ঢাকার বাইরে

নিখোঁজের ৩ দিন পর নববধুরমৃতদেহ উদ্ধার, স্বামী আটক

নাটোর: নিখোঁজের তিন দিন পর নাটোরের গুরুদাসপুর থেকে মিম আক্তার (১৫) নামে এক নববধুর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে মিম আক্তারের স্বামী সহ ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার ঝাউপাড়া গ্রামের তার শ্বশুড় বাড়ীর পাশের একটি বাঁশ ঝাড় থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত মিম আক্তার উপজেলার হামলাইকোল গ্রামের মনিরুল ইসলামের মেয়ে।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলিপ কুমার দাস ও স্থানীয়রা জানান, গত ২২ মার্চ উপজেলার ঝাউপাড়া গ্রামের তৌহিদুর রহমানের ছেলে ফরহাদ হোসেনের সাথে হামলাইকোল গ্রামের মনিরুল ইসলামের মেয়ে মিম আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের দুই দিন পর গত ২৪ মার্চ মিমের বাবা মিমের শ্বশুড়বাড়ীতে মিমকে দেখতে যায়। কিন্তু সেখানে মিমের সাথে তার দেখা হয়না এবং পরিবারের লোকজন এলোমেলো কথা বলতে শুরু করে। পরে বিষয়টি তার কাছে সন্দেহ হলে তিনি এঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মিম আক্তারের স্বামী ফরহাদ হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ফরহাদ হোসেন মিমকে গলা টিপে হত্যার পর বাড়ীর পাশে বাঁশ ঝাড়ে পুতে রেখেছে বলে স্বীকারোক্তি দেয়। পরে তার দেওয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাটি খুড়ে মিম আক্তারের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পরে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ফরহাদ হোসেন সহ ৪ জনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, মিম আক্তারের স্বামী ফরহাদ হোসেন (১৮) ফরহাদ হোসেনের প্রথম স্ত্রী বড়াইগ্রাম উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের ইমা খাতুন, ফরহাদ হোসেনের প্রথম পক্ষের শ্বশুড় তফের উদ্দিন (৪৫) ও শ্বাশুড়ী শুকজান বেগম (৩৫)।

নতুন বার্তা/কেকে

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker