খেলাট্রেন্ডিং খবরহোমপেজ স্লাইড ছবি

ফাইনালে আর্জেন্টিনা- ব্রাজিল : ইতিহাস কার পক্ষে?

মঞ্জুর দেওয়ান: সেই পেলে-মারাদোনাদের সময় থেকে শুরু। সময়ের সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে অবস্থান আরোও পাঁকা করে নিয়েছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। পেলের হ্যাটট্রিক বিশ্বকাপ জয় কিংবা আর্জেন্টিনাকে একাই বিশ্বকাপ জেতানো মারাদোনার কথা ভোলা তো সহজ কথা নয়! সম্প্রতি কোপা আমেরিকা আবারো মানুষের আগ্রহের কেন্দ্রে এনেছে লাতিন ফুটবলের দুই পরাশক্তিকে। কেননা, ১৪ বছর পর বড় কোন টুর্নামেন্টের ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। চলুন জেনে আসি দুই দলের ইতিহাস, শক্তিমত্তা ও সাম্প্রতিক পারফর্মেন্স সম্পর্কে।

নামে-ভারে ঐতিহ্যে পিছিয়ে নেই কোন দল। একটা সময় বিশ্বকাপে রাজত্ব করেছে ব্রাজিল। পাঁচবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়ে ট্রফিটাকে নিজেদেরই করে ফেলেছিল তারা। তবে ২০০২ সালের পর আর ছুঁয়ে দেখা হয়নি সোনালি ট্রফি। সেই আক্ষেপ কিছুটা ঘুচেছে কনফেডারেশনস কাপ জিতে। ২০০৫, ২০০৯ ও ২০১৩ সালে হ্যাটট্রিক কনফেডারেশনস কাপ জেতে সেলেসাওরা। কোপা আমেরিকাতেও সাফল্য ধরা দিয়েছে। ২০০৪ ও ২০০৭ সালে চ্যাম্পিয়ন হয় ব্রাজিল। মহাদেশীয় আসরটির বর্তমান চ্যাম্পিয়নও সেলেসাওরা। দলের সেরা তারকা নেইমারের কাঁধে সওয়ার হয়ে টানা দ্বিতীয় শিরোপা জয়ের পথে এগুচ্ছে ব্রাজিল।

৮০’র দশকে আর্জেন্টিনার দাপট দেখেছে গোটা বিশ্ব। তবে দিনের সাথে সাথে যেন রং হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। সবশেষ বিশ্বকাপ এসেছে কিংবদন্তী মারাদোনার হাত ধরে, ১৯৮৬ সালে। ২০১৪ বিশ্বকাপে তীরে এসে তরী ডুবেছে। জার্মানির কাছে হারের ক্ষত হয়তো এখনো শুকোয়নি। এরপর চিলির কাছে পরপর দুই কোপা আমেরিকার ফাইনালে হেরেছে আলবিসেলেস্তেরা। চার ফাইনাল হেরে যেনো নামের সঙ্গে অপয়া শব্দটাই জুড়ে নিয়েছেন লিওনেল মেসি! যার পায়ের জাদুতে মোহিত হয় কোটি ফুটবল ভক্ত, তার কি-না একটাও আন্তর্জাতিক ট্রফি নেই! তবে অপেক্ষা অবসান হতে পারে চলতি কোপা আমেরিকায়। অনবদ্য ফুটবলে পাঁচবছর পর আকাশী-নীলদের আবারো ফাইনালে তুলেছেন মেসি।

দুই দলের পরিসংখ্যানে এগিয়ে ব্রাজিল। মুখোমুখি ১১১ দেখায় ৪৬টিতে জিতেছে সেলেসাওরা। বিপরীতে আর্জেন্টিনার সাফল্য ৪০ ম্যাচে। বাকি ২৫ ম্যাচ ছিলো অমীমাংসিত। যদিও সবশেষ দেখায় ব্রাজিলকে হারিয়েছিলো আলবিসেলেস্তেরা। ২০১৯ এর সুপার ক্লাসিকোতে আর্জেন্টিনার কাছে ১-০ গোলে হেরেছিলো নেইমাররা।

দুই দলের লড়াই ছাপিয়ে স্পটলাইটে মেসি ও নেইমার। কোপা আমেরিকা জয়ে দলের তুরুপের তাস হতে পারেন এই দুই মহারথী। চলতি আসরে দুই দলের প্রাণভোমরাই নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েছেন। চার গোল আর পাঁচ অ্যাসিস্টে গোল্ডেন বুটের দৌড়ে এগিয়ে খুদে জাদুকর। চার ম্যাচে জিতেছেন সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার। আর্জেন্টিনার টানা ১৯ ম্যাচ অপরাজিত থাকার মূল নায়ক তো মেসিই। ফাইনাল জয়েও তার দিকে তাকিয়ে থাকবে আর্জেন্টিনা। অন্যদিকে, আসরে দুই গোল করেছেন নেইমার। দুই অ্যাসিস্টে দলকে খাদের কিনারা থেকে তুলেছেন ব্রাজিলিয়ান সেনশেসন। প্লে-মেকারের ভূমিকায় ১৭ বার গোলের সুযোগ তৈরি করেছেন নেইমার। রোববার ভোর ছয়টায় মারাকানার মেগা ফাইনালে লড়বে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker