টেক গেজেটসটেক টকট্রেন্ডিং খবরপ্রযুক্তি

নোট টেন ও নোট টেন প্লাসে যত চমক

মিজানুর রহমান টিপু: প্রতি বছরের মতই স্যামসাং তাদের বছরের ২য় ভাগের ফ্লাগশীপ গ্যালাক্সি নোট সিরিজ রিলিজ করলো ৭ আগষ্ট নিউইয়র্কের আনপ্যাক ইভেন্টে। স্যামসাং ট্যাব সিক্স, ওয়াচ এক্টিভ টু এবং নোট টেন এর সাথে এবারের চমক হিসেবে রয়েছে আরও একটি মডেলের স্মার্টফোন। স্যামসাং প্রথম বারের মত তাদের নোট সিরিজে যুক্ত করলো প্লাস ভার্সন। নোট সিরিজ মূলত এস সিরিজের প্রতিচ্ছবি হলেও বেশ কিছু নতুন ফিচার যুক্ত করেছে স্যামসাং।

নামের সাথে মিল রেখে প্লাস ভার্সনের পর্দা থাকছে বড় আকৃতির। নোট টেন প্লাস ও নোট টেনে থাকছে যথাক্রমে ৬.৮ ও ৬.৩ ইঞ্চি ডাইনামিক এমলয়েড টেকনোলজির ডিস্পলে। তবে নোট টেনে থাকছে ফুল এইচডি প্লাস রেজুলেশন অন্য দিকে নোট টেন প্লাসে থাকছে কুয়াড এইসডি প্লাস রেজুলেশন, তাই স্বভাবতই প্লাস ভার্সনে পাওয়া যাবে অধিক ডিটেইলস।

নোট টেন এর ক্যামেরা পজিশনে পরিবর্তন এনেছে স্যামসাং। নোট নাইনের পাশাপাশি ক্যামেরা পজিশনের পরিবর্তে, নোট টেন এ ক্যামেরা লম্বালম্বি পজিশনের ক্যামেরা রাখা রয়েছে। ইনফিনিটি ও (Infinity O) ডিজাইনের ডিসপ্লের মাঝে রয়েছে পাঞ্চ হোল ক্যামেরা। যেটা গ্যালাক্সি এস টেন সিরিজের ফোনে ডান পাশে ছিল।

দুইটি ফোনের পিছনে ও সামনে রয়েছে যথারীতি মেটাল ও গ্লাসের মিলিত বডি। যা হাতে নিলেই অত্যন্ত প্রিমিয়াম ফিল দিবে নিঃসন্দেহে।

স্যামসাং তাদের এস সিরিজ ও নোট সিরিজের ক্যামেরা যথারীতি একই রেখেছে। তবে নোট টেন প্লাসে প্রথম বারের মত যুক্ত হয়েছে ডেপথ ভিশন ক্যামেরা (depth vision camera)। ছবি তুলার পাশাপাশি ভিডিও তেও যুক্ত হয়েছে লাইভ ফোকাস কিংবা বোকেহ মোড। তবে নোট সিরিজে এখনও সামনে একটি ক্যামেরাই থাকছে।

এতদিন ফোনে শুধু মাত্র ভিডিও জুমিং ফিচার থাকলেও নোট সিরিজের মাধ্যমে যুক্ত হচ্ছে অডিও জুমিং। আল্ট্রা ওয়াইড দিয়ে ভিডিও ধারন করলে অনেক শব্দ গ্রহণ করলেও জুম করে কোন নির্দিষ্ট বস্তুর কাছে গেলে শুধু মাত্র সেই বস্তুর শব্দই গ্রহণ করবে এই ফোন।

স্যামসাং এস টেন সিরিজের মতই এখানে রয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ চিপসেট, পূর্বের মতই ক্যামেরা সেট আপ। নোট টেন এর র‍্যাম থাকছে ৮ জিবি অন্যদিকে টেন প্লাসে থাকছে ১২ জিবি বেস ভার্সন।

এবারের এস পেন-এ এসেছে আমূল পরিবর্তন। এস পেনকে বলা হয় Heart of Note। এবারের এস পেন-এ থাকছে এয়ার একশন (Air action) সুবিধা। এস পেনের সাহায্য লিখা কোন হাতে লিখা নোট কে চাইলেই পিডিএফ কিংবা ডক ফাইলে সেইভ করে রাখা যাবে। ইংলিশ ছাড়াও অনেক ভাষা সমর্থন করবে এই ফিচারে।

নোট টেন প্লাসে অতিরিক্ত মেমোরি ব্যাবহারের সুযোগ থাকলেও নোট টেন-এ থাকছে না এই সুবিধা। ব্যাটারীতেও রীতিমতো নোট টেন প্লাস এগিয়ে থাকছে টেন এর থেকে। ৪৩০০ মেগাহার্টজ ব্যাটারি থাকছে টেন প্লাস আর ৩৫০০ থাকছে নোট টেন ভার্সনে। তাছাড়াও নোট টেন প্লাস সাপোর্ট করবে ৪৫ ওয়াট পর্যন্ত ফাস্ট-চার্জিং।

ফ্লাগশীপ ডিভাইস থেকে অন্যসব ব্রান্ড আগেই সরিয়ে নিয়েছে হেডফোন, এবার তাদের সাথে যোগ হল স্যামসাং। তাদের নোট সিরিজে থাকছে না কোন হেডসেট জ্যাক।

নোট টেন ও নোট টেন প্লাস এখনই দেশের বাজারে আসছে না। তবে নোট টেন এর জন্য মূল্য গুনতে হবে ৯৫০ ডলার এবং টেন প্লাসের জন্য ১১০০ ডলার।

 

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker