বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
webmail
Mon, 29 Jan, 2018 06:23:57 AM
নতুন বার্তা ডেস্ক
বার্সা: পিছিয়ে থেকে ম্যাচে শেষ পর্যন্ত মেসির দর্শনীয় ফ্রি-কিকে জয় তুলে নিয়েছে বার্সেলোনা।
 
রোববার রাতে ২-১ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। প্রথম লেগে আলাভেসের মাঠ থেকে ২-০ গোলে জিতে এসেছিল ভালভার্দের দল। এই জয়ে ২১ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষস্থান আরও সুসংহত করল কাতালানরা।
 
ন্যু ক্যাম্পে মান বাঁচানো শেষ আধাঘণ্টায় লিওনেল মেসির সঙ্গে গোল করেছেন ফর্মে থাকা লুইস সুয়ারেজ। আর প্রথম আধাঘণ্টায় বার্সাকে চাপে ফেলে দেয়া অতিথিদের গোলটি জন গিডেত্তির।
 
এদিন শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে আলাভেস। স্বাগতিক গোলরক্ষক মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেনের চেষ্টার মুখে ১৬ মিনিটে পাল্টা-আক্রমণে গড়া প্রচেষ্টাটি ভেস্তে যায় অতিথিদের।
 
তবে শুরুতে এগিয়ে যায় অতিথিরাই। ম্যাচের ২৩ মিনিটে স্বাগতিক দর্শকদের স্তব্ধ করে দেন গিডেত্তি। গোমেজের লম্বা পাসে বল পেয়ে গোল করেন এই সুইডিশ। তিন মিনিট পর রুবেনের চেষ্টায় দেয়াল হয়ে দাঁড়ান সেই টের স্টেগেন।
 
বার্সাও সুযোগ তৈরি করছিল। ৩০ মিনিটে মেসির বানিয়ে দেয়া বল কাজে লাগাতে পারেননি সুবিধাজনক স্থানে থাকা আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা।
 
 
বার্সার জার্সিতে প্রথমবারের মত শুরুর একাদশে নামা ফিলিপে কৌতিনিহো ৩৩ মিনিটে মেসির বানিয়ে দেয়া বল কাজে লাগাতে পারেননি। পরে মেসির দর্শনীয় ফ্রি-কিক ঠেকিয়ে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যাওয়া নিশ্চিত করেন আলাভেস গোলরক্ষক ফার্নান্দো।
 
মধ্যবিরতির পরও প্রতিপক্ষের জালমুখ খুলতে পারছিল না বার্সা। ৬০ মিনিটে আলবার ক্রস বক্সের সামান্য বাইরে পেয়েও লক্ষ্যে রাখতে পারেননি মেসি। ৬৮ মিনিটে মেসির ক্রসে বল পেয়ে গোলরক্ষকে আটকা পড়েন সুয়ারেজ। ৭০ মিনিটে আবারও দেয়াল ফার্নান্দো, এবার আটকে যান পাউলিনহো।
 
 
বার্সার কাঙ্ক্ষিত গোলটি আসে ৭২ মিনিটে। জটলার মধ্য থেকে কোনাকুনি ভলিতে জাল খুঁজে নেন সুয়ারেজ। জানুয়ারিতে বার্সার জার্সিতে সেরা খেলোয়াড়ের ট্রফি নিয়ে নেমেছিলেন। চলতি লিগে নিজের ১৬তম গোলটি করে আরেকবার ত্রাতা হলেন উরুগুয়ে তারকা।
 
তবে গোলটির কারিগর হিসেবে ইনিয়েস্তার কৃতিত্বও থাকল বেশি করেই। মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে বাঁ-প্রান্ত দিয়ে বুলেট গতিতে দৌড়ে কয়েকজনকে কাটিয়ে লাইন ছুঁইছুঁই মুহূর্তে যেভাবে বলটি বানিয়ে দিয়েছেন তিনি, সেটি গোলে রূপান্তরিত না হলে অন্যায্যই হত! মৌসুমে এ ম্যাচে এসেই প্রথমবার টানা ৯০ মিনিট মাঠে থাকার সুযোগ পেয়েছেন বার্সার বহু যুদ্ধের সেনানী।
 
 
মেসি এদিন ন্যু ক্যাম্পে নিজের ২০০তম লা লিগা ম্যাচে খেলতে নেমেছিলেন। এই সংখ্যক ম্যাচে ২১২তম গোলটি করে উপলক্ষ স্মরণীয় করে রাখার পাশাপাশি দলকে পূর্ণ পয়েন্ট এনে দিতে সাহায্য করেছেন। ম্যাচের ৮৪ মিনিটে তার দুর্দান্ত ফ্রি-কিকে আসে গোলটি। ২২ গজ দূর থেকে নেয়া কিকটি চলতি লিগে আর্জেন্টাইন অধিনায়কের ২০ গোলে রূপান্তরিত হয়।
 
যদিও আলকাসেরকে ফাউলের জন্য দেয়া ফ্রি-কিকের রিপ্লেতে দেখা গেছে ফাউলের মুহূর্তে আলকাসের অফসাইডেই ছিলেন। সেটি অবশ্য রেফারির দায়, মেসির বাঁকানো কিকটির কৃতিত্ব তাতে কমছে না মোটেই। বিতর্ক থাকবে আরও একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে। ৮৭ মিনিটে বার্সার ধারের খেলোয়াড় মুনির এল হাদ্দাদির শট স্বাগতিক বক্সে স্যামুয়েল উমতিতির হাতে লাগলেও রেফারির চোখ এগিয়ে যায়।
নতুন বার্তা/এমআর
নতুন বার্তা ডেস্ক
 
