ফেরাকে স্মরণীয় করলেন মালিঙ্গা | outside-dhaka | natunbarta.com | Top Online Newspaper in Bangladesh
বুধবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৭
webmail
Fri, 17 Feb, 2017 08:17:38 PM
নতুন বার্তা ডেস্ক

কেনবেরা: দীর্ঘদিন ধরে ছিলেন মাঠের বাইরে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছেন প্রায় এক বছর পর। সেটাও আবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে, অস্ট্রেলিয়ারই মাটিতে। জয় দিয়ে যে এই প্রত্যাবর্তনটা স্মরণীয় করে রাখতে পারবেন, তা হয়তো অনেকেই ভাবতে পারেননি। তবে শেষপর্যন্ত ফেরাটা সত্যিই দারুণ হলো মালিঙ্গার। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কা পেয়েছে ৫ উইকেটের জয়। বল হাতে দুটি উইকেট নিয়ে মালিঙ্গাও বড় অবদান রেখেছেন দলের জয়ে।

১৬৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কার শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি। প্রথম ওভারেই হারিয়েছিল অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গার উইকেট। তবে দ্বিতীয় উইকেটে ৭৪ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক ধাক্কাটা সামলে নিয়েছিলেন আরেক ওপেনার নিরোশান ডিকওয়েলা (৩০) ও দিলশান মুনাবিরা (৪৪)।

টানা দুই ওভারে এই দুজনকেই আউট করে অস্ট্রেলিয়ান শিবিরে আবার আশা জাগিয়েছিলেন লেগস্পিনার অ্যাডাম জামপা। তবে এরপর অজি বোলারদের আর কোনো সুযোগ দেননি আসেলা গুনারত্নে ও মিলিন্দা সিরিবর্ধনে। চতুর্থ উইকেটে ৩৯ বলে ৬০ রানের ঝড়ো জুটি গড়ে প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছিলেন দলের জয়। গুনারত্নের ব্যাট থেকে এসেছে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫২ রান।

এর আগে শুক্রবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে অ্যারন ফিঞ্চের ৪৩, মাইকেল ক্লিঙ্গারের ৩৮, ট্রাভিস হেডের ৩১ রানের ইনিংসগুলোতে ভর করে স্কোরবোর্ডে ১৬৮ রান জমা করেছিল স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া।

দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে নেমে দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছেন মালিঙ্গা। তিনিই ছিলেন শ্রীলঙ্কার সবচেয়ে সফল বোলার। ৪ ওভার বল করে ২৯ রানের বিনিময়ে নিয়েছেন দুটি উইকেট।

আজকের আগে মালিঙ্গা সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচটি খেলেছিলেন ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে, আরব আমিরাতের বিপক্ষে। তার পর থেকে ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরেই থাকতে হয়েছে ডানহাতি এই পেসারকে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুটি উইকেট নিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের চতুর্থ বোলার হিসেবে ৮০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়েছেন মালিঙ্গা। তাঁর সামনে আছেন শুধু তিন পাকিস্তানি ক্রিকেটার। সাঈদ আজমল ও উমর গুল; দুজনেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে নিয়েছেন ৮৫ উইকেট। আর ৯৭ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে আছেন শহীদ আফ্রিদি।

নতুন বার্তা/এইচএস


Print
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ


শিরোনাম
Top