর্ন স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করছে।

“কয়েক দশকের বিশ্বব্যাপী উন্নয়নের ফলে লাখ লাখ শহরের বাংলাদেশী মধ্যবিত্ত শ্রেণিতে রূপান্তরিত হওয়ায় বাংলাদেশ বর্তমানে একটি ‘মিসিং মিডেল’ সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে। এর ফলে স্বাস্থ্যসেবা অনিশ্চয়তার মুখে ঠেলে দেয়া এই মানুষগুলোর স্বাস্থ্য পরিসেবা অপূর্ণ থাকছে এবং হাজার হাজার মানুষ প্রতিনিয়ত বিদেশ ভ্রমণ করছে উন্নত স্বাস্থ্যসেবার জন্য,” বলেন প্রাভা হেলথের প্রতিষ্ঠাতা, চেয়ারম্যান এবং সিইও, সিল্ভানা সিনহা। “মানসম্পন্ন চিকিৎসা এবং প্রযুক্তির সমন্বয়ে প্রাভা হেলথ একটি স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা তৈরি করছে যেখানে সেবার মান বজায় রাখার পাশাপাশি রোগীদের মর্যাদার গুরুত্ব প্রাধান্য দেয়ার মাধ্যমে এই বাংলাদেশীদের চাহিদা পূরণ করবে।“

প্রাভা হেলথ বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থার পদ্ধতিগত সমস্যা গুলোর সমাধান করার চেষ্টা করতে চায়। বাংলাদেশে একজন ডাক্তারের রোগী দেখার গড় সময় ৪৮ সেকেন্ড। দেশে ১ শতাংশেরও কম মানুষ স্বাস্থ্য বীমার আওতাধীন এবং দেশে মাত্র দুইটি আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসা গবেষনাগার রয়েছে, বাজারের দুই লাখের মত অনুমোদনহীন ফার্মেসি রয়েছে। এইসব বিষয়গুলো একত্রিত হয়ে স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থায় একটি গভীর অবিশ্বাসের প্রভাব এনেছে, যা ঠেলে দিচ্ছে রোগীদের বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা সেবা গ্রহণের জন্য। নতুন মধ্যবিত্ত পরিবার গুলোর বিদেশের চিকিৎসার বিশাল ব্যয় তাদেরকে দারিদ্র্যের ঝুঁকির মুখেও ফেলে দিচ্ছে।

এই ধরণের রোগীর ক্ষেত্রে বাংলাদেশে প্রাভাই প্রথম আউটপেশেন্ট ইনস্যুরেন্স সুবিধা প্রদান করছে।  প্রাভায় রয়েছে দেশের প্রথম সম্পূর্ণ ইন্টিগ্রেটেড ইলেক্ট্রনিক রেকর্ড সিস্টেম ও পেশেন্ট পোর্টাল এ্যাপ এবং তারা আরও পুনর্বিবেচনা করছে যে কিভাবে প্রযুক্তির মাধ্যমে একজন ডাক্তারের সাথে কন্সাল্টেশান উন্নত করা যায়। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে রোগীরা অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক করতে পারবে, তাদের মেডিকেল রেকর্ড দেখতে পাবে, ল্যাব পরীক্ষার রেজাল্ট ও প্রেসক্রিপশন রিভিউ করতে পারবে যেকোন সময়, যেকোন জায়গা থেকে। পরিশেষে, অ্যাপটির মাধ্যমে ডাক্তারদের সাথে কথা বলা সহ আরও অনেক সুবিধা নিয়ে রোগীর সকল ডিজিটাল স্বাস্থ্য সেবা চাহিদা পূরণে প্রস্তুত হবে।

অতিসম্প্রতি, কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবেলায় সাধারন রোগী ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য প্রাভা বেশ কয়েকটি নতুন টেলিমেডিসিন সেবা এবং টুলস চালু করেছে। যার মধ্যে ছিল, বিনামূল্যে স্ক্রিনিং কল, ডাক্তারের সাথে ভিডিও কনসাল্টেশন, বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহ, অনলাইন ফার্মেসী, সেলফ অ্যাসেসমেন্ট টুল, সতন্ত্র কোভিড-১৯ ওয়েবপেজ সুবিধা।

 

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker