জাতীয়হোমপেজ স্লাইড ছবি

মা দিবসের ইতিবৃত্ত

মিজানুর রহমান টিপু: পৃথিবীতে সবচেয়ে মধুরতম শব্দ ‘মা’। সবচেয়ে প্রিয়, পবিত্র, সর্বজনীন শব্দ মা। মা শব্দটি উচ্চারণের সঙ্গে সঙ্গে অন্যরকম এক আবেগ-অনুভূতির জন্ম হয় হৃদয়ের অতল গহিনে। মা শব্দটি ছোট হলেও এর পরিধি বিশাল। মায়ের ভালোবাসার ক্ষমতা বিজ্ঞানের মাপকাঠিতেও নির্ণয় করা সম্ভব নয়। পৃথিবীর সব দেশেই এই মা শব্দটিই কেবল সর্বজনীন। মাকে ঘিরেই পরিবারের স্বাভাবিক বিকাশ সাধিত হয়। পরিবারে মা হচ্ছেন এক স্বর্গীয় বিস্ময়কর প্রতিষ্ঠান।

মে মাসের দ্বিতীয় রবিবার সারা বিশ্বেই নানা আয়োজনে সন্তানরা উদযাপন করেন মা দিবস। মা দিবসের প্রচলন হয় যুক্তরাষ্ট্রে। দিবসটির প্রবক্তা আনা মারিয়া রিভস জার্ভিস। তাঁর মা অ্যান মারিয়া রিভস জার্ভিস ছিলেন একজন শান্তিবাদী সমাজকর্মী। তিনি ‘মাদারস ডে ওয়ার্ক ক্লাব’ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

১৯০৫ সালে অ্যান মারা যান। তাঁর মৃত্যুর পর মেয়ে আনা মায়ের স্বপ্ন পূরণে কাজ শুরু করেন। সব মাকে শ্রদ্ধা জানাতে একটি দিবস প্রচলনের লক্ষ্যে সচেষ্ট হন তিনি।

১৯০৮ সালে পশ্চিম ভার্জিনিয়ার একটি গির্জায় আনা তাঁর মায়ের স্মরণে অনুষ্ঠান করেন। একই বছর মার্কিন কংগ্রেস মা দিবসকে স্বীকৃতি দিয়ে সরকারি ছুটি ঘোষণার প্রস্তাব নাকচ করে। তবে তাতে দমে যাননি আনা। তিনি তাঁর চেষ্টা অব্যাহত রাখেন। ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে মা দিবস পালিত হতে থাকে।

অবশেষে আনার প্রচেষ্টা সফল হয়। ১৯১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট উড্রো উইলসন মে মাসের দ্বিতীয় রোববারকে মা দিবস হিসেবে ঘোষণা করেন। দিনটি সরকারি ছুটি ঘোষিত হয়। যুক্তরাষ্ট্রের দেখাদেখি পরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মে মাসের দ্বিতীয় রোববার মা দিবস হিসেবে পালিত হতে থাকে।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker