খেলা

লিভারপুল এবং বার্সার দুর্দান্ত জয় দিয়ে শুরু

ঢাকা: পিএসজিকে ৩-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ শুরু করেছে লিভারপুল। লিভারপুলের হয়ে গোল করেন ড্যানিয়েল স্টারিজ, জেমস মিলনার ও রবার্তো ফিরমিনো। পিএসজির হয়ে একটি করে গোল করেন মিউনিয়ের ও কিলিয়ান এমবাপ্পে।

পিএসজি তারকা নেইমার হুটহাট দু-একটা ঝলক দেখালেও গোলের দেখা পাননি। ম্যাচে সমান তালেই লড়ে গেছে দুই দল। স্ট্যাট দেখলে তা-ই মনে হবে যে–কারও। লিভারপুলের পায়ে বল ছিল ৫৩ শতাংশ সময়। বাকি সময়ে পিএসজি নিজেদের পায়ে বল রেখে গোলমুখে শট নিয়েছে মাত্র ৯টি, লক্ষ্যে ছিল ৫টি। অন্যদিকে, লিভারপুল গোলমুখে শট নিয়েছে ১৭টি। এর ৭টি ছিল লক্ষ্যে। তবে খেলা যাঁরা দেখেছেন, তাঁরা নিশ্চিতভাবেই লিভারপুলকেই এগিয়ে রাখবেন। পুরো ম্যাচে আধিপত্য ছিল ইংলিশদেরই। তুলনামূলক বিবর্ণ ছিল ফরাসি ক্লাবটি। শুরুতে এগিয়ে থেকে একটা সময়ে পিছিয়ে পড়া লিভারপুল শেষতক জিতেছে ৩-২ গোলের ব্যবধানে।

এদিকে, মঙ্গলবার রাতে নেদারল্যান্ডস লিগ চ্যাম্পিয়ন পিএসভিকে ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যু’তে আতিথিয়েতা জানায় বার্সা।

তবে অতিথিদের একের পর এক গোল বন্যায় ভাসিয়ে দেন স্বাগতিকরা।

ম্যাচের ৩১ মিনিটে নিজের ট্রেডমার্ক ফ্রি-কিকে প্রায় ২২ গজ দূর থেকে গোল করে দলের লিড নেন মেসি। পরে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় বার্সা।

দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের ধার বাড়িয়ে দেয় কাতালান শিবির। এরই ধারাবাহিকতায় ব্যবধান দ্বিগুণ হয় দলটির। ৭৪ মিনিটে প্রায় একক দক্ষতায় জোড়ালো শটে স্কোর শিটে নাম লেখান ফরাসি তারকা দেম্বেলে। এর তিন মিনিট পরেই নিজের দ্বিতীয় গোল করেন মেসি। তবে ৮১ মিনিটে দ্বিতীবার হলুদকার্ড দেখে স্যামুয়েল উমতিতি মাঠ ছাড়লে ১০ জনের দলে পরিণত হয় বার্সা।

যদিও একজন কম নিয়ে খেলেও বার্সাকে দমাতে পারেনি প্রতিপক্ষ পিএসভি। উল্টো ৮৭ মিনিটে নিজেদর হ্যাটট্রিক পূরণ করে নেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি।

ইউরোপ সেরার আসরে এ নিয়ে ১০৩টি গোলের মালিক হলেন পাঁচ বারের ব্যালন ডি‘অর জয়ী।
ম্যাচের বাকি সময় আর কোনো গোল না হলে শেষ পর্যন্ত ৪-০ ব্যবধানের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ভালভার্দের শিষ্যরা।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker