বিদেশ

কেজরিওয়ালের ২০ বিধায়কেরসদস্যপদ বাতিল

নয়াদিল্লি: রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তের পর ২০ জন আপ বিধায়কের পদ বাতিল হয়ে গেল৷ লাভ জনক পদ বা অফিস অফ প্রফিট ইস্যুতে নির্বাচন কমিশন আগেই আম আদমি পার্টির ২০ জন বিধায়কের পদ বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল৷ সেই সিদ্ধান্ত অনুমোদনের জন্য রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে পাঠানো হয়৷ তিনি সিলমোহর দেওয়ায় দিল্লিতে উপনির্বাচন অবধারিত হয়ে পড়ল৷

এদিন রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে বিবৃতি জারি করে বলা হয়, ‘‘নির্বাচন কমিশন বিষয়টি অনুমোদনের জন্য রাষ্ট্রপতি ভবনে পাঠায়৷ বিষয়টি গভীরভাবে পর্যালোচনা করার পর আমি রামনাথ কোবিন্দ ভারতের রাষ্ট্রপতির পদাধিকার বলে দিল্লি বিধানসভার ২০ জন আপ বিধায়কের পদ বাতিলের সিদ্ধান্ত নিলাম৷’’

বিষয়টি এখানেই থামছে হচ্ছে না৷ এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতের দরজায় কড়া নাড়তে পারে আপের নেতৃবৃন্দ৷ এমনটাই আভাস দিয়েছেন দলের প্রবীণ নেতা গোপাল রাই৷ তিনি বলেন, প্রয়োজন হলে আপ হাইকোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হতে পারে৷

এদিকে রাষ্ট্রপতির এই সিদ্ধান্তের পর দিল্লিতে ২০টি আসনে উপনির্বাচন আপাতত নিশ্চিত হয়ে পড়ল বলাই যায়৷ যদিও সংখ্যার হিসাবে দিল্লি বিধানসভার সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকবে আপের দখলেই৷ ২০১৫ সালে ৭০ আসন বিশিষ্ট দিল্লি বিধানসভার ৬২টি আসনে জয়ী হয় হয় আপ৷ এই সিদ্ধান্তের পর আপের বিধায়ক সংখ্যা কমে দাঁড়াবে ৪২ এ৷

সংখ্যাগরিষ্ঠ ধরে রাখার জন্য ৩৫টি আসন ধরে রাখলেই যথেষ্ঠ৷ সেই হিসাবে এখনও সংখ্যাগরিষ্ঠতা আপের দখলেই আছে৷ তবে এক বছর বাকি থাকতেই বড়স়ড় উপনির্বাচন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কাছে একটি বড় ধাক্কা মনে করছেন অনেকেই৷ মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যার চেয়েছেন বিরোধীরা৷

নতুন বার্তা/এমআর

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker