আইন-আদালত

জ্যেষ্ঠতমই প্রধান বিচারপতি হবেন, তা সংবিধানে নেই: অ্যাটর্নি জেনারেল

ঢাকা: নতুন প্রধান বিচারপতি নিয়োগ প্রসঙ্গে রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, জ্যেষ্ঠতম বিচারপতিকেই প্রধান বিচারপতি করতে হবে সংবিধানে এমন কোনো বিধান নেই।

শুক্রবার সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেন। অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, এমন কোনো বিধান নেই যে, হাইকোর্টের জ্যেষ্ঠতম যিনি তাকেই আপিল বিভাগে নেয়া হবে। এটা সম্পূর্ণ রকমভাবে রাষ্ট্রপতির বিবেচনার বিষয় এবং এর আগেও এ রকম হয়েছে। এর আগেও আমাদের দেশে জ্যেষ্ঠতম বিচারপতিকে প্রধান বিচারপতি করা হয়নি।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘সংবিধানের এমন কোনো বিধান নেই যে, জ্যেষ্ঠতম বিচারপতিকেই, মানে প্রধান বিচারপতি করা হবে। এমন কোনো বিধান নাই যে, জ্যেষ্ঠতম যিনি হাইকোর্টের তাকেই আপিল বিভাগে নেওয়া হবে। এটা সম্পূর্ণরকমভাবে রাষ্ট্রপতির বিবেচনার বিষয় এবং এর আগেও এরকম হয়েছে। এর আগেও আমাদের দেশে জ্যেষ্ঠতম বিচারপতিকে প্রধান বিচারপতি করা হয়নি।’

আজ দেশের ২২তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন জানান, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ নতুন প্রধান বিচারপতির নিয়োগপত্রে স্বাক্ষর করেছেন। আগামীকাল শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি নতুন বিচারপতিকে শপথবাক্য পাঠ করাবেন তিনি।

গত বছরের ১০ নভেম্বর প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা পদত্যাগ করার পর থেকেই এই পদ খালি ছিল। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন জ্যেষ্ঠ বিচারপতি আবদুল ওয়াহাব মিয়া।

গত বছর ১ আগস্ট উচ্চ আদালতের বিচারপতি অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে নিয়ে ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের পূর্ণ রায় প্রকাশ করা হয়। রায়ে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিভিন্ন পর্যবেক্ষণ নিয়ে ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করে আসছিলেন মন্ত্রী, আওয়ামী লীগ নেতারা। তাঁরা প্রধান বিচারপতির পদত্যাগেরও দাবি তোলেন। এরই মধ্যে গত ২ অক্টোবর হঠাৎ করেই এক মাসের ছুটিতে যান প্রধান বিচারপতি। তিনি আবেদনে ৩ অক্টোবর থেকে ১ নভেম্বর পর্যন্ত ছুটিতে যাওয়ার কথা জানান রাষ্ট্রপতিকে। পরে গত ১৩ অক্টোবর রাতে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে দেশ ছাড়েন সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। ১০ নভেম্বর ছুটির মেয়াদ শেষ হওয়ার দিনই দেশের বাইরে থেকেই পদত্যাগপত্র পাঠান তিনি।

নতুন বার্তা/কেকে

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker