জাতীয়

এই সেই জাকারিয়া ! যার দক্ষতায় বেঁচে গেলো শত যাত্রীর প্রাণ!

ঢাকা: ১৭১ জন যাত্রীর জীবন বাঁচিয়ে জাতীয় বীরে পরিণত হয়েছেন ক্যাপ্টেন জাকারিয়া। তার নাম এখন সবার মুখে মুখে। তিনি ইউএস-বাংলার বিএস-১৪১ ফ্লাইটের পাইলট ক্যাপ্টেইন জাকারিয়া। প্রচণ্ড মানসিক চাপের মুখে নিজেকে সংযত রেখে ক ৭৩৭ মডেলের বোয়িং বিমানটি নিরাপদে অবতরণ করিয়েছেন।
এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানান ক্যাপ্টেন জাকারিয়া!

তিনি বলেন, ‘প্রশিক্ষণ থাকলেও জরুরি অবস্থা মোকাবেলায় অবশ্যই পাইলটের কিছু কৌশল থাকে। আমি চেষ্টা করেছি, যতখানি নিরাপদ থাকা সম্ভব এবং কোনো ধরনের ক্ষতি যাতে না হয়। সবার নিরাপত্তার কথা চিন্তা করেই ল্যান্ডিংয়ের চেষ্টা করেছি।’

‘ল্যান্ডিং করতে না পারলে কৌশল হচ্ছে ফুয়েল (তেল) কমাতে হবে। এ সময় ফুয়েল যত কমানো যায় ততই সেফ। ল্যান্ডিংয়ের সময় যদি আগুন লাগে, ফুয়েল না পেলে আগুনের তীব্রতা থাকবে না। এছাড়া এয়ারক্রাফট যতো হালকা থাকবে ঘর্ষণও কম হবে। তাই তেল কমানোর চেষ্টা করেছিলাম।’
, ‘আমার প্রধান দায়িত্ব ছিল, যাত্রীদের কীভাবে সুস্থ ও নিরাপদে নিচে নামানো যায়। সেটাই করেছি। মাথায় যদি অন্য কিছু আনি তাহলে এদিকে মনোযোগ দিতে পারতাম না।’
উল্লেখ্য,ঢাকা থেকে কক্সবাজারগামী ইউএস বাংলার বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজ যান্ত্রিক ক্রুটির কারণে চট্টগ্রামে জরুরি অবতরণ করেছে। তবে এর ১৬৪ যাত্রী ও ৭ ক্রু নিরাপদে আছেন। এতে বিমানের বেশ ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে ফ্লাইট ওঠা-নামা বন্ধ আছে।
চট্টগ্রাম বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, বেলা সাড়ে এগারোটায় ঢাকা থেকে ইউএস বাংলার ফ্লাইটটি কক্সবাজারের উদ্দেশে যাত্রা করে। কিছুক্ষণ পর চাকায় ত্রুটি ধরা পড়লে চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে পাইলট অত্যন্ত দক্ষতার সাথে জরুরী অবতরণ করে বিমানটি।এতে বেঁচে যায় ১৭১ যাত্রীর জীবন।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker