টেক টকট্রেন্ডিং খবরপ্রযুক্তিহোমপেজ স্লাইড ছবি

‘স্টেডিয়া’ নিয়ে গুগল গেমের জগতে

সার্চ করার জায়গায় আমরা যখন বলি গুগল করা তখনি বোঝা যায় গুগল কোন লেভেল এর কোম্পানি। আর এমন কোম্পানি যখন কোনও একটা নতুন প্রোজেক্ট হাতে নেয় তখন কি আর তা যুগান্তকারী না হয়ে পারে? এমনই নতুন কিছু নিয়ে এসেছে গুগল এবার গেমারদের জন্য। জ্বী! অবশেষে গুগল এর নজর পরেছে গেমিং ইন্ডাস্ট্রির উপর। ২০১৮ এর অক্টোবরে “প্রোজেক্ট স্ট্রিম” এর মাধ্যমে গুগল গেমিং ইন্ডাস্ট্রিতে তাদের আগ্রহ দেখায় এবং এরই ফল হল “স্টেডিয়া”। সবাই যেখানে ভেবেছিল গুগল নতুন কোনও গেমিং কনসোল তৈরি করছে, সেখানে মানুষকে তাক লাগিয়ে দিয়ে তাদের নতুন প্রযুক্তি মানুষের সামনে নিয়ে হাজির হয় গুগল গত ১৯ মার্চ ২০১৯ তারিখে। ইউটিউবে লাইভ স্ট্রিম করা হয় গুগলের ইভেন্ট যার পর পরই কনসোল নির্মাতা বড় বড় কোম্পানির স্টক প্রাইস কিছুটা নিন্মমূখী হতে দেখা যায়।

স্টেডিয়া কি? স্টেডিয়া আপাতদৃষ্টিতে গুগলের একটি কনসেপ্ট। গুগল এর মতে, তাদের এই স্টেডিয়া ব্যবহার করলে আর কোনও কনসোল বা গেমিং হার্ডওয়্যার ব্যবহার করতে হবেনা আপনাকে। আকাশ থেকে পড়ার মত এই কনসেপ্ট কে বাস্তবতার রূপ দিতে তারা নিরলস কাজ করে যাচ্ছে এবং ২০১৯ এর মধ্যেই সবার সামনে নিয়ে আসবে বলে জানায়। গুগলের মতে স্টেডিয়া ব্যবহার করে গ্রাফিক্স ইন্টেন্স ট্রিপল এ গেম টাইটেল অর্থাৎ গেমিং ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে বড় বড় কোম্পানির সবচেয়ে ভালো গেম গুলো কোনও রকম উন্নত গেমিং হার্ডওয়্যার ছাড়াই। এর জন্য শুধু আপনার প্রয়োজন হবে একটি ডিসপ্লে। হোক তা আপনার লো কনফিগারেশনের কম্পিউটারের ক্রোম ব্রাউজার এর ডিসপ্লে, হোক তা ক্রোম বুক বা ক্রোম কাস্ট লাগানো আপনার টেলিভিশন এমনকি আপনার গুগল পিক্সেল মোবাইলের ডিসপ্লে ও বাদ যাবেনা। ৪ কে রেজোলিউশান ও ৬০ এফ পি এস দেখাতে সক্ষম হবে স্টেডিয়া তাও আবার হার্ডওয়্যার ছাড়া? তাহলে এই গেম গুলো চলার জন্য যে শক্তি প্রয়োজন তা কোথা থেকে আসবে? সব গেমই চলবে গুগল এর ইনফ্রাস্ট্রাকচারে। গেম চলবে গুগলের হার্ডওয়্যার এ আর আপনি শুধু বাসায় বসে উপভোগ করবেন আপনার গেম। তাদের মতে গেম ডাউনলোডের দিন শেষ। কোনও রকম ডাউনলোড ছাড়া শুধুমাত্র ইন্টারনেট ও ডিসপ্লের সহায়তায় স্টেডিয়া তে খেলা যাবে এসব গেম কোনও প্রকার ল্যাগ ছাড়া।

স্টেডিয়ার পেছনে গুগল ছাড়াও বড় বড় গেমিং কোম্পানি কাজ করছে যার মধ্যে ইউবিসফট উল্লেখযোগ্য। ১৯ টি রিজিওনে ২০০ এর উপরে দেশের সাথে গুগল ফাইবার অপটিকের সাহায্যে সংযুক্ত বিধায় গুগল এর পক্ষে এই প্রোজেক্ট টি কষ্ট সাধ্য হলেও অসম্ভব না বলে আমরা মনে করি। এই স্টেডিয়া সার্ভিস ছাড়াও তারা একটি স্টেডিয়া কন্ট্রোলার তৈরি করেছে বিশেষ ভাবে এই সার্ভিস ব্যবহারের জন্য, যা আপনার স্টেডিয়া এক্সপেরিয়েন্স কে আরও সহজ ও আনন্দময় করতে সাহায্য করবে। কিন্তু গুগল সাফ জানিয়ে দিয়েছে স্টেডিয়া সার্ভিস ব্যবহারের জন্য তাদের এই বিশেষ কন্ট্রোলার বাধ্যতামূলক না।

 

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker