খেলা

নেইমারকে বিশ্বকাপে পেতেই কী ‘চোট’ নাটক ব্রাজিলের?

প্যারিস: পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। শেষবার ট্রফি এসেছিল ২০০২ সালে। মাঝে ২০০৬, ১০ ও ১৪–য় সঙ্গী শুধুই হতাশা। যন্ত্রণা আরও বেড়েছে ঘরের মাঠে গত বিশ্বকাপে। সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে ১–৭ গোলে পরাজয়। যে ম্যাচে চোটের জন্য খেলতে পারেননি রোনাল্ডো, রোনাল্ডিনহোদের উত্তরসূরী নেইমার। কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়া ম্যাচে মারাত্মক চোট পেয়ে চোখের জলে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল ব্রাজিলের পোস্টার বয়কে। কাপ জয়ের সলিলসমাধি ঘটেছিল সেখানেই। আর তিনমাস পরেই রাশিয়া বিশ্বকাপ। ষষ্ঠবারের জন্য কাপ জিততে মরিয়া ব্রাজিল। সেলেকাওদের স্বপ্নের ফেরিওয়ালা এবারও সেই নেইমার। তাঁকে তরতাজা অবস্থায় চাই রাশিয়ায়। সেকারণেই কী ‘চোট’ দেখিয়ে তুলে নেওয়া হল নেইমারকে? প্রশ্নটা উঁকি মারতে শুরু করেছে।

লিগ ওয়ানে অলিম্পিক মার্সেই ম্যাচে ডান পায়ের হাঁটুতে চোট পান নেইমার। কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছাড়তে দেখা গিয়েছিল পিএসজি তারকাকে। দু’দিন পরেই জানানো হয়, নেইমারের চোটের অবস্থা মারাত্মক। অস্ত্রোপচার ছাড়া গতি নেই। তড়িঘড়ি তাঁকে উড়িয়ে আনা হয় ব্রাজিলে। গত শনিবার সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে নেইমারের। ব্রাজিল ফুটবল দলের ডাক্তার বলেই দিয়েছেন, তিনমাস আগে মাঠে ফেরার কোনও সম্ভাবনাই নেই দেশের সেরা ফুটবলারের। সঙ্গে তুলে দিয়েছেন প্রশ্ন, ‘হাতে সময় বড্ড কম। বিশ্বকাপের আগে নেইমার কী সুস্থ হয়ে উঠতে পারবে! এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না।’

অর্থাৎ আবার অনিশ্চয়তার সরণীতে ঢুকে পড়া। ঠিক চারবছর আগে ঘরের মাটিতে সেমিফাইনালে নেইমার মাঠে নামতে পারবেন কিনা তা নিয়ে চাপানউতোড় চলেছিল। শেষমেশ জানা যায় নেইমার নেই সেমিফাইনালে। চার বছর পরেও একই আশঙ্কা ঢুকে পড়েছে ব্রাজিল প্রেমীদের মনে। সোশ্যাল মিডিয়া ছেয়ে গিয়েছে পোস্টে। নেইমার রাশিয়ায় খেলবেন কি খেলবেন না তা নিয়ে ভোটাভুটিও শুরু হয়ে গিয়েছে।সংবাদমাধ্যম

কিন্তু পিএসজির একটি প্রেস রিলিজ অনেক প্রশ্ন তুলে দিয়েছে। নেইমারের ক্লাবের তরফে জানানো হয়েছে, ‘নেইমারের যা চোট তাতে অস্ত্রোপচার না করালেও হত। বিশ্রামের সঙ্গে রিহ্যাবে সুস্থ হয়ে যেতেন নেইমার।’ তাহলে কী বিশ্বকাপে ‘তাজা’ নেইমারকে পাওয়ার জন্যই ফন্দি করল ব্রাজিল? কারণ পিএসজি–র এখনও অনেক ম্যাচ বাকি রয়েছে মরশুমে। মে মাসের আগে মরশুম শেষ হবে না। খেলতে খেলতে ক্লান্ত হয়ে যেতেন নেইমার। তাই ‘চোটের’ বাহানা দেখিয়ে বাকি মরশুম থেকে কী তুলে নেওয়া হল নেইমারকে? অস্ত্রোপচারটাও কী তাহলে একটা বিশেষ পরিকল্পনার অঙ্গ? নেইমারের চোট নিয়ে এমনই প্রশ্ন উঁকি দিল আজকাল ওয়েবডেস্ক এর অন্দরে।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker