মঙ্গলবার, ২৩ মে ২০১৭
webmail
Sat, 18 Mar, 2017 09:12:42 AM
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
নতুন বার্তা ডটকম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জহুরুল ইসলাম সরকার ওরফে কালা জহির (৩৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।
 
শনিবার ভোর ৪টার দিকে উপজেলার তৈয়দাবাদ এলাকার হাজীপুর গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধ হয়।
 

পুলিশের দাবি, সহযোগীদের গুলিতেই জহির নিহত হয়েছেন। তার নামে আইনমন্ত্রীর বাড়িতে ডাকাতিসহ ৬টি মামলা রয়েছে।
 
নিহত জহির উপজেলার কামালপুরের বসুমিয়া সরকারের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন বলেও জানানো হয়েছে।
 
কসবা থানার ওসি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন জানান,  শুক্রবার সকালে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি জহিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার দেয়া তথ্যে শনিবার ভোরে ওই এলাকায় অভিযানে যায় পুলিশ।
 
এ সময় হাজীপুর গ্রামের মেম্বারের বাড়ির সামনে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা জহিরের সহযোগিরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।
 
এ সময় বেশ কিছুক্ষণ উভয়পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ হয়। এক পর্যায়ে পালাতে গিয়ে সহযোগীদের গুলিতে ঘটনাস্থলেই জহিরের মৃত্যু হয়।
 
ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, চার রাউন্ড গুলি, ১৬টি ককটেলসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।
 
এ ঘটনায় এসআই মুনিরসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানান ওসি।

নতুন বার্তা/ওএফএস


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top