শনিবার, ২৪ জুন ২০১৭
webmail
Wed, 17 May, 2017 02:29:31 PM
নিজস্ব প্রতিবেদক
নতুন বার্তা ডটকম
ঢাকা: ১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রথম আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, এডফিআপ এওয়ার্ড ২০১৭ তে ‘কর্পোরেট সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি’ ক্যাটাগরিতে ‘আউটস্ট্যানডিং ডেভেলপমেন্ট এওয়ার্ড’ অর্জন করেছে।
 
আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড  প্রথম বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এই সম্মানজনক পুরষ্কার অর্জন করেছে। এডফিআপ সদস্যদের মধ্যে যারা এর সদস্য দেশগুলোতে উন্নয়ন সহায়ক প্রকল্প গ্রহণের উদ্যোগ নিয়েছে এডফিআপ তাদেরকে ‘আউটস্ট্যানডিং ডেভেলপমেন্ট এওয়ার্ড’ প্রদানের মাধ্যমে স্বীকৃতি ও সম্মান প্রদর্শন করে। কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা কার্যক্রমে অসাধারণ নৈপূণ্য প্রদর্শনের জন্য আইপিডিসি এই এওয়ার্ড পেয়েছে।
 
 
বিগত বছরে সদস্য দেশগুলোতে বাস্তবায়িত বিশেষ প্রকল্পগুলোর জন্য দশটি ভিন্ন ক্যাটাগরিতে এডফিআপ এওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে। আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড টেকসই সামাজিক অবদান ও উন্নয়নের জন্য ‘কর্পোরেট সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি’ ক্যাটাগরিতে পুরষ্কৃত হয়েছে।
 
শিক্ষা,স্বাস্থ্যসেবা ও বিনোদনের ক্ষেত্রে ৩৬০ ডিগ্রী অবদানের জন্য একমাত্র বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান হিসেবে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড ‘এডফিআপ’ এওয়ার্ড পেয়েছে। এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, এডফিয়াপের জেনারেল সেক্রেটারি ‘অক্টাভিও বি পেরাল্টা’, এডফিয়াপের চেয়ারম্যান এবং শ্রীলঙ্কার ডিএফসিসি ব্যাংক এর ডিরেক্টর ও সিইও ‘অর্জুন রিশ্যা ফেরনান্দো’, আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের এমডি এবং সিইও মমিনুল ইসলাম, আইপিডিসি ফিন্যান্স লিমিটেডের হেড অব ব্র্যান্ড এন্ড কর্পোরেট কমিউনিকেশন মাহজাবীন ফেরদৌস, এডফিয়াপের ভাইস চেয়ারম্যান এবং নেপালের এনআইডিসি ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার ও সিইও  শিভজী রায় যাদব। 
 
আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের এমডি এবং সিইও মমিনুল ইসলাম বলেন, “আইপিডিসিতে আমরা সমাজে সামাজিক দায়বদ্ধতা বিষয়ে সুস্পষ্ঠ ধারণার মাধ্যমে অত্যন্ত সুষ্টুভাবে কাজ করছি। আমাদের লক্ষ্য অনুযায়ী, দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে আমরাই সবচেয়ে উদ্যমী, যারা  উৎসাহী তরুণ, নারী এবং পিছিয়ে পড়া এলাকাগুলো নিয়ে কাজ করে নিজেদের প্রমাণ করে যাচ্ছি। দেশের আগামীর পথে  সমৃদ্ধির  যে সম্ভাবনাময় বীজ  উঠতি তরূণ প্রজন্মের মধ্যে লুকিয়ে আছে তা আমরা দেখতে পাই।”
 
জন্ম থেকেই একটি শিশুর জন্য পুষ্টি, শিক্ষা,বিনোদন ও সুযোগ- সুবিধার ৩৬০-ডিগ্রী এঙ্গেল থেকে খেয়াল রাখার জন্য আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড টেকসই উন্নয়ন অনুষ্ঠানের উদ্যেগ নিয়ে থাকে।
 
শীতকালে বাংলাদেশের উত্তরবঙ্গের মানুষের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করার জন্য  আইপিডিসি নেবুলাইজার এবং কম্বল বিতরণ করেছে। এছাড়াও যারা প্রতিদিন পায়ে হেঁটে স্কুলে যায় এরকম শিক্ষার্থীদের কষ্ট লাঘবের জন্য আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড তাদেরকে বাইসাইকেল দিয়েছে। এই কার্যক্রমের মাধ্যমে যে শুধুমাত্র দৈনন্দিন যাতায়াত সুবিধাজনক হচ্ছে তা নয়, বরং এর মাধ্যমে একটি পরিবারের জন্য সম্পদ তৈরি হচ্ছে। পাশাপাশি, দেশের পিছিয়ে পড়া জনপদগুলোতে শিশু শিক্ষার্থীদেরদের জন্য লাইব্রেরি তৈরি করা এবং শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ, বাংলাদেশের আনাচে-কানাচে আর্থিক-সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে আইপিডিসি অনেক শিশুকে আগামীতে নেতৃত্ব প্রদানের যোগ্য হিসেবে গড়ে তোলার জন্য কল্যাণমূলক কাজ করে যাচ্ছে।
 
প্রাতিষ্ঠানিক সহযোগিতার পাশাপাশি আইপিডিসি ‘টয়েস আর ইওরস’ নামে একটি ক্যাম্পেইন এর অর্থায়ন করে। কর্পোরেট সামাজিক দায়দ্ধতার অংশ হিসেবে, আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড ‘টেরে ডেস হোমস’-এর সহযোগিতায় বরগুনা ও কুড়িগ্রামে ১ লক্ষ মরিঙ্গা গাছ লাগাতে সক্ষম হয়েছে।
 
টেকসই আগামীর জন্য বাংলাদেশের উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের জেলাসমূহ এই ১ লক্ষ গাছ থেকে দারূণ উপকৃত হবে।
 
 
 
এরকম মহৎ এবং একেবারে নতুন একটি উদ্যোগের সাথে থাকতে পেরে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড গর্বিত। এই উদ্যোগ সময়ের সাথে তিনগুণ সুফল বয়ে আনবে।
 
নতুনবার্তা/কিউএমআর
 

Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top