বার্সা: পিছিয়ে থেকে ম্যাচে শেষ পর্যন্ত মেসির দর্শনীয় ফ্রি-কিকে জয় তুলে নিয়েছে বার্সেলোনা।
 
রোববার রাতে ২-১ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। প্রথম লেগে আলাভেসের মাঠ থেকে ২-০ গোলে জিতে এসেছিল ভালভার্দের দল। এই জয়ে ২১ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষস্থান আরও সুসংহত করল কাতালানরা।
 
ন্যু ক্যাম্পে মান বাঁচানো শেষ আধাঘণ্টায় লিওনেল মেসির সঙ্গে গোল করেছেন ফর্মে থাকা লুইস সুয়ারেজ। আর প্রথম আধাঘণ্টায় বার্সাকে চাপে ফেলে দেয়া অতিথিদের গোলটি জন গিডেত্তির।
 
এদিন শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে আলাভেস। স্বাগতিক গোলরক্ষক মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেনের চেষ্টার মুখে ১৬ মিনিটে পাল্টা-আক্রমণে গড়া প্রচেষ্টাটি ভেস্তে যায় অতিথিদের।
 
তবে শুরুতে এগিয়ে যায় অতিথিরাই। ম্যাচের ২৩ মিনিটে স্বাগতিক দর্শকদের স্তব্ধ করে দেন গিডেত্তি। গোমেজের লম্বা পাসে বল পেয়ে গোল করেন এই সুইডিশ। তিন মিনিট পর রুবেনের চেষ্টায় দেয়াল হয়ে দাঁড়ান সেই টের স্টেগেন।
 
বার্সাও সুযোগ তৈরি করছিল। ৩০ মিনিটে মেসির বানিয়ে দেয়া বল কাজে লাগাতে পারেননি সুবিধাজনক স্থানে থাকা আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা।
 
 
বার্সার জার্সিতে প্রথমবারের মত শুরুর একাদশে নামা ফিলিপে কৌতিনিহো ৩৩ মিনিটে মেসির বানিয়ে দেয়া বল কাজে লাগাতে পারেননি। পরে মেসির দর্শনীয় ফ্রি-কিক ঠেকিয়ে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যাওয়া নিশ্চিত করেন আলাভেস গোলরক্ষক ফার্নান্দো।
 
মধ্যবিরতির পরও প্রতিপক্ষের জালমুখ খুলতে পারছিল না বার্সা। ৬০ মিনিটে আলবার ক্রস বক্সের সামান্য বাইরে পেয়েও লক্ষ্যে রাখতে পারেননি মেসি। ৬৮ মিনিটে মেসির ক্রসে বল পেয়ে গোলরক্ষকে আটকা পড়েন সুয়ারেজ। ৭০ মিনিটে আবারও দেয়াল ফার্নান্দো, এবার আটকে যান পাউলিনহো।
 
বার্সার কাঙ্ক্ষিত গোলটি আসে ৭২ মিনিটে। জটলার মধ্য থেকে কোনাকুনি ভলিতে জাল খুঁজে নেন সুয়ারেজ। জানুয়ারিতে বার্সার জার্সিতে সেরা খেলোয়াড়ের ট্রফি নিয়ে নেমেছিলেন। চলতি লিগে নিজের ১৬তম গোলটি করে আরেকবার ত্রাতা হলেন উরুগুয়ে তারকা।
 
তবে গোলটির কারিগর হিসেবে ইনিয়েস্তার কৃতিত্বও থাকল বেশি করেই। মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে বাঁ-প্রান্ত দিয়ে বুলেট গতিতে দৌড়ে কয়েকজনকে কাটিয়ে লাইন ছুঁইছুঁই মুহূর্তে যেভাবে বলটি বানিয়ে দিয়েছেন তিনি, সেটি গোলে রূপান্তরিত না হলে অন্যায্যই হত! মৌসুমে এ ম্যাচে এসেই প্রথমবার টানা ৯০ মিনিট মাঠে থাকার সুযোগ পেয়েছেন বার্সার বহু যুদ্ধের সেনানী।
 
মেসি এদিন ন্যু ক্যাম্পে নিজের ২০০তম লা লিগা ম্যাচে খেলতে নেমেছিলেন। এই সংখ্যক ম্যাচে ২১২তম গোলটি করে উপলক্ষ স্মরণীয় করে রাখার পাশাপাশি দলকে পূর্ণ পয়েন্ট এনে দিতে সাহায্য করেছেন। ম্যাচের ৮৪ মিনিটে তার দুর্দান্ত ফ্রি-কিকে আসে গোলটি। ২২ গজ দূর থেকে নেয়া কিকটি চলতি লিগে আর্জেন্টাইন অধিনায়কের ২০ গোলে রূপান্তরিত হয়।
 
যদিও আলকাসেরকে ফাউলের জন্য দেয়া ফ্রি-কিকের রিপ্লেতে দেখা গেছে ফাউলের মুহূর্তে আলকাসের অফসাইডেই ছিলেন। সেটি অবশ্য রেফারির দায়, মেসির বাঁকানো কিকটির কৃতিত্ব তাতে কমছে না মোটেই। বিতর্ক থাকবে আরও একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে। ৮৭ মিনিটে বার্সার ধারের খেলোয়াড় মুনির এল হাদ্দাদির শট স্বাগতিক বক্সে স্যামুয়েল উমতিতির হাতে লাগলেও রেফারির চোখ এগিয়ে যায়।
 
নতুন বার্তা/এমআর
 

Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top
    close