সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭
webmail
Sun, 19 Mar, 2017 03:31:47 PM
নতুন বার্তা ডেস্ক

লিমা: পেরুর রাজধানী লিমার বেশ কয়েকটি অঞ্চলে আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। এতে শনিবার কয়েকটি এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। অন্যান্যরা বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ স্থানে চলে গেছে। উপদ্রুত এলাকার লাখো মানুষের মধ্যে খাবার পানির সংকট দেখা দিয়েছে।

দেশটির সরকার শনিবার জানিয়েছে, চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ভারী বর্ষণ ও আকস্মিক বন্যায় ৭২ জন প্রাণ হারিয়েছে। দক্ষিণ আমেরিকার এই দেশটির লোকসংখ্যা তিন কোটির বেশি। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।  

উপকূলে চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে টানা ভারী বৃষ্টিপাতের পর বেশ কয়েকটি খালি নদীখাত থেকে হঠাৎ পানি উপচে পড়ে।

লিমায়, শুক্রবার রাজধানীর উপকণ্ঠের বাসিন্দারা ঘুম থেকে জেগে দেখতে পায় তাদের চারপাশ পানিতে তলিয়ে গেছে। শহরটিতে ১ কোটি লোকের বাস।

বৃহস্পতি ও শুক্রবার উত্তরাঞ্চলীয় অটুজকো শহরে ভূমিধসে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে সাতজন একটি ট্রাকে ছিল। ভূমিধসে ট্রাকটি চাপা পড়ে।

অন্যান্যদের ভূমিধসে চাপাপড়া অবস্থায় পাওয়া গেছে। ভূমিধসে লিমার সঙ্গে দেশটির মধ্যাঞ্চলকে সংযোগকারী প্রধান মহাসড়কটির একটি অংশ আটকে গেছে।

এল নিনোর প্রভাবে প্রবল বৃষ্টিপাতে এই বন্যার সৃষ্টি হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলো পুনর্গঠনে সরকার ৭৬ কোটি মার্কিন ডলার জরুরি তহবিল ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছে। পাঁচ লাখের বেশি লোক এই সহায়তা পাচ্ছে।

জাতীয় জরুরি কার্যক্রম কেন্দ্র জানিয়েছে, পেরুতে চলতি বছরের এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে অন্তত ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এ ছাড়াও এতে মধ্যে মোট ৭২ হাজার ১শ’ ১৫ জন তাদের বাড়িঘর হারিয়েছে। -সংবাদমাধ্যম

নতুন বার্তা/এএইচ


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top
    close