বিনোদনহোমপেজ স্লাইড ছবি

আফরান নিশো অভিনীত সেরা পাঁচ নাটক

১.আয়না রহস্যঃ বাংলা নাটকের ইতিহাসে ব্যতিক্রমী সংযোজন৷ এই ধরনের গল্প আমাদের দেশের জন্য একেবারেই প্রথম। গল্পের স্পয়লার না দিয়েই এই ধরনের সাই-ফাই থ্রিলার নির্মাণ বেশ সাহসিকতার ব্যাপার। কিছু ভুল ত্রুটি অবশ্যই আছে,তবে ময়ুখ বারী নিজের প্রথম নাটকেই মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন আর প্রধান ভূমিকায় আফরান নিশোর প্রাণবন্ত অভিনয় নাটকের অন্যতম প্রাণ। বেশ জনপ্রিয় হয়েছিল।

২.ফুলমতিঃ সুমন আনোয়ারের রচনা ও পরিচালনায় এই টেলিফল্মে দেখানো হয় গ্রাম্য রাজনীতির নোংরা রুপ এই টেলিফিল্মে মূল বক্তব্য। ফুলমতি নামের এক বাড়ির সাধারণ কাজের মেয়ে থেকে চেয়ারম্যান হওয়ার গল্প ফুটে উঠেছে এই টেলিফিল্মে। নানা কাহিনী পেরিয়ে গল্পের মোড়ে ফুলমতি হয় চেয়ারম্যান। নাম ভূমিকায় দারুণ অভিনয় করেন জাকিয়া বারী মম,আরো ছিলেন রওনক হাসান,মনিরা মিঠুরা। তবে আকর্ষণ হয়ে উঠেন মধু পাগলা চরিত্রটি, এই চরিত্রে আফরান নিশোর। চরিত্রকে ফুটিয়ে তোলার একজন অভিনয় শিল্পী কি কি করতে পারেন। তার অসামান্য অভিনয়ে সবার গা শিহরণ জাগার কথা। মূলত এই মধু পাগলা চরিত্র করার পরেই আফরান নিশো বিশেষ ভাবে সবার নজর কাড়েন। তবে আফসোসের বিষয় নিশো এই অভিনয়ের জন্য কোন পুরস্কার পান নি।

৩.ফেরার পথ নেইঃ নিজের কাছের মানুষদের আকস্মিক হারিয়ে যাওয়ার গল্প। এই হারিয়ে যাওয়ার গল্প রহস্য, আছে পেছনের গল্প। এমন ই গল্পে আশফাক নিপুণের সাহসী নির্মাণ সম্পূর্ণ ভিন্ন দুই চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন আফরান নিশো,পাশাপাশি দারুণ সঙ্গ দিয়েছেন মেহজাবীন।

৪.লায়লা তুমি কি আমাকে মিস করো?: সব প্রেমের সফল পরিণতি হয় না,বাস্তবতার প্রতীকে রুপ নেয় তা বিচ্ছেদে। প্রেমিকার বিয়ে হয়ে যায়,আর প্রেমিকরা কি নিজেদের জীবন সঁপে দিবে মৃত্যুর কাছে! বিয়ের পর বেশ সুখেই আছে লায়লা,হঠাৎ তিনি জানতে পারেন তাঁর প্রাক্তন প্রেমিক তন্ময় আত্বহত্যা করতে যাচ্ছেন, কি করবে লায়লা! নাটকটিতে মূল চরিত্রে আফরান নিশো ও মেহজাবীন বেশ সাবলীল।

৫.ইতি,মাঃ মধ্যবিত্ত পরিবারের জীবন সংগ্রামের কাহিনী। ভাই- বোন মিলিয়ে মায়ের ই স্বপ্ন পূরণের গল্প। আশফাক নিপুণের এই টেলিফিল্মে সে পরিবারের বড় ছেলে। দারুণ অভিনয় করেছিলেন এই আলোচিত কাজে।

  • হৃদয় সাহা

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker