খেলাহোমপেজ স্লাইড ছবি

টেষ্ট ক্রিকেটে নতুন এক বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ২০১৪ সালের পর টেস্টে সিরিজ জয়ের স্বাদ পেল। এর মধ্যে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়াকে টেস্টে হারিয়েছে বাংলাদেশ কিন্তু সিরিজ জিততে পারেনি টাইগারবাহিনী। এমনকি ক’দিন আগে জিম্বাবুয়েও অপেক্ষা বাড়িয়েছে। এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে সিরিজ নিজেদের করে নিলো টাইগাররা।

স্বাগতিক বাংলাদেশ ঢাকা টেস্টে প্রথম ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে মাত্র ১১১ রানেই গুটিয়ে দেয় বাংলাদেশ। বাংলাদেশ টেস্ট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফলোঅন করায় প্রতিপক্ষকে। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসেও স্পিন জালে হাসফাঁস অবস্থা হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের। টাইগাররা ৩৯৭ রানের রেকর্ড লিড পায়। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে উইন্ডিজরা অলআউট হয়ে যায় ২১৩ রানে। বাংলাদেশের ইনিংস ও ১৮৪ রানের বড় জয়ে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ নিশ্চিত হয়। টেস্টে ১৮ বছরের পথচলায় সাকিবরা স্বাদ পায় প্রথম ইনিংস ব্যবধানে জয়ের।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের দ্বিতীয় ইনিংসে ২ রানের মাথায় উইকেট নেন সাকিব। এরপর ১৪ রানে দ্বিতীয় উইকেট তুলে নেন মিরাজ। পরের ৬ রানের মধ্যে দুই উইকেট তুলে নেন বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। পরের গল্পটা মিরাজেরই।একে একে ফিরিয়েছেন হেটমায়ার, বিশু, ওয়ারিক্যানদের। প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে নেন ৫ উইকেট। টেস্ট ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো নেম ১০ উইকেট।

এর আগে প্রথম ইনিংসে তারা মাত্র ১১১ রান করতে পারে। দ্বিতীয় দিন শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ৭৫ রান তোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এরপর তৃতীয় দিনের সকালেই অলআউট হয়ে যায় তারা। প্রথম ইনিংসে উইন্ডিজের হেটমায়ার ও ডউরিচ যথাক্রমে ৩৯ ও ৩৭ রান করেন। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে হেটমায়ার খেলেন ৯২ বলে ৯৩ রানের ইনিংস। এক চারের পাশাপাশি ৯ ছক্কা হাঁকান তিনি।

এর আগে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে ৫০৮ রান করে। দলের হয়ে মাহমুদল্লাহ ক্যারিয়ার সেরা ১৩৬ রানের ইনিংস খেলেন। এছাড়া সাকিব ৮০, সাদমান ৭৬ এবং লিটন দাস খেলেন ৫৪ রানের ইনিংস। দারুণ ম্যাচ খেলায় ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হন মেহেদি মিরাজ। ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেই সিরিজ সেরা জন বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker