জাতীয়

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারকেই সমস্যা সমাধান করতে হবে

কক্সবাজার: রোহিঙ্গারা মিয়ানমার থেকে এসেছে, তাই যে সমস্যা তৈরি হয়েছে তা মিয়ানমারকেই সমাধান করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রতিনিধি দল।

রোববার দুপুরে কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন।

তাদের ভাষ্য, রোহিঙ্গাদের অবশ্যই ফেরত যেতে ও নিরাপদ জীবন দিতে হবে। তবে এই প্রক্রিয়ায় কিছু সময় লাগতে পারে।

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান গুস্তাভো মেজার চুয়াদ্রা’র নেতৃত্বে ১৫ সদস্যের প্রতিনিধি দলে রয়েছেন চীন, রাশিয়া, যুক্তরাজ্যসহ বেশ কয়েকটি দেশের কূটনীতিকরা।

সংবাদ সম্মেলনে রাশিয়া, চীনসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা বক্তব্য রাখেন। এসময় রোহিঙ্গারা যাতে স্বেচ্ছায় নিরাপদে নিজ দেশে ফিরে যেতে পারে সেই লক্ষ্যে কাজ করার অঙ্গীকার করেছেন নিরাপত্তা পরিষদের প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। এর আগে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেন সফরকারীরা।

সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেন, এ সফর রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

রোহিঙ্গাদের দুর্দশা দেখার পর সংবাদ সম্মেলনে যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধি পিয়ার্স বলেন, আমরা এখান থেকে মিয়ানমারে যাবো। তাদের কাছ থেকে শুনতে চাইবো, সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে কীভাবে যুক্ত হতে পারে তারা। এদিকে রোহিঙ্গা সংকট মোকাবিলায় আমরা নিরাপত্তা পরিষদে সমর্থন দেওয়ার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করবো ও রোহিঙ্গাদের উপকারে আসে এমন সিদ্ধান্ত নেবো।

প্রতিনিধি দলের আরেক সদস্য পেরুর গুস্তাভো মেজা কোয়াদ্রার মন্তব্য,আমরা এই শরণার্থী সংকট দেখে খুব উদ্বিগ্ন। আমরা এই পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। রোহিঙ্গাদের জন্য যেন কিছু করতে পারি, তাই সমস্যাটিকে আরও ভালোভাবে জানার জন্য আমরা এখানে এসেছি।

কুয়েতের প্রতিনিধি মনসুর আল উতাইবি আশ্বাস দিলেন, আমরা এখান থেকে মিয়ানমারে যাবো ও সেখান থেকে নিউইয়র্কে ফিরে বিষয়টি নিয়ে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আলোচনা করবো। তবে আমরা এমন কোনও প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি না যে, আমরা দ্রুত কোনও ব্যবস্থা নেবো।

এর আগে শনিবার নিরাপত্তা পরিষদের প্রতিনিধি দল কুয়েত থেকে সরাসরি কক্সবাজারে আসে। গতকাল রাতে সরকারের সঙ্গে তাদের একটি বৈঠক হয়। রোববার সকালে জিরো পয়েন্ট সীমান্তে আটকে পড়া রোহিঙ্গাদের দেখতে যান তারা। এরপর আসেন কুতুপালং ক্যাম্পে। সেখানে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের দুটি প্রেজেন্টেশন দেখানো হয়। এরপর তারা রোহিঙ্গাদের কথা শোনেন। তবে সেখানে কোনও সরকারি কর্মকর্তারা ছিলেন না।

বিকালে প্রতিনিধি দলটি ঢাকায় আসবে। আগামীকাল সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের পর মিয়ানমারের উদ্দেশে রওনা দেবেন তারা।

নতুন বার্তা/কেকে

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker