শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭
webmail
Mon, 11 Sep, 2017 11:32:26 AM
নতুন বার্তা ডেস্ক

বার্লিন: খবরটা শিরোনাম পড়ে চোখ কপালে উঠলেও এটাই সত্যি! ৩৮ বছরের পুলিস অফিসার বিবিয়ানা স্টেইনহাস প্রথম মহিলা রেফারি হিসেবে শনিবার বুন্দেশলিগায় হার্থা বার্লিন-ওয়েডার ব্রেমেন ম্যাচ পরিচালনা করলেন তিনি৷ এই ম্যাচ পরিচালনা করে ইতিহাসও গড়লেন বছর ৩৮ এই পুলিস অফিসার৷

ছেলেদের ম্যাচে মহিলা রেফারি দায়িত্ব পালন করবেন, ব্যাপারটা অনেকের কাছে একটু ‘অন্যরকম’৷শুধু তাই নয়, ম্যাচ পরিচালনা করতে গিয়ে অনেক সময় তীর্যক মন্তব্যও শুনতে হয়েছে বেশ কয়েকজন মহিলা রেফারিকে৷ কিন্ত ৩৮ বছরের পুলিস অফিসার অবশ্য এসবকে পাত্তাই দেননি৷

এই মরশুমের শুরু থেকেই এই মহিলা রেফারিকে বুন্দেশলিগা কমিটি তাদের তালিকায় রেখেছিন৷ বছরখানেক বায়ার্ন মিউনিখ ম্যাচে চতুর্থ রেফারির দায়িত্ব পালন করেছিলেন স্টেইনহাস৷ তৎকালিন বায়ার্ন মিউনিখ কোচ পেপ গুয়ার্দিওয়ালার সাথে কথা কাটাকাটি হয়েছিল স্টেইনহাসের৷ তাঁর কাঁধে হাত দেওয়ায় সমালোচনার মুখে প্রতে হয়েছিল গুয়ার্দিওয়ালাকে৷ ২০১৫ ফরচুনা মিডফিল্ডার কেরেন ডেমিরবেয় লাল কার্ড দেখে দেখে বেরিয়ে যাওয়ার সময় তাঁকে বলেছিলেন, ‘ছেলেদের ফুটবলে মেয়ের কোনো জায়গা নেই!’ এদিন ম্যাচ পরিচালনা করে তিনি প্রমান দিলেন পুরুষদের থেকে কোনও অংশে কম নন৷

২০০৭ থেকে রেফারিং করছেন স্টেইনহাস৷ এই বছর মহিলাদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল ও ২০১২ অলিম্পিকে মহিলাদের ফুটবল ফাইনালে ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন তিনি৷ জার্মান লিগের দ্বিতীয় ডিভিশনে ৮০টি ম্যাচে দায়িত্ব পালন করেছেন ৩৮ বছর বয়সী স্টেইনহাস৷ বুন্দেসলিগায়ও দারুণ পারফর্ম করবেন বলেই আশাবাদী লিগের সভাপতি রেইনহার্ড গ্রিন্ডেল৷ তিনি বলেন,‘আশা করি বুন্দেসলিগার প্রথম মহিলা রেফারি হিসেবে সে অনেক তরুণীকে উজ্জীবিত করবে৷ ওর জন্য শুভকামনা রইল৷’
নতুন বার্তা/এমআর
 


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top