ব্যবসা ও বাণিজ্যহোমপেজ স্লাইড ছবি

এঞ্জেললিষ্ট : উদ্যোক্তা এবং বিনিয়োগকারীদের এক অপূর্ব সম্মেলন

তাহজীর ফাইয়াজ চৌধুরী: এঞ্জেললিস্ট হচ্ছে একটি ইউ.এস ভিত্তিক ওয়েবসাইট। এটি স্টার্টআপ বা যারা নতুন ব্যবসা শুরু করতে চায়, যারা এঞ্জেলে বিনিয়োগ করতে চায় এবং যারা নতুন মূূলধন খুুঁজছে তাদের যোগ করে দেয়। ২০১০ সালে নাভাল রবিকান্ত এবং বাবাক নিভির হাত ধরে এঞ্জেল লিস্টের যাত্রা শুরু হয়। শুরুর দিকে এটির বিনিয়োগকারীর সংখ্যা ছিলো ৫০জন এবং তারা প্রথম বছরেই মোট আশি মিলিয়ন ডলার এঞ্জেললিস্টে বিনিয়োগ করে।

এঞ্জেললিস্টের কাজ মূলত উদ্যোক্তা, স্টার্টআপ এবং বিনিয়োগকারীদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া।২০১৫ সাল পর্যন্ত ওয়েবসাইটটি স্টার্টআপদেরকে বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে বিনা সুদে অর্থ নিতে সাহায্য করেছে। ভেঞ্চার হ্যাক ব্লগ নামের একটি ব্লগিং ওয়েবসাইট পরিচালনা করতে গিয়ে এঞ্জেললিস্টের আইডিয়া পান এর উদ্ভাবক নাভাল রবিকান্ত এবং বাবাক নিভি।

নাভাল রবিকান্ত ভারতে জন্মগ্রহণ করলেও মাত্র নয় বছর বয়সে তিনি তার পরিবারসহ নিউ ইয়র্ক শহরে পাড়ি জমান। তিনি স্ট্যুভেসান্ট থেকে স্নাতক শেষ করে ডার্টমাউথ এ যান এবিং সেখানে কম্পিউটার সায়েন্স ও ইকোনমিকস নিয়ে পড়াশুনা করেন। তিনি ইপিনিয়ন এবং ভাস্ট এর কো ফাউন্ডার ছিলেন। ইপিনিয়ন ছিলো একটি কাস্টমার এবং ভাস্ট ছিলো বিজ্ঞাপন এর মার্কেটপ্লেস। পরবর্তীতে তিনি ইপিনিয়ন এর কাজ ছেড়ে দেন এবং বেঞ্চমার্ক ক্যাপিটাল ও আগস্ট ক্যাপিটাল এর হয়ে কাজ করতে থাকেন। এখানে কাজ করতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন ইপিনিয়নের বিরুদ্ধে অর্থ জালিয়াতি সংক্রান্ত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তিনি তার কাজের অভিজ্ঞতা দিয়ে বুঝতে পারেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিনিয়োগকারী এবং স্টার্টআপদের অনভিজ্ঞতার সুযোগ নিয়ে তাদেরকে বিভিন্নভাবে ঠকিয়ে যাচ্ছে, স্টার্টআপদের কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে। এই অনুভুতি থেকে তিনি ২০০৭ সালে বাবাক নিভিকে নিয়ে ভেঞ্চার হ্যাক নামের একটি ব্লগিং ওয়েবসাইট তৈরি করেন।

এই ওয়েবসাইটটি বিনিয়োগকারী, নতুন ব্যবসায়ী বা যারা নতুন কিছু করতে যায় তাদেরকে নিয়ে ব্লগ লিখতো। সব কিছু ধরে ধরে শিখিয়ে দেওয়া হতো বিভিন্ন পোস্টের মাধ্যমে যে কিভাবে শুরু করতে হবে, কি কি স্কিল ডেভলপ করতে হবে, কার কাছ থেকে কতটা সাহায্য পাওয়া যাবে এবং কি কি ভুলের জন্য কেমন মাশুল দিতে হতে পারে ইত্যাদি। তারা প্রথমে ২৫ জন বিনিয়োগকারী পায় যারা তাদের ব্লগ থেকে আগ্রহী হয় বিভিন্ন কোম্পানিতে বিনিয়োগ করার জন্য। এবং পরবর্তীতে ২০১০ সালে তারা বিনিয়োগকারীদের একটা লিস্ট তৈরি করে যার নাম দেওয়া হয় “এঞ্জেললিস্ট”।

এঞ্জেললিস্টের মিশন হচ্ছে এমন একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা যা গনতান্ত্রিক উপায়ে বিনিয়োগ প্রক্রিয়াকে কাজে লাগাবে এবং উদ্যোক্তাদের প্রতিভা বিকাশে সাহায্য করবে এবং সৃষ্টিশীল কাজ করতে অর্থনৈতিক ভাবে সাহায্য করবে। বিজনেস ইনসাইডার নামক একটি প্রতিষ্ঠান এঞ্জেল লিস্টকে নতুন উদ্যোক্তা এবং বিনিয়োগকারীদের জন্য Match.com এর খেতাব দিয়েছেন। সাম্প্রতিককালে নাভাল রবিকান্ত একটি সাক্ষাতকারে বলেন যে তিনি আরো নতুন কিছু চান, নতুন আইডিয়া, নতুন সৃষ্টিশীলতা এবং এটার জন্য তারা স্টার্টআপদের অর্থ, প্রতিভা এবং ক্রেতা দিয়ে সাহায্য করবেন।

এঞ্জেললিস্টের একটি অনলাইন ভিত্তিক ইনট্রোডাকশ বোর্ড আছে এবং এঞ্জেল ইনভেস্টরদের কিছু সিন্ডিকেট আছে। তাছাড়া এঞ্জেললিস্ট চাকরি খুুঁজছে এমন ব্যক্তিদের যোগ্যতা অনুযায়ী বিভিন্ন বিজনেস কোম্পানির অধীনে চাকরির ব্যবস্থা করে দেয়। ২০১৩ সালে SEC এর কাছ থেকে এঞ্জেললিস্ট একটি চিঠি পায়। ফাউন্টারস ক্লাবও একই সময় একই ধরনের একটি চিঠি পায়। এই চিঠিতে এঞ্জেললিস্ট সিন্ডিকেট কে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল এবং এঞ্জেল বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়।

২০১৭ সালের মধ্যে এঞ্জেললিস্ট এর বিনিয়োগকারীর সংখ্যা দাঁড়ায় ৪৪০০ জনে যারা মোট ১৬৫ টি সিন্ডিকেট তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। এঞ্জেললিস্ট মূলত ২০০৯-১০ সালের দিকে বিনিয়োগকারী, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তাদের জন্য গতানুগতিক ধারার বাহিরে ভিন্নধর্মী একটি ব্যবস্থা চালু করেছিলো যা পরবর্তীতে বিনিয়োগকারীদের আস্থার জায়গা হয়ে ওঠে।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker