ব্যবসা ও বাণিজ্য

গ্রামীণ ইউনিক্লো: ফ্যাশন জগতে এক অনন্য নাম

মঞ্জুর দেওয়ান: যারা রাজধানীর সায়েন্সল্যাব কিংবা এলিফ্যান্ট রোডে নিয়মিত যাতায়াত করেন তাদের চোখে গ্রামীণ ইউনিক্লো খুবই পরিচিত নাম হবে। বিশেষ করে যারা পায়ে হেঁটে চলাফেরা করেন তাদের চোখে না পড়ে পারবেই না! পথচারী কিংবা দর্শনার্থীদের সবিনয়ে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য গ্রামীণ ইউনিক্লোর স্টাফ তাদের শোরুমের বাইরেই দাঁড়িয়ে থাকেন। ফ্যাশন সচেতন মানুষদের তাদের পণ্য দেখে যাওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়ে থাকেন। লেখার সাথে হয়তো আপনার বাস্তব অভিজ্ঞতার মিল খুঁজে পাচ্ছেন! মিল পাবারই কথা। কারণ এতক্ষণ উপরের বর্ণনায় বাড়িয়ে বলা কোনো কথা ছিলোনা। আরামদায়ক পোশাক সরবরাহের মাধ্যমে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেছিলো গ্রামীণ ইউনিক্লো। দেখতে দেখতে প্রায় এক দশকে পৌঁছে গেছে দেশি পোশাকের সমারোহে ঠাসা এই প্রতিষ্ঠানটি। এই আয়োজনে থাকছে গ্রামীণ ইউনিক্লো’র দেশসেরা ব্রান্ড হয়ে ওঠার শুরুর গল্প।

২০১০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে গ্রামীণ হেলথ কেয়ার ট্রাস্টের সাথে মিলে গ্রামীণ ইউনিক্লো আত্মপ্রকাশ করে। মুনাফা অর্জন করা যেখানে অন্যান্য ফ্যাশন হাউজের মূল লক্ষ্য, গ্রামীণ ইউনিক্লো সেখানে একেবারেই ভিন্নধর্মী প্রতিষ্ঠান। গুণগত মান ঠিক রেখে স্বল্পমূল্যে উন্নত পোশাক উৎপাদনের লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে চলে গ্রামীণ ইউনিক্লো। বাংলাদেশের দারিদ্রতা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করাকে মূল ব্রত হিসেবে নেয় ফ্যাশন জগতের পরিচিত এই প্রতিষ্ঠানটি। গ্রামীণ ইউনিক্লো যখন যাত্রা শুরু করে তখন গ্রামীণ লেডিদের মাধ্যমে প্রত্যন্ত অঞ্চলে মাত্র এক ডলারের বিনিময়ে উন্নত পোশাক সরবরাহ করা হতো। বর্তমানে গ্রামাঞ্চেলের পাশাপাশি শহরেও সমানভাবে প্রসারিত গ্রামীণ ইউনিক্লো। আর এই সফলতার পেছনে ছিলো কঠোর অধ্যাবসায়। ২০১২ থেকে ২০১৩ সালের এপ্রিল পর্যন্ত ঢাকা শহরে ট্রেডিশনাল ব্যবসায় চ্যানেলে বিভিন্ন ভ্রাম্যমাণ পরিবহনের পোশাক বিক্রি শুরু করে। তারপর সামাজিক ব্যবসায় এর প্রয়াস ছড়িয়ে দিতে ঢাকায় আউটলেট খোলার সিদ্ধান্ত নেয় প্রতিষ্ঠানটি।

যেই কথা সেই কাজ! ২০১৩ সালের জুলাই মাসে ঢাকায় দুটি আউটলেট খুলে গ্রামীণ ইউনিক্লো। সেই থেকেই ঢাকার বুকে পদচারণা শুরু হয় দেশীয় ’স্বাদ’র পোশাকের গ্রামীণ ইউনিক্লো। বর্তমানে সফলতার সাথে ১৫টি আউটলেটে চলছে গ্রামীণ ইউনিক্লোর তৈরি পোশাক সেবা। অভিজাত শপিংমল থেকে শুরু করে ব্যস্ততম সড়কের পাশে রয়েছে গ্রামীণ ইউনিক্লোর আউটলেট। বসুন্ধরা সিটি, ধানমন্ডি সায়েন্সল্যাব মোড়, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, কাঁটাবন মোড়, ধানমন্ডি মেট্রো শপিংমল, মোহাম্মদপুর রিং রোড, মিরপুর ১, যাত্রাবাড়ি শহীদ ফারুক রোড, ওয়ারী র‌্যাংকিন স্ট্রিট, বেইলি রোড, খিলগাঁও, তালতলা, নয়াপল্টন, গুলশান বাড্ডা লিংক রোড,যমুনা ফিউচার পার্কসহ মোট ১৫টি আউটলেট রয়েছে গ্রামীণ ইউনিক্লো’র। দেশের সকল মানুষের দোড়গোড়ায় সেবা পৌঁছে দিতে ২০১৮ সালের মার্চ থেকে অনলাইন সেবার ব্যবস্থা করেছে গ্রামীণ ইউনিক্লো। অনলাইনে পোশাক অর্ডার করলে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা রেখেছে প্রতিষ্ঠানটি।

২৫০০ টাকা কিংবা তার বেশি কেনাকাটা করলেই থাকছে ফ্রি ডেলিভারি। আপনি বাংলাদেশের যে প্রান্ত থেকেই অর্ডার করুন না কেন; গ্রামীণ ইউনিক্লোর পোশাক পৌছে যাবে আপনার দারপ্রান্তে। সুন্দর ও রুচিশীল পোশাক পরিবেশনের পাশাপাশি অনলাইন সেবা দেয়ার জন্য নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছে গ্রামীণ ইউনিক্লো। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন পোশাক উদ্ভাবনের মাধ্যমে বাংলাদেশী ক্রেতাদের জন্য ট্রেডিশনাল পোশাক ন্যায্য মূল্যে সরবরাহের কথা বলেন গ্রামীণ ইউনিক্লো’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হক। বাংলাদেশে ব্যাবসা সম্প্রসারণের মাধ্যমে স্বল্প মূল্যে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন পোশাক সরবরাহের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণ ইউনিক্লো। ক্রেতাদের পছন্দ ও চাহিদার কথা মাথায় রেখেই পোশাক প্রস্তুত করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ব্যবসা সম্প্রসারণের মাধ্যমে সামাজিক সমস্যা সমাধানে ভূমিকা রাখতে চান গ্রামীণ ইউনিক্লো’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হক।

তৈরি পোশাক মালিকদের গায়ে যেখানে ‘শোষক’ তকমা লেগে গেছে, গ্রামীণ ইউনিক্লো সেখানে ভিন্ন পথে হাঁটতে আগ্রহী। প্রতিষ্ঠানটির সকল কর্মকর্তার প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণ ইউনিক্লো। কর্মরত সকল মানবসম্পদকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বৈশ্বিক মানবসম্পদে পরিণত করতে থাকছে বাড়তি নজর। সর্বোচ্চ মানের কর্মপরিবেশ তৈরিতে কার্পুণ্যতা নেই প্রতিষ্ঠানটির। এছাড়া পোশাক শিল্পে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ও উৎকর্ষতার সাথে কাজ করে নিয়োজিত মানব সম্পদকে সুস্থ জীবন যাপনে কাজ করে যাচ্ছে গ্রামীণ ইউনিক্লো। মুনাফা লোভীদের মতো শোষক না হয়ে দারিদ্র ও দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে থাকতে চায় গ্রামীণ ইউনিক্লো। ভালো মানের পোশাক সরবরাহের পাশাপাশি দুস্থ ও অসহায় মানুষের ভালোবাসার প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠতে চায় গ্রামীণ ইউনিক্লো।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker