শুক্রবার, ১৮ আগস্ট ২০১৭
webmail
Sat, 12 Aug, 2017 12:10:24 PM
নতুন বার্তা ডেস্ক

এবি ডি’লিয়ার্সকে পাওয়ার আশা কি তবে ছেড়ে দিলেন! ফাফ ডু’প্লেসিসের কথা শুনলে তেমনই মনে হবে। কী এমন বললেন তিনি? কেনই বা বললেন? আসলে বেশ কিছুদিন ধরেই দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট দলে পাওয়া যাচ্ছে না এবি–কে।

প্রথমে চোট সমস্যা ছিল। কিন্তু পরে এবি মনে করেছেন ২০১৯–র বিশ্বকাপের আগে নিজের ওপর চাপ কমানো দরকার। তাই খেলছেন না। এদিকে তার অনুপস্থিতিতে দক্ষিণ আফ্রিকার হাল বেশ খারাপ। ইংল্যান্ডের কাছে ৩-১ সিরিজ হেরেছে।

অনেকরকম কম্বিনেশন ঘুরিয়ে–ফিরিয়ে দেখেও বিশেষ লাভ হয়নি। এরপরই এবি–র ফেরা নিয়ে নানা লোকে নানা কথা বলছিলেন। বাধ্য হয়েই মুখ খুলেছেন ডু’প্লেসিস। বলেছেন, ‘এবি যদি খেলত, আমার থেকে বেশি খুশি কেউ হত না। আমরা সবাই জানি ও কতখানি ভাল প্লেয়ার। আর এটাও সত্যি এবি–কে আমরা সবাই মিস করি। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরেই লক্ষ্য করছি আমরা একটা বিষয় নিয়ে কথা বলেই চলেছি। সেই বিষয়টা কী? এবি কবে ফিরবে। ও কবে ফিরবে, কেন ফিরছে না

এই নিয়ে তো অনেক চর্চা হল। এবার নয় আমরা সামনে তাকাই। এমন কাউকে খুঁজে বের করি যে এবি–র অভাব পূরণ করতে পারবে।’ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজে ডি’ভিলিয়ার্সের জায়গায় ৪ নম্বরে তিনজনকে ঘুরিয়ে–ফিরিয়ে খেলিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। জেপি ডুমিনি, কুইন্টন ডি’কক, টেম্বা বাভুমা। কিন্তু সঠিক ব্যক্তিকে আদৌ কি পেয়েছে দল? ডু’প্লেসিসের কথায়, ‘আমরা যখন খেলতে গিয়েছিলাম, ভুলেও ভাবিনি ডুমিনিকে বসিয়ে দিতে হবে। বরং আশা ছিল ও কার্যকরী ইনিংস খেলবে। কিন্তু সেটা হয়নি। পরিবর্তে যাকে নামালাম, সেই কুইন্টন দ্বিতীয় টেস্টে ঘাসের পিচে ম্যাচের মোড় ঘোরানো ইনিংস খেললেও, চার নম্বরে যে ধরনের ধারাবাহিক থাকাটা দরকার, সেটায় কোথাও ঘাটতি থাকছিল। আমার মনে হয়, ও চারের বদলে ছয়ে খেললেই ভাল হবে। এবার বলি টেম্বার কথা। টেকনিক খুব ভাল। হাসিম আমলার পাশেই থাকবে। ওর চরিত্রের যে দিকটা বেশি ভাল লাগে সেটা হল, ওর মধ্যে নেতৃত্বের সহজাত গুণ আছে। চারে নেমে ও চ্যালেঞ্জ নিতে পারছে, সেটা দেখছি। তাই দক্ষিণ আফ্রিকা দলের চার নম্বর জায়গাটা ওর নেওয়ার ক্ষমতা আছে বলেই মনে হয়।’

কিন্তু এই সিরিজ হারলেও, ব্যাপারটাকে নেতিবাচক দৃষ্টভঙ্গি দিয়ে দেখার বদলে, ইতিবাচকভাবেই দেখতে চান ডু’প্লেসিস। বলেছেন, ‘ব্যাটিংয়ের দিক দিয়ে যদি দেখি, তা হলে বলতে হবে, আমরা নিজেদের যোগ্যতা অনুযায়ী খেলতে পারি না। এই তালিকায় নিজেকেও রাখব। তবে এটাও সত্যি ইংল্যান্ডের বোলিং অত্যন্ত শক্তিশালী।

ফলে সিরিজের ফলাফল যে হবে, এই ছবিটা আমাদের কাছে পরিষ্কার ছিল। তবে এই হার আমাদের শিখিয়েছে। কোথায়, কোন খামতি ছিল সেটা বুঝতে পেরেছি। সেটা শুধরাতে হবে। দলে ভারসাম্যও আনতে হবে।’  

নতুন বার্তা/এমআর


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top