বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৭
webmail
Sun, 09 Apr, 2017 12:10:42 AM
নতুন বার্তা ডেস্ক

কলকাতা: পেশার স্বার্থে অনেক কিছুই করতে হয় সাংবাদিকদের। অনেক কঠিন মুহূর্তেও ঠোঁটের কোনায় ধরে রাখতে হয় এক চিলতে হাসি। অনেক যন্ত্রণাও সহ্য করে নিতে হয় দাঁতে দাঁত চেপে। কিন্তু ছত্তিশগঢ়ের এই সংবাদপাঠিকা যা করলেন, অত্যন্ত হৃদয়বিদারক এবং একইসঙ্গে নজিরবিহীনও বটে। ব্রেকিং নিউজে পড়লেন স্বামীর মৃত্যুসংবাদ।

ছত্তিশগঢ়ের একটি টেলিভিশন চ্যানেলের সঞ্চালক আঠাশ বছরের সুপ্রীত কউর। শনিবার সকালে ১০-১০.৩০ মিনিটের লাইভ বুলেটিন পড়ছিলেন তিনি। সেখানেই একটি পথদুর্ঘটনার খবর আসে। তিনজন মারা গিয়েছেন। দু্জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। রিপোর্টার অবশ্য মৃতদের নাম বলতে পারেননি। খবর পড়ার সময়ই সন্দেহ হয়েছিল মৃতদের তালিকায় তার স্বামী থাকতে পারেন। কিন্তু এরপরও প্রায় দশ মিনিট তিনি খবর পড়েন।



কিন্তু বুলেটিন শেষ হতেই নিজেকে আর সামাল দিতে পারেননি সুপ্রীত। ততক্ষণে স্টুডিওয় তাঁর সহকর্মীরা এসে গিয়েছেন। কারণ সুপ্রীতের স্বামী হর্ষদ কাওয়াড়ে মৃত্যু সংবাদ ইতিমধ্যেই অফিসে জানানো হয় পরিবারের তরফে।

চ্যানেলের এডিটর জানান, সুপ্রীত এদিন যা করলেন তা সত্যিই ওর সাহসিকতা ও পেশাদারিত্বের পরিচয় দিল। ও একটা দৃষ্টান্ত তৈরি করল সকলের সামনে। ৯ বছর ধরে এই প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন সুপ্রীত।

 এ রাজ্যে বেশ জনপ্রিয় সংবাদপাঠিকা হিসাবে বেশ জনপ্রিয় মুখ তিনি।এমন পেশাদারিত্বের নজির বোধহয় আর নেই।

নতুন বার্তা/এমআর


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top