ঢাকার বাইরে

দু’দেশের মানুষের মিলন মেলায় পরিনত হয়

মিরসরাই: আমাদের দেশে অনেকে আছেন যারা ভারতীয় পণ্য পছন্দ করেন। আবার অনেক ভারতীয় আছেন বাংলাদেশের পন্য পেলেই আনন্দের মেতে উঠেন। সে সকল মানুষের মিলনমেলা ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলায় অবস্থি ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত বাজার। আপনি চাইলে ভারতীয় যেকোন পন্য অনায়াশে কিনতে পারবেন। আর তার জন্য প্রয়োজন হবে জাতীয় পরিচয়পত্র। জাতীয় পরিচয়পত্র দেখিয়ে ২০ টাকা মূল্যে টিকেট নিয়ে বাজারে প্রবেশ করতে হবে। বাংলাদেশিরা তাদের ভোটার আইডি কার্ড দেখিয়ে নির্দিষ্ট রেজিষ্ট্রারে নাম, বয়স ও স্বাক্ষর করে ভেতরে প্রবেশের অনুমতি পাবেন। জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকলে জন্ম নিবন্ধন কিংবা বিদ্যালয়ের আইডি কার্ড দেখিয়ে প্রবেশ করতে পারবে। মিরসরাইয়ের সীমান্তবর্তী করেরহাট ইউনিয়নের পাশবর্তী ছাগলনাইয়ার রাধানগর গ্রামে অবস্থিত বাংলাদেশ ভারতের তৃতীয় সীমান্তহাট। সপ্তাহের মঙ্গলবার হাট বসে। হাটে রয়েছে দুই দেশের ৫০টি দোকান।

গত মঙ্গলবার সরেজমিনে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত হাটে গিয়ে দেখা যায়, ভেতরে দু’দেশের শত শত মানুষ ওই হাটে বিকিকিনি করছে। কেউ পণ্য দেখছে, কেউ ঘুরে ঘুরে সেলফি তুলছে। যেন একটি পর্যটন এলাকা। বাংলাদেশিরা হিন্দিতে কথা বলে ভারতীয়দের সাথে ঠাট্টা করছে। ভারতীয়রাও খুব আনন্দের সাথে তা গ্রহণ করছে। ৫০টি দোকানের মধ্যে ২৫টি বাংলাদেশে। অন্য ২৫টি ভারতীয়দের। তবে ভারতীয়দের দোকানে বিকিকিনি বেশি দেখা গেছে। বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা মাছ, শুটকিসহ বিভিন্ন দেশিয় পণ্যের পসরা সাজিয়েছেন। ভারতীয় দোকানে বেশি বিক্রি হচ্ছে শিশুদের প্রেমপাস, হরলিক্স, জিরা, চা-পাতা। কেহ চাইলে টাকা বাট্টা করে নিতে পারে বাজারের ভেতরে অবস্থিত মানি এক্সচেঞ্জ অফিসে। বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত হাটে কঠোর নিরাপত্তা রয়েছে। বাংলাদেশ গেইটে দায়িত্ব পালন করছেন বিজিবি ও

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker