প্রযুক্তিহোমপেজ স্লাইড ছবি

আইডি কার্ড যখন হাতের মুঠোয়

আবদুল্লাহ আল মুনতাসির: শিক্ষার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে হোক আর কাজের জন্য অফিসে হোক, আইডি কার্ড এর মাধ্যমে নিজের পরিচয় অনেক জায়গাতেই দিতে হয় প্রতিদিন। কোন না কোন দিন ভুলে আইডি কার্ডটি বাসায় ফেলে গেলেই জীবনটা  হয়ে উঠে বিষাদময়। ইশ, এখন তো আরও কয়েক জায়গায় ধরনা দিতে হবে আইডি কার্ড ফেলে আসার জন্য। কেন যে এই জিনিষটা নিয়ে ঘুরতে হয় তা ভেবে ভেবে মাথার চুল ছেড়ার মত অবস্থা হয়ে ওঠে। যদি এমন হতো যে এই আইডি কার্ড কাউকে বহন করতে হবেনা। গলায় ঘণ্টার মত ঝুলবেনা আইডি কার্ডটা বা থাকবেনা পকেট থেকে পরে যাওয়ার ভয়। ভাবতেই ভাল লাগে।

ঠিক এমনটাই করার চেষ্টা করছে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন কোম্পানি। এখন ভাববেন আইডি ছাড়া তাহলে তাদের কর্মচারী কর্মকর্তারা তাদের কর্মস্থলে আসা যাওয়া কিভাবে করবে? নিরাপত্তার  কি হবে? বুঝবে কিভাবে কে কর্মচারী আর কে বাইরের লোক? আইডি কার্ড গলায় বা পকেট এ থাকবেনা বরং থাকবে আপনার হাতের মুঠোয়। হাতের মুঠোয় মানে? এ তো বাবা আরেক ঝামেলা দেখা যায়। হাত এ নিয়ে ঘুরতে হবে নাকি এখন আবার? হাতে নিয়েই ঘুরবেন কিন্তু ঝামেলায় পড়তে হবেনা কারণ আপনার আইডি থাকবে আপনার হাতের ভিতরে। জ্বী , মাইক্রোচিপ হবে আপনার কর্মস্থলের চাবি। চাউলের একটি দানার সমান আকৃতির ছোট্ট একটি মাইক্রোচিপ বসিয়ে দেয়া হবে আপনার হাতের চামড়ার নিচে। স্ক্যানার এর সামনে হাত দিয়েই খুলে নিতে পারেন আপনার গন্তব্যস্থলের রাস্তা।

যুক্তরাজ্য ভিত্তিক কোম্পানি বায়ো-টেক এবং সুইডেন ভিত্তিক কোম্পানি বায়ো-হ্যাক্স এই মাইক্রোচিপ নিয়ে যুক্তরাজ্যে কাজ করে চলেছে এবং সংবাদ মাধ্যম কে জানিয়েছে যে অনেক কোম্পানিই নাকি তাদের মাইক্রোচিপ ব্যবহার করার ইচ্ছা পোষণ করেছে। কিছু কোম্পানি নাকি তাদের মাইক্রোচিপ ব্যবহার ও শুরু করে দিয়েছে। ১৫০ পাউন্ড বা ১৯৩ ইউ এস ডলার এর কাছাকাছি দামের এই মাইক্রোচিপ গুলো সিকিউরিটি অনেক বাড়িয়ে দিবে বলে আশা করে এই কোম্পানি গুলো।

কিন্তু শুধু যে ইতিবাচক দিক ই আছে তা নয়। অনেকেই খুব কঠোর নেতিবাচক দিক তুলে ধরছেন। তারা মনে করছেন এই মাইক্রোচিপ গুলোর কারণে কর্মচারীদের প্রাইভেসি ভঙ্গ হবে। ২৪ ঘণ্টা তাদেরকে তদারকি করতে পারবে কোম্পানি গুলো, এমনকি কাজের বাইরেও। স্বাধীনতা হারিয়ে ফেলবে মানুষজন। অনেকে একে আধুনিক স্লেভারি বা দাসত্ব হিসেবেও আখ্যায়িত করছেন। এখন দেখার বিষয় কত গুলো কোম্পানি এর ব্যবহার শুরু করে বা কতজন নিজের হাতে এই মাইক্রোচিপ বসাতে রাজি হয়।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker