বুধবার, ১৭ জানুয়ারি ২০১৮
webmail
Tue, 02 Jan, 2018 07:19:34 PM
নতুন বার্তা ডেস্ক

ঢাকা: সম্প্রতি খেলার মাঠেই এক দর্শককে পেটানোর দায়ে জাতীয় দলের ক্রিকেটার সাব্বির রহমানকে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি।

২০ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে, সাথে ছয় মাসের জন্য ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে পারবেন না সাব্বির।

সাব্বির রহমানকে অনেকে বাংলাদেশের এক নম্বর টি২০ খেলোয়াড় হিসেবে বর্ণনা করে থাকেন।

কিন্তু এর আগেও ক্রিকেট বহির্ভূত নানা কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে বিতর্কিত হয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শাহাদাত হোসেন, মোহাম্মদ শহীদের মতো ক্রিকেটাররা।

এরকম ঘটনা রুখতে আসলে কি ব্যবস্থা নেয়া উচিৎ?

বিসিবি হাই পারফরম্যান্সের কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিম জানান, ক্রিকেটারদের কাউন্সেলিং নিয়মিতই হচ্ছে।

জাতীয় দলে ঢোকার আগেই তাদের একটা প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হয় যেখানে নৈতিকতা, আচার-আচরণ নিয়ে ক্লাস হয়।

'এই সময়টা আরো গুরুত্বপূর্ণ, ক্রিকেটাররা অনেক সময় নিজের অজান্তেও এমন কিছু করে ফেলে যার ফলাফল নিয়ে সে অবগত নয়। এখন দৃঢ় ব্যবস্থা না নিলে এমন ঘটনা আরো ঘটতে পারে।'

'আসলে ক্রিকেটারদের জন্য নীতিমালা মানে কোড অব কন্ডাক্ট রয়েছে। সেখানে স্পষ্টভাবে উল্লেখ আছে, কার সাথে কেমন ব্যবহার করা উচিৎ, মাঠের বাইরে কেমন থাকতে হবে।'

তবে ফাহিম বলছেন, শুধু জাতীয় দলের জন্য না, ক্রিকেটারের উঠে আসার সময় থেকেই এই ব্যাপারটা সচেতনভাবে নিয়ে আসা উচিৎ।

'ক্রিকেটাররা আইকন হিসেবে উঠে আসে দেশের প্রচুর তরুণের কাছে, তাই শুধু ভালো ক্রিকেটার না, ভালো মানুষ হওয়াটাও সমান গুরুত্বপূর্ণ।'

বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসের কাছে করণীয় সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, "সবচেয়ে বড় শাস্তিটাই আমরা দিয়েছি।

ক্রিকেট বোর্ড থেকে বারবার বলা হচ্ছে ক্রিকেটারদের কী করণীয়, কী শাস্তি হতে পারে, সাকিব-সাব্বির সবাই শাস্তি পাচ্ছে, এরপরও আটকানো না গেলে বলা মুশকিল।"

এর আগে সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাব্বির রহমানের শাস্তি ঘোষণা করেন।

"আমাদের শৃঙ্খলা কমিটি আছে, সেখানে সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে সাব্বিরকে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ দেয়া, সাথে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং ঘরোয়া ক্রিকেট থেকেও তাকে ৬ মাসের অব্যাহতি দেয়া হবে।"

"এটাই তার শেষ সুযোগ। এরপর এমন কোনো ঘটনা থাকলে অনির্দিষ্ট কালের জন্য নিষিদ্ধও করা হতে পারে তাকে।"

মিঃ পাপন বলেন, বিসিবির সিদ্ধান্তে শক্ত বার্তা রয়েছে, যাতে সবাই সাবধান হবেন।

"বাংলাদেশের ক্রিকেট এখন এতো জনপ্রিয় যে ক্রিকেটারদের মাঠের বাইরে ভুল ক্ষমা করা কঠিন।"

"প্রত্যেক ক্রিকেটারই আদর্শ, তাই ভুল কাউকে যাতে নতুন প্রজন্ম অনুসরণ না করে সে ব্যবস্থা নিচ্ছে ক্রিকেট বোর্ড।"

নতুন বার্তা/এমআর


Print
আরো খবর
    সর্বশেষ সংবাদ


    শিরোনাম
    Top
    close