টেক গেজেটসটেক টকট্রেন্ডিং খবরপ্রযুক্তিহোমপেজ স্লাইড ছবি

যত চমক আইফোন ১১ সিরিজে!

মঞ্জুর দেওয়ান: টেক জায়ান্ট অ্যাপলকে ঘিরে কমবেশি সকলেরই আগ্রহ থাকে। আর আইফোন লাভার হলে তো কথা-ই নেই। দিন গুনে অপেক্ষায় থাকে নতুন সিরিজের অপেক্ষায়। ঠিক তাদের কথা মাথায় রেখেই ‘আইফোন ১১’ এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিলো অ্যাপল। এবার আইফোন ১১ এর সাথে এই সিরিজের আরোও দুটি মডেল আইফোন ১১ প্রো এবং আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স উন্মোচন করলো অ্যাপল। পরিচয় পর্ব শেষ হলেও এখনই বাজারে পাওয়া যাবে না আইফোনের নতুন মডেলগুলো। অপেক্ষা করতে হবে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। চলুন জেনে আসি নতুন কি থাকছে আইফোনের আপডেট এডিশনে।

আইফোন ১১ তে রয়েছে এ১৩ বায়োনিক চিপ। অ্যাপলের দাবি সবচেয়ে দ্রুতগতির সিপিইউ ও জিপিইউ এর এই এ১৩ বায়োনিক চিপ। নিজেদের তৈরি সবচেয়ে শক্তিশালী স্মার্টফোন প্রসেসর হিসেবে দাবী করেছে অ্যাপল। নতুন আইফোনের অডিওতে ডলবি অ্যাটমস সাপোর্ট রয়েছে। আইফোন ১১ তে বেস ভেরিয়েন্টে থাকছে ৬৪ জিবি স্টোরেজ থেকে শুরু করে ৫১২ জিবি পর্যন্ত! ধুলো ও পানি নিরোধ ক্ষমতা তো থাকছেই।

ডিসপ্লে: আইফোনে ১১ সিরিজের ৩ টি মডেলের জন্য ৩ টি ভিন্ন মাপের পর্দা নিয়ে এসেছে অ্যাপল। আইফোন ১১ এর ডিসপ্লে ৬.১ ইঞ্চি। আইফোন প্রো এর ডিসপ্লে তুলনামূলক বড়। ৬.১ ইঞ্চির ডিসপ্লে রয়েছে আইফোন ১১ প্রো তে। আর প্রো ম্যাক্সে রয়েছে ৬.৫ ইঞ্চির জায়ান্ট ডিসপ্লে! অ্যাপলের দাবি আইফোন ১১ এর ডিসপ্লে আগের যে-কোনো ফোনের চেয়ে উন্নত। নতুন এই পর্দার নাম দেয়া হয়েছে সুপার রেটিনা এক্সডিআর!

ক্যামেরা: আইফোনের নতুন সিরিজে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে এর ক্যামেরায়। আইফোন ১১ প্রো ও প্রো ম্যাক্স ফ্ল্যাগশিপটির পেছনে থাকছে ট্রিপল ক্যামেরা। যার মধ্যে ১২ মেগা পিক্সেলের একটি ওয়াইড লেন্স। একটি আল্ট্রা ওয়াইড লেন্সের পাশাপাশি রয়েছে একটি ১২ টেলিফটো লেন্স। অল্প আলোয় ছবি তোলার ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা পাবেন আইফোন ১১ এর ব্যবহারকারীরা। রাতের বেলা ছবি তোলার ক্ষেত্রে এর নাইট মোড স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু হবে। এছাড়া কুইকটেক নামে নতুন একটি ফিচার যুক্ত করেছে অ্যাপল। এই ফিচারটির মাধ্যমে ছবি তোলার মাঝেই ভিডিও করা যাবে। এছাড়া পশু পাখিদের ক্ষেত্রেও পোট্রেড মোড কাজ করবে। সবচেয়ে বেশি চমক ফ্রন্ট ক্যামেরায়। ১২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরায় ফোর কে ভিডিও ছাড়া স্লো-মোশনে ভিডিও ধারণ করা যাবে। প্রো সিরিজের ডিপ ফিউশন ফিচার ব্যবহার করে একসাথে ৯ টি ছবি তুলতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। ছবি তোলার বাটনে ক্লিক করার আগে ৮ টি ছবি তুলবে। আর ক্যাপচার বাটনে ক্লিক করার পর সেগুলো একটি ছবিতে পরিণত হবার আগে আরেকটি দীর্ঘ এক্সপোজারের ছবি তুলবে। ফলে ছবি হবে ঝকঝকে ও নিখুঁত।

ব্যাটারি: আইফোন ১১ তে যে নতুন প্রযুক্তি যুক্ত হয়েছে তার মধ্যে একটি হলো উন্নত মানের ব্যাটারি। প্রো তে ৩১৯০ mAh ও প্রো ম্যাক্সে ৩৫০০ mAh ব্যাটারি রয়েছে। অ্যাপলের দাবি নতুন সিরিজের সবকটিতে-ই আগের চেয়ে বেশি ব্যাটারি ব্যাক আপ পাওয়া যাবে। আইফোন ১১ প্রো তে আগের আইফোন এক্স এর চেয়ে চার ঘণ্টা বেশি ব্যাটারি ব্যাক আপ পাওয়া যাবে। আইফোন প্রো ম্যাক্সে এক্স এস ম্যাক্সের চেয়ে পাঁচ ঘণ্টা বেশি ব্যাটারি ব্যাক আপ পাওয়া যাবে। প্রো সিরিজের সাথে ১৮ ওয়াটের দ্রুত গতির একটি চার্জার থাকবে।

কালার: আইফোন ১১ প্রো ও প্রো ম্যাক্সে চারটি ভিন্ন রঙে পাওয়া যাবে। গ্রিন, অ্যাশ, সিলভার ও গোল্ডেন কালারের বাহারি ডিজাইন রেখেছে অ্যাপল। সিরিজের তিনটি ফোন মিলে মোট ছয়টি রঙের আইফোন ১১ পাওয়া যাবে বাজারে।

দাম: নতুন আইফোনের দাম নিয়ে আলোচনা কম হয়নি। স্যামসাং ফোল্ডএবল ফিচার এনে ফোনের দাম যেখানে প্রায় দুই হাজার ডলারে নিয়ে গেছে আইফোনের সেখানে নাগালের মধ্যেই রয়েছে। আইফোন ১১ এর দাম শুরু হয়েছে ৬৯৯ ডলার থেকে। আইফোন ১১ প্রো ৯৯৯ ডলার। আর আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স শুরু ১০৯৯ ডলার থেকে।

নতুন অ্যাপল ওয়াচের ঘোষণাও এসেছে। অ্যাপল ওয়াচের সিরিজ ৫ পাওয়া যাবে ২০ সেপ্টেম্বর থেকে। নতুন এই ওয়াচে রেটিনা ডিসপ্লে সংযোজন করা হয়েছে। ব্যাটারি ব্যাক আপে আগের ওয়াচের তুলনায় শক্তিশালী এটি। জিপিএস মডেল মোবাইল নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করা দুটি ভিন্ন ওয়াচের দাম যথাক্রমে ৩৯৯ ডলার থেকে ও ৪৯৯ ডলার থেকে শুরু। অ্যাপলের বহুল প্রতীক্ষিত নতুন অপারেটিং সিস্টেম আইপ্যাডওএস নিয়ে নতুন আইপ্যাড আসছে ৩০ সেপ্টেম্বর। ১০.২ ইঞ্চির ডিসপ্লে সম্পন্ন আইপ্যাডটিতে থাকবে এ১০ ফিউশন চিপ ও ফ্লিপ কি বোর্ডের জন্য স্মার্ট কানেক্টর। ৩২৯ ডলারের বিনিময়ে মিলবে অ্যাপলের নতুন আইপ্যাড।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker