প্রযুক্তি

কম্পিউটার বা মোবাইল ফোন কে ম্যালওয়্যার মুক্ত রাখার নতুন উপায়।

বি.কে আহমেদ:    Malware, or “malicious software”, হচ্ছে একটি আমব্রেলা টার্ম যা দিয়ে যেকোন প্রকার ম্যালিসিয়াস প্রোগ্রাম বা কোডকে বর্ণনা করা হয় যা যেকোন সিস্টেমের জন্য ক্ষতিকর।

ম্যালওয়্যার কোন কম্পিউটার সিস্টেম বা নেটওয়ার্ক, মোবাইল, ট্যাবলেট বা সার্ভারকে ড্যামেজ অথবা ডিসেবল করে দিতে পারে, পুরো সিস্টেমের কন্ট্রোল নিয়ে নিতে পারে, আড়ি পাততে পারে গোপনে হাতিয়ে নিতে পারে আপনার গুরুত্বপূর্ণ সব ইনফরমেশন যেমন ক্রেডিট কার্ডের তথ্য অথবা সিস্টেমের সব তথ্য ইনক্রিপ্ট করে দাবি করতে পারে মোটা অংকের টাকা। ব্যাপারটা এমন যে কোন অদৃশ্য শক্তি আপনাকে নাচাতে পারে তার আঙ্গুলের ইশারায়।
দিনশেষে ম্যালওয়্যারের আসল উদ্দ্যেশ্য কোন না কোনভাবে  টাকা ইনকাম করা, তাই আমরা বলতে পারি Malware is all about money.

 কিভাবে বুঝবেন আপনার সিস্টেম ম্যালওয়্যারে আক্রান্ত? 
১। আপনা সিস্টেম স্লো পারফর্ম করতে পারে।
২। ব্রাউজারে অপ্রত্যাশিত পপআপ এড আসতে পারে।
৩। সিস্টেম ঘন ঘন ক্র্যাশ করতে পারে ফ্রিজ হতে পারে অথবা BDOS(Blue Screen of Death) হতে পারে।
৪। অপ্রত্যাশিতভাবে স্টোরেজ কমে যেতে পারে।
৫। ইন্টারনেট এক্টিভিটি বেড়ে যেতে পারে।
৬। সিস্টেম রিসোর্স ইউজেজ বেড়ে যেতে পারে প্রসেসরের ফ্যান আওয়াজ করে ঘুরতে পারে।
৭। ব্রাউজারের হোমপেজ আপনার পারমিশন ছাড়াই পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে।
৮। নতুন টুলবার এক্সটেনশন বা প্লাগ ইন অটোমেটিক এড হয়ে যেতে পারে।
৯। এন্টি ভাইরাস এক্টিভিটি বন্ধ হয়ে যেতে পারে।
১০। ফায়ারওয়াল বন্ধ হয়ে যেতে পারে।
১১। সিস্টেম আপডেট অফ হয়ে যেতে পারে।
১২। সিস্টেমের সব ইনফরমেশন ইনক্রিপটেড (Encrypted) হয়ে যেতে পারে (Ransomeware attack)।
১৩।তাছাড়া এমন কিছুও হতে পারে যেটা আপনি টেরও পাবেন না কি হচ্ছে আন্ডার দ্যা হুড, আপনার সিস্টেমের ভিতর। সিস্টেমের মধ্যে লুকিয়ে থাকতে পারে ক্ষতিকর কোন প্রোগ্রাম আর আপনার সব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচার করে দিতে পারে। অন্য প্রান্তে আড়ি পেতে থাকা হ্যাকারের হাতে অথবা অন্য সিস্টেমের মধ্যে ক্ষতিকর প্রোগ্রাম ছড়িয়ে দিতে পারে।

কিছু পরিচিত ম্যালওয়্যার টাইপ
 Adware
 Spyware
 Virus
 Worms
 Trojan
 Ransomware
 Rootkit
 Malicious Cryptomining
 Exploits

 ম্যালওয়্যারের থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায়

১। আপনাকে সর্বদা সর্তক থাকতে হবে।
২। অপারেটিং সিস্টেম, ব্রাউজার এবং প্লাগ ইন সবসময় আপডেট রাখতে হবে।
৩। সিস্টেম আপডেট এবং ফায়াওয়াল অন রাখতে হবে।
৪। রেপুটেশন ছাড়া কোন ওয়েবসাইট ভিজিট করা থেকে বিরত থাকতে হবে।
৫। টরেন্ট সাইটে ভিজিট করা যাবে না।
৬। পাইরেটেড যেকোন সফটওয়্যার ব্যাবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে।
৭। এডাল্ট সাইট ভিজিট বন্ধ করতে হবে।
৮। পপআপ বিজ্ঞাপনে ক্লিক করা থেকে বিরত থাকতে হবে।
৯। মেইলে আসা অর্থহীন অথবা অদ্ভু্ত কোন লিংকে ক্লিক করা যাবে না।
১০। মোবাইল ফোনের অ্যাপ্স প্লে-স্টোর(Android users) ছাড়া অন্য কোন সোর্স থেকে নামানো যাবে না।
১১। কোন রেপুটেডেট এন্টি-ম্যালওয়্যার(Anti-Malware) সফটওয়্যার ব্যাবহার করতে পারেন।

 

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker