খেলা

ডিম ছোড়াও খেলা, আছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপও

বৃটেন: পারফর্মাররা অনেক সময় ভয়ে ভয়ে থাকেন। সে ফুটবলার, ক্রিকেটার হোক বা গায়ক। কেননা খারাপ পারফরম্যান্স হলেই দর্শকের তরফে ডিম ছোড়ার ভয় থাকে। যদিও তা কোনওভাবেই কাম্য নয়। অর্থাৎ আমাদের দেশে এ কাজ খারাপ হিসেবেই গণ্য করা হয়। কিন্তু জানেন কি, ডিম ছোড়াও একটা সত্যিকার খেলা? এবং এই ডিম ছোড়া খেলার বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপও আছে।

অবাক হওয়ার মতো বিষয়ই বটে। তবে এ খেলা ভুঁইফোড় নয়। একদা বৃটেনে এই ডিম ছোড়ার চল ছিল। তবে তা আনন্দের মুহূর্তে। ইস্টারের সময় ডিম ছুড়ে সেলিব্রেট করা হত। পরবর্তীকালে এটি একটি খেলার রূপ নয়। মজার মোড়কটা এখনও আছে, তবে তার উপর পড়েছে প্রতিযোগিতার রূপ। হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও ডিম ছোড়া খেলা ইউরোপের কোনও কোনও অংশে আছে বহাল তবিয়তে। এবং সে খেলার বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপও আছে। কীভাবে খেলা হয় এটি? মূলত দুটি ভাগে ভাগ হয়ে একে অন্যের দিকে ডিম ছুড়তে থাকেন। যদি একজনের ছোড়া ডিম অন্যদলের কেউ ধরে নেন তাহলে তিনি পালটা আবার বিপক্ষের দিকে ডিম ছোড়েন। এভাবেই খেলা এগোতে থাকে। আবার সেয়ানে-সেয়ানে খেলাও হয়। অর্থাৎ কে কটা ডিম একেবারে মাথায় ভাঙতে পারেন এরকম খেলার ধরনও দেখা গিয়েছে। মহিলারাও এ খেলায় অংশ নেন। পরিসংখ্যান বলছে, ২০১১ সালে প্রায় ২১৩০ জন মানুষ এই ডিম ছোড়া খেলায় অংশগ্রহণ করেছিলেন। সংখ্যাটি নেহাত কম নয়।

ওয়ার্ল্ড এগ থ্রোয়িং ফেডারেশনও আছে। এই সংস্থার উদ্যোগেই ডিম ছোড়া খেলার বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়। ২০০৬ সাল থেকেই এই চ্যাম্পিয়নশিপের শুরু। প্রতি বছর জুন মাসের শেষ রোববার ইংল্যান্ডের সোয়াটনে এই চ্যাম্পিয়নশিপের আসর বসে। সুতরাং এই খেলা নিয়ে যে বিশ্বের একশ্রেণির মানুষের দেদার আগ্রহ তা বোঝা যাচ্ছে। তবে সংখ্যাগরিষ্ঠমানুষ এখনও প্লেটের উপরই ডিম পছন্দ করেন। ছোড়াছুড়িতে ততটা মন নেই। ফলে ইউরোপের ওই বিশেষ কয়েকটি অঞ্চল ছাড়া এই খেলার তেমন কোনও চল নেই।

নতুন বার্তা/এমআর

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker