ক্রিকেট

বড় ধরনের বিপদ থেকে বাচঁলেন শোয়েব!

হ্যামিল্টন: বড় রকমের দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারত ক্রিকেটমাঠে। শোয়েব মালিকের সঙ্গে আছেন বলে অল্পের উপর দিয়ে ব্যাপারটা গিয়েছে। নাহলে কী যে হত! শিউরে উঠছেন ক্রিকেটপাগলরা।

হ্যামিল্টনে অনুষ্ঠিত চতুর্থ ওয়ানডের ঘটনা। পাক-ইনিংসের ৩২-তম ওভারের দ্বিতীয় বলে সিঙ্গল নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন শোয়েব মালিক। অন্য প্রান্তে ছিলেন মহম্মদ হাফিজ। সিঙ্গল নেওয়া সম্ভব নয় দেখে শোয়েব মালিককে ফিরিয়ে দেন হাফিজ।

জীবন ফিরে পাওয়ার মরিয়া চেষ্টা করেন শোয়েব। সেই সময়ে কভার থেকে থ্রো করেন কিউয়ি কলিন মানরো। তাঁর ছোড়া বল সরাসরি মালিকের মাথায় আঘাত করে।

মালিকের মাথায় আঘাত করা বলটা ফাইন লেগ দিয়ে বাউন্ডারিতে পৌঁছে যায়। তার জন্য চার রান পাওয়া গেলেও তখনকার মতো সবার মুখ ফ্যাকাসে হয়ে গিয়েছিল।

মালিকের মাথায় ছিল না হেলমেট। মানরোর ছোড়া বলের আঘাতে মাটিতে শুয়ে পড়েন শোয়েব। কিউয়ি ক্রিকেটাররা ছুটে আসেন মালিকের কাছে। প্রাক্তন পাক অধিনায়ক তখন মাটিতে লুটিয়ে পড়েছেন। দ্রুতই অবশ্য

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker